“স্টার জলসার ঝিলিক অবশেষে তার মাকে খুঁজে পেলো!”, মমতার সাথে ছবি তুলে কটাক্ষের শিকার শ্রীতমা

নিজস্ব প্রতিবেদন: সম্প্রতি রাজ্য সরকারের তরফ থেকে বিজয়া সম্মেলন আয়োজন করা হয়েছিল। শুধুমাত্র রাজনৈতিক মহলের ব্যক্তিবর্গরাই নয় বহু টলিউড সেলিব্রিটিরা এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। অপরাজিতা আঢ্য থেকে শুরু করে এই অনুষ্ঠানে দেখা যায়,ঊষা উত্থুপ, লীনা গঙ্গোপাধ‍্যায়, ভরত কল, জুন মালিয়া, শ্রীতমা ভট্টাচার্য, রাজ চক্রবর্তী, পাওলি দাম, অরিন্দম শীল সহ আরো অনেককে। সম্প্রতি এর বেশ কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে।

অনেক তারকারাই কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিভিন্ন ছবি তুলেছেন এবং সেগুলি সোশ্যাল মিডিয়া শেয়ার করে নিয়েছেন। অত্যন্ত আশ্চর্যজনকভাবে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে যে সমস্ত তারকা ছবি শেয়ার করেছেন তাদের প্রায় সকলকেই কিন্তু রীতিমতন কটাক্ষের মুখোমুখি পড়তে হয়েছে। এরই মধ্যে একজন হলেন শ্রীতমা ভট্টাচার্য। টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির এই জনপ্রিয় অভিনেত্রীকে আপনারা সকলেই প্রায় কম বেশি চেনেন।

তবে রিয়েল লাইফের নামের চেয়ে রিল লাইফের নামেই তিনি কিন্তু বেশি পরিচিত দর্শকদের মাঝে। তিনি ‘অদ্রিজা’। তিনি ‘ঝিলিক’। খলনায়িকার ভূমিকাতেও কিন্তু তাকে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে। এমন সুন্দরী জাঁদরেল ভিলেন এই মুহূর্তে টলিউডে খুব একটা নেই। অভিনয়ের পাশাপাশি সম্প্রতি কিছুদিন আগেই রাজনীতির অঙ্গনেও পা রেখেছেন শ্রীতমা। সাম্প্রতিক পুরসভা নির্বাচনে কামারহাটি পৌরসভার ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের প্রার্থী ছিলেন অভিনেত্রী।

প্রথমবার দাঁড়িয়ে এই ওয়ার্ড থেকে জয়লাভ করেন। অভিনেত্রীর হয়ে বহু সেলেব্রেটি কিন্তু প্রচার সেরেছিলেন। মা ধারাবাহিক খ্যাত এই ঝিলিকের উপরেই শেষ পর্যন্ত আশা রেখেছিলেন 28 নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দারা। তবে অভিনেত্রী তথা রাজনীতিবিদ এই শ্রীতমা ভট্টাচার্যকেই এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষের মুখোমুখি হতে হল। আসলে সম্প্রতি বিজয়া সম্মেলন এর অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে একটি সেলফি তোলেন শ্রীতমা।

যে সেলফিতে মুখ্যমন্ত্রীকে তার চিরাচরিত নীল পাড়ের সাদা শাড়িতে দেখা যাচ্ছে। অন্যদিকে শ্রীতমা এক গাল হাসি নিয়ে পড়ে রয়েছেন সোনালী বর্ণের একটি শাড়ি। এক ব্যক্তি এই ছবিটি নিজের পেজ থেকে শেয়ার করে লিখেছেন ‘অবশেষে ঝিলিক তার মাকে খুঁজে পেয়েছে’। আসলে মা ধারাবাহীকে ঝিলিকের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন শ্রীতমা। ঝিলিক ছোট থেকেই তার হারিয়ে যাওয়া মাকে সমস্ত জায়গায় খুঁজে বেড়াতো। অন্যদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের অনেক নেতাদের কাছেই কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ‘মা’ হিসেবে পরিচিত।

এর আগেও অনেক রাজনীতিবিদদেরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে ‘মা’ হিসেবে ডাকতে দেখা গিয়েছে। তাই এখানে ঘটে গিয়েছে অনেকটা দুইয়ে দুইয়ে চার হয়ে যাওয়ার মতন ঘটনা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝিলিকের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর ছবিটি ভাইরাল হতে না হতেই রীতিমতন কটাক্ষের বন্যা বয়ে গিয়েছে। অনেকেই ছবির কমেন্ট বক্সে শ্রীতমাকে ‘চটিচাটা’ বা ‘মেরুদন্ডহীন’ বলে উল্লেখ করেছেন। এক ব্যক্তি এই ভাইরাল পোস্টের কমেন্ট বক্সে লিখেছেন, “ঝিলিক তার মাকে খুঁজে পেয়েছে, এবার পার্থর মতন বয়ফ্রেন্ড পাবে”।

অন্য আরেকজনের কথায়, “দিদিকে যে বেশি ভালবাসবে সেই পশ্চিমবাংলার কোটিপতি হতে পারবে । এ নিঃসন্দেহে বলা যায়। এইবার ঝিলিকের খাটের তলায় কিছুদিন বাদে হয়তো হাজার হাজার কোটি টাকা পাওয়া যাবে”। এক ব্যক্তি তো এমনটাও লিখতে ছাড়েননি যে, “বাব্বা! মাকে খুঁজে পেয়েই কি চওড়া হাসি, হাসি যেনো গালের বাইরে চলে যাচ্ছে..”। পাঠকদের উদ্দেশ্যে প্রতিবেদনের সাথেই শ্রীতমা ভট্টাচার্য এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই ভাইরাল ছবিটি যোগ করে দেওয়া হল। দেখে নিন সেই বহু চর্চিত ছবি।

Back to top button