পশ্চিমবঙ্গেও চালু হয়ে গেলো এক দেশ এক রেশন কার্ড, দারুণ যে সকল সুবিধা পাবেন সাধারণ মানুষ? জেনে নিন!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- এবার এক দেশ এক রেশন কার্ডের পথে হাঁটতে চলেছে গোটা ভারত বর্ষ । এর আগে আমরা দেখেছি রেশন নিয়ে বিভিন্ন জা-লিয়া-তির ঘটনা প্রকাশ্যে উঠে এসেছে । তার পাশাপাশি অনেক ধরনের অভিযোগ ছিল । স্থানীয় মানুষদের মধ্যে এমন অভিযোগ ছিল যে মানুষ মারা গেছে তার নামে রেশন তোলা হচ্ছে । যে মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে তার নামেও রেশন তোলা হচ্ছে । এবার সেই সমস্ত জালিয়াতির ঘটনা সম্পূর্ণ রকম ভাবে নির্মূল করতে ওয়াকিবহাল রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারে ।

রেশন কার্ডের সাথে যুক্ত করতে হবে আধার কার্ড এবং এক দেশ এক রেশন প্রকল্পে নিজেকে অধীনস্থ করতে হবে। বাজারদর নিয়ন্ত্রণ রাখতে আলাউদ্দিন খিলজির সময় থেকে জারি করা হয়েছিল এ রেশন ব্যবস্থা । এর মাধ্যমে দেশের দারিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী মানুষের বিনামূল্যে খাবার বা কম মূল্যে প্রয়োজনীয় খাবার গুলো পেয়ে থাকেন । যার ফলে কিছুটা হলেও তাদের অভাব অনটন দূর হবে ।

এই রেশন ব্যবস্থা এসেছে অনেক পরিবর্তন । তার পাশাপাশি এসেছে জা-লিয়া-তির ঘটনা । সেই সমস্ত জালিয়াতিকে বন্ধ করতে এই ধরনের নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার । এবং রাজ্য সরকার এবং সুপ্রিম কোর্ট প্রতিটি রাজ্য কে কড়া ভাষায় নির্দেশ দিয়েছেন যাতে ৩১ জুলাই এর মধ্যেই কাজ সম্পন্ন করা হয় । তার জন্য কাজ শুরু করে দিয়েছে ইতিমধ্যে রাজ্য সরকার গুলি । রেশন ডিলারদেরও এই বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশ দিয়েছে নবান্ন।

বলা হয়েছে, ইপিওস অনলাইন পোর্টালে রেশন দোকানে সব লেনদেন অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। যাতে সরকারের কাছে এই বিষয়ে স্পষ্ট হিসাব থাকে। যে মানুষেরা রাজ্যের বাইরে অন্যত্র রেশন দোকান থেকে প্রয়োজনীয় সামগ্রী তুলতে চাইছেন, তাতেও যাতে অসুবিধা না হয়, সেদিকেও খেয়াল রাখা হবে এই পোর্টালের মাধ্যমেই। পাশাপাশি, বাইরের রাজ্য থেকে যাঁরা এ রাজ্যে এসেছেন, তাঁরাও যাতে রেশন কার্ডের মাধ্যমে সঠিক পরিমাণ জিনিস পান,

সেটিও হিসাব রাখতে হবে এই পোর্টালে। এর পাশাপাশি রাজ্য সরকার কঠিনভাবে নির্দেশ দিয়েছেন যে যে সমস্ত গ্রাহকের আধার কার্ডের সাথে রেশন কার্ডের সংযুক্ত রয়েছে সেই সমস্ত গ্রাহকরা একমাত্র রেশন তুলতে পারবেন তোলার জন্য লাগবে বায়োমেট্রিক তথ্য অর্থাৎ আঙ্গুলের ছাপ ইত্যাদি তবে তারা রেশন তুলতে পারবেন ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button