লেবু গাছে এবার থেকে ব্যবহার করুন এই একটি জিনিস, অল্পদিনেই পাবেন অধিক ফলন

নিজস্ব প্রতিবেদন: লেবু এমন একটি ফল যা কিন্তু রান্না থেকে শুরু করে অনেক কাজেই ব্যবহার করা হয়ে থাকে। রূপচর্চা হোক বা কোন ক্লিনিং এর কাজ লেবুর ভূমিকা কিন্তু অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বাড়িতে অনেকেই কমবেশি লেবুর গাছ লাগিয়ে থাকেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সঙ্গে কিছু এমন টিপস শেয়ার করে নিতে চলেছি যাতে আপনারা জানতে পারবেন যে লেবুর গাছ কিভাবে লাগানো যেতে পারে এবং এর পরিচর্যা কেমনভাবে করতে হবে। সুতরাং যদি আপনিও বাগানপ্রেমী হয়ে থাকেন তাহলে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি একেবারেই কিন্তু মিস করবেন না।

লেবু গাছ লাগানোর পদ্ধতি এবং উপযুক্ত পরিচর্যা:

১) লেবু গাছ লাগানোর জন্য প্রথমেই আপনাদের একটি বড় দেখে পাত্র নিয়ে নিতে হবে। অনেকেই কিন্তু প্রথম পর্যায়ে বাড়িতে টবে গাছ লাগিয়ে থাকেন। কারণ খোলামেলা জায়গা সব বাড়িতে থাকে না। কাগজি লেবু গাছ বড় করার জন্য আপনাদের কিন্তু বীজ ব্যবহার করলে চলবে না। আপনাদেরকে কলমের মাধ্যমে অথবা অন্য কোন ভাবে গাছ লাগাতে হবে। কাগজি লেবুর ক্ষেত্রে কিন্তু ফলন খুবই বেশি রকমের হয়ে থাকে।

টবে হোক বা খোলা মাটিতে দুই জায়গাতেই কিন্তু এই গাছ খুব ভালোভাবে বাড়তে পারে। তবে আপনাদেরকে কিন্তু গাছ বড় হতে না হতেই যখন ফুল ধরবে তখন অতিরিক্ত রোদ আর বৃষ্টি থেকে এটাকে বাঁচাতে হবে। প্রচুর পরিমাণে রোদ থাকলে কোন একটি নেটের তলায় গাছ রাখার চেষ্টা করবেন। আবার ধরুন খুব বৃষ্টি পড়ছে সেক্ষেত্রে এই গাছ আপনারা কোন শেডের তলায় রাখতে পারেন যাতে বৃষ্টির কারণে ফুল ঝরে না যায়।

২) যখন গাছে অতিরিক্ত পরিমাণে ফুল এসে যাবে তখন ধীরে ধীরে আপনাকে জল দেওয়ার পরিমাণ কিছুটা কমিয়ে নিতে হবে। ফুল ফলে রূপান্তরিত হয়ে গেলে তখন আপনারা আবার জলের পরিমাণ আগের মতন ধীরে ধীরে বাড়াতে পারেন। মনে রাখবেন যাই করুন না কেন লেবু গাছ কিন্তু আপনাকে অতিরিক্ত বৃষ্টির হাত থেকে বাঁচাতেই হবে। এরপর আসা যাক গাছের জন্য উপযুক্ত সারের কথায়। এর জন্য আপনারা ব্যবহার করতে পারেন সর্ষের খোল, ডিমের খোসা এবং গোবর ।হালকা মিশিয়ে এখানে এক দেড় মাস অন্তর ব্যবহার করতে পারেন।। এই মিশ্রণটি ব্যবহার করলে কিন্তু গাছের বৃদ্ধি অত্যন্ত দ্রুত হবে।

সবশেষে বলবো গাছ যখন বাড়তে শুরু করবে তখন আপনাদের রোদ এবং ছায়া দেখে এর স্থান পরিবর্তন করতে থাকতে হবে যাতে এটি উপযুক্ত পরিমাণে খাবার তৈরি করতে পারে। জলের পরিমাণ কিন্তু অতিরিক্ত বেশি বা একেবারেই কম করবেন না। গাছে যখন ফুল ধরবে তখন এই ব্যাপার গুলি মাথায় রাখা আরো বেশি করে গুরুত্বপূর্ণ। এই ধরনের আরো টিপস সম্পর্কে জানতে হলে আমাদের অন্যান্য প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে থাকুন।

Back to top button