‘রমা,তোমার সঙ্গে যদি আমার বিয়ে হত! উত্তমের প্রস্তাবে কী বলেছিলেন সুচিত্রা?

নিজস্ব প্রতিবেদন : টলিউডের (Tollywood) বেস্ট জুটি কোনটি? এই প্রশ্নের জবাবে বাংলার দর্শকরা প্রথমেই নাম নেবেন উত্তম-সুচিত্রার। উত্তম কুমার (Uttam Kumar) এবং সুচিত্রা সেনকে (Suchitra Sen) ছাড়া টলিউড সম্পূর্ণ হত কি? রোমান্স কাকে বলে তা বাঙালিকে শিখিয়েছে এই জুটি। পর্দায় অভিনয় করতে করতে তাদের নিজেদের মধ্যেও কি রোমান্স দানা বেঁধেছিল? তেমনটা হলে তো খুশিই হতেন দর্শকরা।

তবে তাদের সম্পর্ক নিয়ে অনেক গুঞ্জন থাকলেও বাস্তবে কখনও প্রকাশ্যে তাতে সীলমোহর দেননি মহানায়ক এবং মহানায়িকা। দীর্ঘ ২২ টা বছর তারা একে অপরের পাশে থেকেছেন। কেরিয়ারে তারা আরও অন্যান্য তারকার সঙ্গে অনস্ক্রিন জুটি বাঁধলেও উত্তম-সুচিত্রা জুটিকে তা কখনই ছাপিয়ে যেতে পারেনি।

পর্দার বাইরে দুজনের মধ্যে ব্যক্তিগত সম্পর্কটাও ছিল অত্যন্ত গভীর। সুচিত্রা উত্তমকে ভালবেসে ‘উতু’ নামে ডাকতেন। মহানায়কও মহানায়িককে ডাকতেন তার আসল নাম ‘রমা’ বলে। দুজনের মধ্যে যেমন বন্ধুত্ব ছিল খাঁটি, তেমনি আবার মান-অভিমান ঝগড়াঝাঁটিও চলত জোরকদমে। এমনকি তাদের মান অভিমান এক সময় এমন পর্যায়ে পৌঁছায় যে ‘সপ্তপদী’ ছবির শুটিংও নাকি দীর্ঘদিন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

উত্তম কুমারের সঙ্গে পরবর্তী দিনে সুপ্রিয়া দেবীর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। উত্তম-সুপ্রিয়ার সম্পর্ক নিয়ে টলিউডে যতই সমালোচনা বা রসালো গল্প চলুক না কেন উত্তম-সুপ্রিয়ার সম্পর্ককে আজও শ্রদ্ধার নজরেই দেখেন সকলে। তবে জানেন কি সুচিত্রা সেনকেও বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছিলেন উত্তম কুমার? খুব কম মানুষই এই খবরটা জানেন। উত্তম কুমার নিজে থেকেই একদিন এই প্রসঙ্গ তুলেছিলেন সুচিত্রার কাছে।

সুচিত্রা সেনের বাড়িতে এক সন্ধ্যায় আড্ডা দিতে দিতে উত্তম কুমার বলেছিলেন, “রমা, তোমার সঙ্গে যদি আমার বিয়ে হত!” মহানায়ককে স্বামী হিসেবে পাওয়াটা তখন কার্যত প্রতিটি মেয়ের কাছেই স্বপ্নের মত ছিল। তবে সুচিত্রা সেন তার প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। তিনি এই প্রস্তাবের যে জবাব দিয়েছিলেন তা জানলে তার সম্পর্কে আলাদাই এক শ্রদ্ধার ভাব জেগে উঠবে। সেদিন কী উত্তর দিয়েছিলেন মহানায়িকা?

সুচিত্রা ছিলেন বুদ্ধিমতী। তিনি উত্তমের প্রস্তাবের জবাবে বলেন, “একদিনও সেই বিয়ে টিকত না। তোমার আর আমার ব্যক্তিত্ব অত্যন্ত স্বতন্ত্র। সেখানে সংঘাত হতই। তার উপর তুমি চাইবে তোমার সাফল্য, আমি চাইব আমার। এরকম দুজন বিয়ে করলে সে বিয়ে খুব বাজেভাবে ভেঙ্গে যেত”। উত্তম কুমারের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিলেন ঠিকই, তবে মনে মনে মহানায়ক তার অনেকখানি জায়গা জুড়েছিলেন। তার মৃত্যুর পর নিজেকে লোকচক্ষুর আড়ালে সরিয়ে নেন সুচিত্রা।

Leave a Comment