রান্নাঘরে থাকা কড়াইয়ের সাহায্যে বিনা খাটনিতে কয়েক মিনিটেই বানান মাটির উনুন

নিজস্ব প্রতিবেদন: আগেকার দিনে কিন্তু কোনরকম আধুনিক প্রযুক্তিতে নয় সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক পদ্ধতিতে রান্নাবান্না থেকে শুরু করে অনেক কাজ সম্পন্ন করা হতো। এখনকার দিনে সাধারণত রান্নার জন্য গ্যাস অথবা বিভিন্ন ধরনের ইলেকট্রিক ওভেন ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তবে এখনো কিন্তু গ্রামের আনাচে কানাচে থেকে শুরু করে বহু জায়গায় এমন মানুষ রয়েছেন যারা মাটির তৈরীর চুলা বা উনুন ব্যবহার করে রান্না বান্না সেরে থাকেন।

এতে যেমন গ্যাসের খরচ বেঁচে যায় ঠিক তেমনভাবেই বেঁচে যায় বিদ্যুতের বিল। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে যেভাবে ক্রমাগত গ্যাসের দাম উত্তরোত্তর বেড়ে চলেছে সেই হিসেবে দেখতে গেলে বহু সাধারণ মানুষও কিন্তু এই মাটির চুলা উনুন তৈরি করে রান্নার কাজ সম্পন্ন করতে পারেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করে নেব খুব সহজ পদ্ধতিতে মাটির চুলা বা উনুন তৈরি করার উপায়।

মাটির উনুন বানানোর জন্য কি করবেন?

প্রথমেই বেশ কিছুটা পরিমাণ নরম মাটি নিয়ে আপনাদেরকে তা একটি কড়াইতে ভালো করে ছড়িয়ে নিতে হবে। আপনারা চেষ্টা করবেন একটা বড় সাইজের করাই নেওয়ার। তারপর ভালো করে কড়াইয়ের উপরে এই মাটি দিয়ে কড়াই এর শেপে একটা প্রলেপ লাগিয়ে ফেলুন।। যেহেতু এখানে আপনাদের স্ট্রাকচার হিসেবে আগে থেকেই করাই দেওয়া থাকবে তাই মাটির তৈরি এই প্রলেপ দিতে কিন্তু খুব একটা অসুবিধা হবে না। চারপাশে মাটির আস্তরণ এবার যোগ করতে থাকুন। তাতে মাঝের গর্ত প্রথমের থেকে সামান্য ছোট হয়ে আসে।

এবার হাত দিয়ে আপনাদের মাটিগুলিকে ভালো করে গুলিয়ে মসৃণ করে তুলতে হবে। ঠিক যেমনভাবে কোন পাত্র বা মূর্তি তৈরি করা হয় তেমন ভাবেই কিন্তু হাতের সাহায্যে এখানে আপনারা মাটির প্রলেপ দেবেন।। এবার একটার দিকের অংশ সামান্য নিচু করে সেখানে একটি গোল কোন পাইপ বা কাঠের টুকরো বসিয়ে ফেলুন। তারপর এর চারপাশে আবারো মাটির প্রলেপ দিতে থাকুন। যাতে এটা সহজে খুলে বা ভেঙে না যায়। এরপর ধীরে ধীরে এই মাটির অংশ আরো উপর দিকেও মাটি দিয়ে বাড়াতে থাকুন।

লক্ষ্য করে দেখবেন কড়াই থাকার কারণে কিন্তু আপনাদের এই উনুন ধরে নিয়ে যেতে সুবিধে হবে পাশাপাশি মাঝে যে ছিদ্রটি আপনারা প্রথমেই তৈরি করেছেন সেখান থেকে খুব সহজেই কিন্তু কাঠ-কয়লা আপনারা দিতে পারবেন। অবশ্যই কিন্তু আপনাদের চুলাতে মাটির প্রয়োগ দিয়ে এটাকে আরো বড় করে তুলতে হবে যাতে খাবার তৈরি করার সময় একেবারে মাটির সমানে না থাকে।

সবশেষে মাঝের ছিদ্রটি তৈরি হয়ে গেলে ভালো করে এর উপরে মাটির প্রলেপ দিয়ে একেবারে সমান্তরাল করতে হবে।  আজ তৈরি হয়ে গেল শুধুমাত্র একটি করাই ব্যবহার করে সম্পূর্ণ ঘরোয়া পদ্ধতিতে মাটির উনুন বা চুলা। উল্লেখ্য এটি তৈরি করার পরে একটু রোদে রেখে শুকিয়ে নিতে ভুলবেন না। রোদে রাখলে উনুনটি আরেকটু মজবুত হয়ে যাবে।

Back to top button