জুলাই মাসে অনেক দিন বন্ধ থাকবে সমস্ত ব্যাংক, কাজ সারার হলে সোমবারই সারুন, রইলো তালিকা!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ব্যাংক কর্তৃপক্ষ সব সময় এমনটা চান যে তাদের গ্রাহকরা যাতে কোনো রকম কোনো অ-সুবিধার না সম্মু-খীন হয় । কিন্তু তবুও দেখা যায় মাঝেমধ্যে বিভিন্ন গ্রাহক বিভিন্ন সময় স-মস্যার স-ম্মুখীন হচ্ছে । বিশেষ করে সবথেকে বেশি স-মস্যার স-ম্মুখীন হয় যখন কেউ ব্যাংকে টাকা তুলতে চায় কিন্তু তাকে ব্যাংকের দরজা বন্ধ থাকে । তাই অতি অবশ্যই একজন সাধারণ গ্রাহক হিসেবে আপনাকে জেনে রাখা দরকার যে আপনার এলাকাতে ব্যাংক প্রতি মাসে কোন কোন দিন বন্ধ থাকবে ।

কারণ আমাদের ভারতবর্ষে বিভিন্ন ধর্মের সমন্বয়ে তৈরি । কাজেই প্রতিটি ধর্মের আলাদা আলাদা উৎসব থাকে এবং স্থানীয় উৎস অনুসারে প্রতি মাসে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ব্যাংক বন্ধের তালিকা প্রকাশ করে থাকেন । ব্যাংকের মধ্যে আমরা নিরাপত্তাজনিত কারণে টাকা পয়সা জমা রেখে থাকে । তার পাশাপাশি টাকা পয়সা থেকে প্রাপ্ত সুদ আমাদের মূলধনকে বছরের পর বছর ধরে বাড়িয়ে তোলে । তাই দেশের অধিকাংশ মানুষ বলা বাহুল্য প্রায় সকল মানুষই ব্যাংকের সুবিধা নিয়েছেন ।

এর পাশাপাশি পোস্ট অফিস রয়েছে সেই সুবিধা প্রদান করার জন্য যা অনেক খানি ব্যাংক এর সমতুল্য । তবে মাঝেমধ্যে আমাদের আশেপাশে থাকা ব্যাংক গু-লিকে বন্ধ থাকতে দেখা যায় । তার কারণ রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া থেকে ঘোষণা করা ছুটির তালিকা । তেমনি জুলাই মাসে মাত্র একদিন ছুটি থাকে পশ্চিমবঙ্গবাসী ব্যাংক কর্মচারীদের জন্য । এছাড়াও দ্বিতীয় শনিবার এবং রবিবার অফিস ছুটি থাকে অর্থাৎ মোট জুলাই মাসের ৭ দিন ব্যাংক বন্ধ থাকবে । এই ছুটির দিনগুলি যথাক্রমে ৩, ১০, ১১, ১৮, ২৪, ২৫ তারিখ।

বাকি যে একদিন ছুটি রয়েছে সেই দিনটি হলো ২১ জুলাই। ওই দিন রয়েছে বকরি ঈদ বা ঈদ-উল-জুহা। তবে এই ছুটির দিনগু-লিতেও এটিএম পরিষেবা অথবা নেট ব্যাঙ্কিং পরিষেবা কোন রকম ব্যাহত হবে না। বর্তমানে অধিকাংশ ব্যাঙ্কের গ্রাহকই এটিএম অথবা অনলাইন পরিষেবার উপর নির্ভরশীল। তবে এই ছুটির দিনগু-লিতে ব্যাঙ্কের শাখায় গিয়ে কোনরকম কাজকর্ম করা যাবে না।এই বিষয়গু-লি অবশ্যই আপনার জেনে রাখা দরকার নইলে কিন্তু আপনি চ-রম ভো-গান্তির শি-কার হতে হবে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button