রান্নার কড়াইয়ের কালো কঠিন দাগ মিনিটেই দূর করে চকচকে বানাতে ট্রাই করুন এই সহজ দুর্দান্ত ট্রিকস

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমাদের সকলের বাড়িতেই কিন্তু একটা সমস্যা প্রায় সময় দেখা যায় সেটা হল রান্না করার পর বাসন বা কড়াই পুড়ে যাওয়া। শুধুমাত্র তাই নয় ভাল করে লক্ষ্য করে দেখবেন যখন কোন ভারী রান্না বাসনে করা হয় তখন কিন্তু একটা মোটা আস্তরণ পড়ে যায়। বাসনের উপর থেকে এই সমস্ত দাগ তুলতে গেলে গৃহিণীদের কিন্তু বেশ সমস্যার মুখোমুখি পড়তে হয়। বাসন মাজার লিকুইড বা সাবান দিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা ঘষার পরেও দেখবেন সহজেই দাগ কিন্তু যেতে চায় না।

আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের সঙ্গে এমন কয়েকটি উপায় শেয়ার করে নিতে চলেছি যার মাধ্যমে খুব সহজেই কিন্তু বাড়িতে থাকা বাসন বা কড়াইয়ের উপরের অংশের কড়া দাগ আপনারা খুব সহজে তুলে নিতে পারবেন। চলুন তাহলে আর সময় নষ্ট না করে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক।

১) টমেটো কেচাপ ও লবণঃ

বাসনের উপর থেকে যে কোন কড়া আস্তরণ বা কালো দাগ তোলার জন্য টমেটো কেচাপ ও লবণ খুব সহজেই কাজে লাগানো যেতে পারে। বাসনের যে অংশের দাগ রয়েছে অথবা পোড়া দাগ পড়ে গিয়েছে সেই জায়গাটিতে মোটামুটি আধ ঘন্টা সময় পর্যন্ত আপনাদেরকে টমেটো কেচাপ আর লবণ লাগিয়ে রেখে দিতে হবে। এরপর খুব সহজেই আপনারা কিন্তু স্কচ বাইট বা যে কোন স্ক্রাবিং জাতীয় উপাদান নিয়ে এটাকে তুলে নিতে পারেন। বাসন কতটা চকচকে আর পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে সেটা হয়তো আর আপনাদেরকে আলাদা করে দেখানোর দরকার হবে না।

২)কোকাকোলাঃ

বাসনের উপর থাকা যে কোন জেদি বা পোড়া দাগ দূর করতে কিন্তু কোকাকোলা কার্যকরী ভূমিকা পালন করতে পারে। এর জন্য আপনাদের একটি বড় গামলা বা পাত্র নিয়ে নিতে হবে যার মধ্যে আপনারা যে বাসনটিকে পরিষ্কার করতে চান তাকে ডুবিয়ে রাখতে পারেন। এরপর সেটার মধ্যে পরিমাণ মতন কোকাকোলা ঢেলে নিন। এতে পোড়া বাসনগুলো ডুবিয়ে কয়েক ঘন্টা রেখে দিন, সারারাত রাখতে পারলে আরো ভালো। পরদিন বাসন উঠিয়ে স্ক্রাবার দিয়ে ভালো করে মেজে ধুয়ে নিন। আসলে কোকাকোলার মধ্যে এতটা বেশি পরিমাণে অ্যাসিডিক উপাদান থাকে যা খুব সহজেই কিন্তু বাসন থেকে এই সমস্ত দাগ তুলতে সাহায্য করে থাকে।

৩) ভিনিগার ও বেকিং সোডা:

1.বাসনের মধ্যে থাকা জেদি দাগ দূর করার জন্য আপনারা কিন্তু বিভিন্ন রকম ভাবে এই দুটি উপাদান অর্থাৎ ভিনিগার এবং বেকিং সোডা ব্যবহার করতে পারেন।। একটি বড় পাত্রে এক ভাগ হোয়াইট ভিনেগার ও দুই ভাগ জল মিশিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে নিন। তারপর এই মিশ্রণের মধ্যে যে সমস্ত বাসনের পোড়া দাগ রয়েছে বা জেদি দাগ রয়েছে সেগুলোকে ডুবিয়ে রেখে দিন। এভাবে কিছুক্ষণ রেখে দেওয়ার পর আপনারা কিন্তু খুব সহজেই এটাকে যে কোন ডিসওয়াশ দিয়ে ধুয়ে নিতে পারেন।

2. প্রথমবারের মতন এবারো একটি বড় পাত্রের মধ্যে ভিনেগার আর বেকিং সোডার একটা মিশ্রণ তৈরি করে নিন। তারপর সেটার মধ্যে পোড়া দাগ যুক্ত বাসনটিকে রেখে দিন। এরপর এই বড় পাত্রটিকে গ্যাসে বসিয়ে দিন এবং বেশ কিছুক্ষণ সময় পর্যন্ত মিশ্রণ সহ ফুটিয়ে নিন। ফুটে উঠলে পাতিলটি উঠিয়ে পোড়া জায়গায় কিছুটা বেকিং সোডা ছিটিয়ে দিন। সোডা-ভিনেগারের বিক্রিয়ায় কিছুক্ষণ বুদবুদি দেখা যাবে। এতে পোড়া দাগ আপনাআপনিই উঠে যাবে।

