ভরা গঙ্গায় দুই বড় লঞ্চের মধ্যে চললো তু-মু-ল রে-ষারেষি, কিছুদূর যেতেই লাগলো ধা-ক্কা,আতঙ্কে যাত্রীরা, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা অনেক সময় নানান ধরনের আশ্চর্যকর ভিডিও দেখতে পাই।এরমধ্যে কিছু ভিডিও রয়েছে যা আমাদের মনকে আনন্দ দান করে। আবার কিছু ভিডিও আমাদের মনকে ভারাক্রান্ত করে রেখে দেয়। কিন্তু যাই হোক না কেন দিন প্রতিদিন সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে।

অনেকেই এই অ্যাপ্লিকেশনগুলির সাহায্যে নিজেদেরকে পরিচিতি দেওয়ার চেষ্টা করছেন। এরমধ্যে অনেক সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে রয়েছেন সেলিব্রিটিরাও।তবে এই সোশ্যাল মিডিয়া অনেক ক্ষেত্রে আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে ক্ষ-তিগ্র-স্ত করে তুলতে পারে। কারণ, অতিরিক্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাক্টিভ থাকার কারণে অনেকের মধ্যেই নানান ধরনের অসুবিধা দেখা দিচ্ছে।

মনোচিকিৎসকদের মতে,সারাটা দিন নেট মাধ্যমে কাটানোর জন্য অনেকেই বাস্তব জীবন থেকে দূরে সরে যাচ্ছেন।ভার্চুয়াল দুনিয়াতেই সবকিছু মনে করে নিচ্ছেন তারা। হাজার চেষ্টার পরেও কোনো রকম উপায় পাওয়া যাচ্ছে না।

আট থেকে আশি সকলেই এখন নেট মাধ্যমের বাসিন্দা। তবে এ কথা একেবারেই সত্যি,যে ইন্টারনেট ব্যবহার করার মাধ্যমে খুব সহজেই আমরা যেকোনো কোনায় পৌঁছে যেতে পারি।এমনকি খুব সহজেই বিশ্বের যেকোন স্থানে থাকা মানুষের সাথে আমাদের যোগাযোগ হয়। এই করোনা পরিস্থিতি চলাকালীন সময়ে অনেক মানুষ এমন রয়েছেন যারা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সাহায্য পেয়েছেন অনেকভাবেই।

সম্প্রতি নেট মাধ্যমে একটি ভিডিও বেশ সাড়া ফেলে দিয়েছে। এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একেবারে মাঝ গঙ্গা বরাবর দুটি লঞ্চের মধ্যে চলছে তুমুল পরিমাণে রেষারেষি। কিছুক্ষণ একে অপরকে অতি-ক্র-ম করার পর হঠাৎ করেই তুলনামূলকভাবে বড় লঞ্চটি ছোট লঞ্চটিকে অ-তি-ক্রম করে যাওয়ার চেষ্টা করে। সেই সময় ছোট ল-ঞ্চে-র শেষ অংশে বড় লঞ্চটির কোনা মা-রা-ত্মক-ভাবে ধাক্কা খায়। যা দেখে সকলে অবাক হয়ে গিয়েছেন!নিজেদের টক্কর চালু রাখার জন্য কিভাবে ওই লঞ্চের চালকেরা এত সব যাত্রীর প্রাণ বি-প-দে ফেলে দিয়েছিলেন তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে!

ভিডিওটি দেখে অনেকেই প্রতিবাদ জানিয়েছেন।অনেকেই ভিডিওটির কমেন্ট বক্সে ওই চালকদের শাস্তি পাওয়ার দাবি জানিয়েছেন।কারণ নিজেদের সুখের জন্য অন্যের জীবনকে এভাবে বি-প-দে-র মুখে ফেলে দেওয়ার অধিকার কারও নেই। চাইলে আপনারাও এই ভয়াবহ ভিডিওটি দেখে আসতে পারেন।একটি মন্তব্যের মাধ্যমে এই ভিডিওটি কেমন লাগলো আপনার সেই মতামত আমাদের জানাতে ভুলবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button