স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডে মিলবে ১০ লক্ষ টাকা, কারা কারা পাবেন, কিভাবে পাবেন, রইল বিস্তারিত!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের মধ্যে এরকম অনেকে আছেন যারা পড়াশোনা করতে অত্যন্ত ভালোবাসেন । কিন্তু টাকা পয়সার অভাবে বা আ-র্থিক স-মস্যার কারণে তারা পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারে না । যার ফলে মাঝপথে ছেড়ে দিতে হয় পড়াশোনাকে । থ-মকে যায় তাদের স্বপ্ন । এবার সেই স্বপ্ন পূরণের দায়িত্ব নিল রাজ্য সরকার । এই জন্যই এই পশ্চিমবঙ্গ গোটা ভারতবর্ষে অন্যান্য রাজ্যের থেকে যথেষ্ট আলাদা ।নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করলেন স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড।

২০২১ এরবিধানসভা ভোটের আগে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে একটি ইশতেহার প্রকাশ করা হয়েছিল । যে ইশতেহারে একাধিক প্রকল্পের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । এবং তারা জানিয়েছিলেন যদি এবার তারা পুনরায় নির্বাচনের মাধ্যমে বিপুল ভোটে জয় যুক্ত হন তাহলে সেই সমস্ত প্রকল্পগুলো চালু করবে এই রাজ্যজুড়ে যার ফলে সুবিধা ভাবে একাধিক সাধারণ মানুষেরা ।

ইশতেহার এর মধ্যে অন্যতম একটি প্রকল্প কথা ছিল স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন যে এই রাজ্যের বহু পড়ুয়ারা টাকা পয়সার অভাবে পড়াশোনা চালিয়ে যেতে পারে না । এমনকি তারা বিদেশে গিয়ে পড়াশোনা করার স্বপ্ন দেখতে পারে না । তাদের স্বপ্ন যাতে সফল হয় তার জন্য তার পাশে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার সেই অর্থে স্টুডেন্টদেরকে দেওয়া হবে ১০ লক্ষ টাকার একটি ক্রেডিট কার্ডের লোন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন যে রাজ্যের ছাত্রছাত্রীরা এই রাজ্যের সম্পদ ও গর্ব ।

কোন কারণে যাতে তাদের পড়াশোনার থমকে না যায় তার জন্য এই প্রচেষ্টা রাজ্য সরকারের তরফ থেকে । এর জন্য আলাদা কোনো গ্যারান্টার লাগবেনা । রাজ্য সরকার নিজেই এই লোনের গ্যারান্টার হিসেবে কাজ করবে । স্নাতক স্নাতকোত্তর পেশাদারী ডক্টরেট পোস্ট ডক্টরেট ইত্যাদির জন্য কার্যকর হবে এই স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড । এবং চাকরি পাবার পর সফট লোনের মাধ্যমে ১৫ বছরের মধ্যে আপনি এই টাকা ফেরত দিতে পারবেন । এই প্রকল্প ঘোষণা হওয়ার পর থেকে এক আনন্দের উচ্ছ্বাস ধরা দিয়েছে প্রতিটি ছাত্র ছাত্রী এবং পড়ুয়াদের মধ্যে ।তার পাশাপাশি আরও একবার মানুষ আশা-ভরসা এবং বিশ্বাস রাখতে চলেছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button