3. তৃতীয় পদ্ধতিতে এক ভাগ গরম জলের সাথে তিন ভাগ বেকিং সোডা মিশিয়ে একটি ঘন পেস্ট বানিয়ে নিন। এবার পোড়া দাগের উপরে এই ঘন পেস্ট বেশ কিছুক্ষণ আপনাদের লাগিয়ে রেখে দিতে হবে। যে কোন স্ক্রাবার দিয়ে অল্প সময়ে ঘষলে কিন্তু দেখবেন খুব সহজেই সেই পোড়া দাগ উঠে গিয়েছে।

4.যেসব প্যানের পিছনে কপারের আবরণ আছে সেসব পরিষ্কার করার জন্য লাগবে ভিনেগার, বেকিং সোডা, এবং লেবু৷ পোড়া অংশের পুরোটা জুড়ে বেকিং সোডা এবং ভিনেগারের পেস্ট লাগিয়ে ৫-৭ মিনিট রেখে দিন। এরপর অর্ধেক লেবু দিয়ে এই জায়গাটাকে ভালো করে কিছুক্ষণ ঘষতে থাকুন। দেখবেন কিছুক্ষণের মধ্যেই সম্পূর্ণ দাগ ধীরে ধীরে উঠে আসবে। অল্প সময়ের মধ্যেই কিন্তু বাসন একেবারে ঝকঝকে হয়ে উঠবে এই পদ্ধতিতে।

৪) ওভেন ক্লিনারঃ

বাসনের পেছনের কালো দাগ দূর করার জন্য এটা কেউ ব্যবহার করা যেতে পারে, তবে এটা কিন্তু কিছুটা ঝুঁকিপূর্ণ। আসলে বাসনের কালো দাগের জন্য ওভেন ক্লিনারের মতো হার্শ কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয় না। কারণ এই জাতীয় রাসায়নিক দ্রব্য বাসনের বাইরের আবরণ নষ্ট করতে ফেলতে পারে। সুতরাং যদি আপনারা এই উপকরণটি দিয়ে নিজেদের বাসন পরিষ্কার করতে চান সে ক্ষেত্রে কিন্তু অবশ্যই আগে দেখে নেবেন ওই বাসনটির ওয়ারেন্টি আছে কিনা! নয়তো সেই বাসন বা কড়াই নষ্ট হয়ে গেলে আপনাদের অনেক টাকা হয়তো বৃথা চলে যাবে।

৫)ডিটারজেন্ট, লেবু, লবণ, এবং বেকিং সোডাঃ

উপরিউক্ত কয়েকটি উপকরণ এর সংমিশ্রণে ও আপনারা কিন্তু চাইলে বাসনের উপরের পোড়া দাগ বা জেদি দাগ সহজেই তুলে ফেলতে পারেন। তবে এতে আপনাদের সামান্য সময় লাগবে তার কারণ কয়েকটি স্টেপে এই কাজটি আপনাদের সম্পূর্ণ করতে হবে।। চলুন জেনে নেওয়া যাক পদ্ধতি।

প্রথম ধাপ:

যে বাসনটি অথবা পুড়ে যাওয়া কড়াই আপনারা পরিষ্কার করতে চান তার মধ্যে ৩ গ্লাস জল,২ টেবিল চামচ ডিটারজেন্ট পাউডার, ১ টেবিল চামচ লবণ, এবং ১ টেবিল চামচ লেবুর রস দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর গ্যাসে এই পাত্রটি বসিয়ে মোটামুটি পাঁচ থেকে দশ মিনিট সময় পর্যন্ত আপনাদেরকে ভালো করে ফুটিয়ে নিতে হবে। এতে বিক্রিয়ার কারণে দেখবেন ভেতরের কালো বা পোড়া অংশ অনেকটাই নরম হয়ে এসেছে। তাতে করে আপনাদের পাত্রটি পরিষ্কার করা অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে।

দ্বিতীয় পদ্ধতি:

বেশ কিছুক্ষণ এভাবে সমস্ত উপকরণসহ গ্যাসে ফুটিয়ে নেওয়ার পরে আপনাদের পাত্রটি উঠিয়ে নিতে হবে। তারপর যেকোনো বড় গামলায় এই মিশ্রণটিকে ঢেলে দিন। মিশ্রণে কড়াই বা পাত্রটিকে বসিয়ে দিন। কড়াইটি কিছুটা জলপূর্ণ করে নিন যাতে মিশ্রণে ভালোমতো বসতে পারে। এভাবে যদি আপনারা বেশ কিছুটা সময় রেখে দেন তাহলে কিন্তু খুব সহজেই দেখবেন বাইরের কালো অংশ অর্থাৎ পোড়া জায়গাটা ধীরে ধীরে নরম হয়ে আসছে।

সর্বশেষ ধাপ:

এরপর ওই বড় গামলাটি থেকে আপনাদের পোড়া বাসন বা কড়াইটি তুলে নিতে হবে। তারপর এক টেবিল চামচ ডিটারজেন্ট পাউডার ও এক টেবিল চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে একটা ক্লিনিং মিশ্রণ তৈরি করে নিন। এই মিশ্রণ ওই পোড়া পাত্রে ভালোভাবে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে অথবা চাইলে সাথে সাথেই স্টিলের স্ক্রাবার দিয়ে ভালো করে ঘষে নিতে পারেন। দেখবেন পূর্ববর্তী স্টেপ গুলির প্রভাবে এবং এই মিশ্রণের বিক্রিয়ার কারণে খুব সহজেই দাগ কিন্তু উঠে বাসন একেবারে নতুনের মতন ঝকঝকে হয়ে যাবে।

Back to top button