বিয়ের পর নীল তৃণার প্রথম জামাই ষষ্ঠী, শাশুড়ির হাত থেকে মার্টন কে’ড়ে খেলেন নীল, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- জনপ্রিয় তারকা দম্পতি নীল ভট্টাচার্য এবং তৃণা সাহা কে আমরা সকলেই কম বেশি চিনি। মাত্র কয়েক মাস আগেই বিবাহ ব-ন্ধনে আ-বদ্ধ হয়েছেন তারা।তবে তার আগে থেকেই তাঁদের প্রেম সম্পর্ক সোশ্যাল মিডিয়ার চর্চার বিষয়বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছিল। দীর্ঘ প্রায় ১০ বছর সম্পর্কের পর গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন এই জুটি।অভিনয় জগতে আসার আগে থেকেই পরিচয় নীল এবং তৃণার। বর্তমানে কৃষ্ণকলি ধারাবাহিকে জমিয়ে অভিনয় করছেন নীল ভট্টাচার্য। ঠিক একইভাবে স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক খড়কুটো তে অভিনয় করছেন তৃণা সাহা।

অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও একে অপরকে সময় দিতে ভোলেননা দুজনের কেওই। মাঝেসাজেই তাদের নানান ধরনের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে ওঠে। বর্তমান যুগ সোশ্যাল মিডিয়ার যুগ। এই সময় সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে তারকারা সকলেই সোশ্যাল মিডিয়াকে নিজেদের পরিচিতি লাভের হাতিয়ার হিসেবে তৈরি করে ফেলেছেন।যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমানভাবে অ্যাক্টিভ নীল এবং তৃণা দুজনেই।

গত ফেব্রুয়ারি মাসের ৪ তারিখে বিয়ে করেছিলেন তারা। এরপর ঠিক ১০ দিন পর ভ্যালেন্টাইন্স ডের দিন কলকাতার এক অভিজাত ক্লাবে তাদের গ্র্যান্ড রিসেপশনের অনুষ্ঠান শুরু হয়। সেদিন টলিউডের তাবড় তাবড় সেলিব্রিটিদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।এই পরিপ্রেক্ষিতে নীল এবং তৃণার রাজনৈতিক যোগদানের জল্পনা ছড়িয়ে পড়েছিল।এর কিছুদিনের মধ্যেই দুজনেই তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করে নির্বাচনী প্রচারে অংশগ্রহণ করেন। সম্প্রতি জামাই ষষ্ঠী উপলক্ষে একাধিক ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে উঠেছে এই তারকা দম্পতির।

এই ছবিগুলোতে দেখা যাচ্ছে সামনে একাধিক রান্না করা পদ নিয়ে বসে আছেন নীল ভট্টাচার্য। জামাই ষষ্ঠী উপলক্ষে একেবারে আদর দিয়ে খাওয়ানো হচ্ছে তাকে।নীলের পাশে রয়েছে তার বউ তৃণা এবং শশুর— শাশুড়ি। বেশ মজা এবং আনন্দের মাধ্যমেই জামাইষষ্ঠী সেলিব্রেশন করেছেন এই তারকা দম্পতি।সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিগু-লি ভাইরাল হওয়ার সাথে সাথেই ভক্তরা আনন্দের সাথে তাতে কমেন্ট করতে শুরু করে দিয়েছেন। চাইলে আপনারাও এই তারকা দম্পতির আনন্দের মুহূর্ত গু-লি সোশ্যাল মিডিয়া প্রোফাইলে গিয়ে দেখে আসতে পারেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button