ঘরের জানালার খাঁজে জমা ধুলো ময়লা থেকে হওয়া ফাঙ্গাস মিনিটেই হবে পরিষ্কার, রইলো দুর্দান্ত ট্রিকস

নিজস্ব প্রতিবেদন : সম্পূর্ণ ঘর বাড়ি পরিষ্কার করলেও কিন্তু জানলা দরজা আমরা অনেক ক্ষেত্রেই পরিষ্কার করি না সঠিকভাবে। আপনারা হয়তো অনেকেই ভাবছেন জানলা দরজা পরিষ্কার না করলে এমন কি হতে পারে!দরজা-জানালার কোণায় উৎপন্ন হওয়া ধুলো-ময়লা, ফাঙ্গাস থেকে হতে পারে কঠিন অসুখ। মোল্ড হচ্ছে ঠিক সেরকমই এক ধরণের ফাঙ্গাস। অনেকের হয়তো ধারণা নেই এই ফাঙ্গাস কত কঠিন অসুখ সৃষ্টি করতে পারে মানুষের শরীরে।

আপনাদের সুবিধার্থে জানিয়ে রাখি,কাঠের জানালার কোণায় ও খাঁজে ধীরে ধীরে এই ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ফাঙ্গাসের জন্ম ও বৃদ্ধি হয়। সময়মতো নিধন না করলে মোল্ডের একটি পুরু স্তর তৈরি হয়ে জানালার গরাদ ও গর্ত ঢেকে ফেলে। এগুলি কিন্তু ভীষণ রকমের ক্ষতিকর। কম-বেশি প্রায় অনেক বাড়িতেই কিন্তু লক্ষ্য করে দেখবেন জানালার দরজার উপরে যে পুরো আস্তরণ সৃষ্টি হয়ে যাচ্ছে সেটা কিন্তু এই ফাঙ্গাসের ফলেই হয়ে থাকে।

বেশিরভাগ মানুষ এটাকে সাধারণ ধুলো বলে ভুল করে থাকেন। তবে আজকে আমরা অত্যন্ত সহজ পদ্ধতিতে কিভাবে এই ফাঙ্গাস পরিষ্কার করা যেতে পারে সেই বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। চলুন আর সময় নষ্ট না করে আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক।

ফাঙ্গাস পরিষ্কার করার সহজ উপায়—

সহজ পদ্ধতিতে ফাঙ্গাস পরিষ্কার করার জন্য আমাদের বেশ কয়েকটি জিনিসের প্রয়োজন হবে। এই জিনিস গুলি হল ফেস মাস্ক,গ্লাভস,আই প্রোটেক্টিভ গ্লাস,খালি স্প্রে বোতল,সাদা ভিনেগার,বেকিং সোডা ,প্লাস্টিকের স্ক্রাবার,পরিষ্কার ন্যাকড়া,পেপার টাওয়েল,প্লাস্টিকের বড় বড় কভার। ফাঙ্গাস কোনভাবে শরীরের সংস্পর্শে আসলে কিন্তু ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে তাই অবশ্যই এটি পরিষ্কার করার সময় মাস্ক এবং গ্লাভস ভালোভাবে ব্যবহার করবেন।

কোন সময়ে এই ফাঙ্গাস পরিষ্কার করতে হবে?

যেহেতু মোল্ড নিজেই উষ্ণ ও স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়ার কারণে তৈরি হয়, সেহেতু শুষ্ক আবহাওয়া ছাড়া এই জাতীয় ফাঙ্গাস নিধনের কাজ করা উচিত নয়। বৃষ্টির দিনে এই ফাঙ্গাস পরিষ্কার করার চেষ্টা না করাই ভালো। বৃষ্টির দিনে এই ফাঙ্গাস ঘরের কোন অংশে লেগে গেলে তা যদি ভালোভাবে শুকানো না হয় সেক্ষেত্রে কিন্তু সমস্যা হতে পারে। তাই অবশ্যই এই পরিষ্কার করার কাজের জন্য আপনারা একটি শুষ্ক রৌদ্রজ্জ্বল দিন বেছে নেওয়ার চেষ্টা করবেন। এটা আপনার স্বাস্থ্যের পক্ষেই ভালো হবে।

ফাঙ্গাস পরিষ্কার করার জন্য কি কি করতে হবে?

ফাঙ্গাস পরিষ্কার করার জন্য আপনাদের কয়েকটি ধাপে কাজ করতে হবে। প্রথম ধাপে আপনাদের ভালো করে স্ক্রাবারের সাহায্যে জানালায় লেগে থাকা ফাঙ্গাস ঘষে ঘষে তুলে নিতে হবে। দেখবেন ধীরে ধীরে এর উপরে লেগে থাকা বাড়তি ময়লা আলগা হয়ে যাচ্ছে।যদি মোল্ডের কণা এবং ধুলা সহজে জানালার বাইরে যেতে না পারে, তাহলে ভ্যাকুয়াম ক্লিনার দিয়ে ঝরে পড়া ময়লা তুলে ফেলবেন।

পরে ভ্যাকুয়ামের নজলটা সাবান জল দিয়ে ধুতে কিন্তু ভুলে যাবেন না। দ্বিতীয় ধাপে আপনাদের ব্যবহার করতে হবে ভিনিগার।স্ক্রাবিং বা ড্রাই রিমুভালের পরে ভিনেগার দিয়ে ওয়েট ওয়াইপিং করতে হবে। এর জন্য আপনারা একটি স্প্রে বোতলে ভিনিগার নিয়ে সহজেই কাজ করে নিতে পারেন।

স্প্রে করার পর আপনাকে ৫ থেকে ৭ মিনিট সময় পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।ভিনিগার ব্যবহার করার কারণে কিন্তু ফাঙ্গাস অনেকটাই আলগা হয়ে যাবে যার জন্য আপনাদের এটি তুলে ফেলতে সুবিধা হবে।ফাঙ্গাস পরিষ্কারের সর্বশেষ ধাপ হচ্ছে ডিপ ক্লিনিং। এই পর্যায়ে ভিনেগার পুনরায় স্প্রে করতে হবে সেসব জায়গায় যেখানে প্রথম দুই ধাপের পরেও মোল্ডের অস্তিত্ব থাকবে। ভিনেগার স্প্রে করার পরে জানালার প্রতিটা কোণা, গর্ত, এবং খাঁজে অনেকটা বেকিং সোডা ছিটিয়ে দিন। এবারে আরও একবার আপনাদেরকে কাপড় দিয়ে কিন্তু ভালোভাবে ঘষে নিতে হবে।

বেকিং সোডা ব্যবহারের কারণে কিন্তু জানালা থেকে সমস্ত ফাঙ্গাস সহজেই দূরীভূত হয়ে যাবে।সবশেষে শুকনো কাপড় দিয়ে পুরো জানালা দুই-তিনবার মুছে নিন আর চেক করে দেখুন এখনো ফাঙ্গাস লেগে আছে কিনা। যদি থাকে সেক্ষেত্রে আপনারা আরো একটু বেকিং সোডা ব্যবহার করে নিতে পারেন। এবারে আমরা আসবো ফাঙ্গাস পরিষ্কার করার সময় যে সমস্ত সতর্কতা অবলম্বন করতে হয় সেগুলির কথায়।

ফাঙ্গাস পরিষ্কারের সময় সতর্কতা:

এই ফাঙ্গাস থেকে নানান ধরনের রোগ ব্যাধি সৃষ্টি হতে পারে তাই অবশ্যই এটি পরিষ্কার করার সময় কিন্তু আপনাদের ভালোভাবে সতর্ক থাকতে হবে।ব্ল্যাক মোল্ডের সংস্পর্শে আসলেই স্কিন ইরিটেশন, সাইনোসাইটিস, শ্বাসকষ্ট দেখা দিতে পারে। যখন প্রথম ধাপে বাড়তি ময়লা পরিষ্কার করবেন, তখন মোল্ডের প্যাটার্নটা লক্ষ্য করুন। ব্ল্যাক মোল্ড সবসময় বৃত্তাকারে উৎপন্ন হয়, কিন্তু যে জায়গায় জন্মেছে সে জায়গার ময়েশ্চার কমে গেলে তখন আকার পরিবর্তন করে।black mold কিন্তু নিজে পরিষ্কার নাই করা উচিত। এর জন্য আপনারা প্রফেশনাল ক্লিনারের সাহায্য নিতে পারেন।

Back to top button