বলিউডে পা রাখতে চলেছেন মিঠুন চক্রবর্তীর কনিষ্ঠ পুত্র নমশি! ‘স্টার কিড’ হওয়ার সুফল? বলে প্রশ্ন তুলেছেন নেটিজেনরা! তুমুল ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- মিঠুন চক্রবর্তীর বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে ঠিক কতখানি অবদান সেটা নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখেনা বাংলার পাশাপাশি হিন্দি অভিনয় জগতে সমানভাবে একই তালে বিরাজ করে গেছেন মিঠুন চক্রবর্তীর । ইতিমধ্যে প্রায় সাড়ে তিনশ’রও বেশি ছবিতে তিনি অভিনয় করে ফেলেছেন তার পাশাপাশি জিতেছেন একাধিক জাতীয় পুরস্কার মিঠুন চক্রবর্তীর স্ক্রিন শেয়ার করে নেওয়ার রীতিমত ভাগ্যের ব্যাপার তার পক্ষে এমনটাই জানিয়েছেন নমসি চক্রবর্তী ।নমশির কাছে তাঁর বাবা মিঠুন তাঁর আইডল। নিজের পছন্দের নায়ক ও আইডলের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করার সুযোগ পেয়ে যথেষ্ট আনন্দিত নমশি।

পুত্রসন্তান হলেও তিনি তো ইন্ডাস্ট্রির হিসাবে নিউকামার। বাবা এবং ছেলের এই যুগলবন্দি সিনেমা দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা রত তার অনুরাগীরা । যদিও এ মনটা খুব স্বাভাবিক । কারণ যে মিঠুন চক্রবর্তী একসময় বাংলার অভিনয় জগতের জনপ্রিয়তাকে একা হাতে ধরে রেখেছিলেন সেই মিঠুন চক্রবর্তীর ছেলে তার পারদর্শী হয়ে উঠবে এমনটা আশা করা যেতেই পারে । তবে সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে যে তার ছেলে তার বাবার মতো নাচে পারদর্শী হয়ে উঠেছে ।

এমনকি তার বাবা তার আইডল এবং সেরা নায়ক তার চোখে । সম্প্রতি তাকে ব্যাড বয় নামক একটি সিনেমাতে অভিনয় করতে দেখা যেতে পারে তাকে । জানা যাচ্ছে এই সিনেমাটি একদমই আলাদা ভাবে বানানো হয়েছে ।থাকবে বেশ কিছু নাচের দৃশ্য যেখানে একসাথে দেখা যাবে মিঠুন চক্রবর্তী এবং তার ছেলেকে । এই মিঠুন চক্রবর্তী তিনবার জাতীয় পুরস্কার অর্জন করেছেন । সে কথা আমরা প্রত্যেকে জানি । তার অভিনীত ছবিগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু ছবি হল দাদা চোরে-চোরে মাসতুতো ভাই এমেলে ফাটাকেষটো সহ আরো অনেক কিছু ।

শুধুমাত্র বাংলা নয় তার পাশাপাশি হিন্দি তেলেগু তিনি অভিনয় করেছেন কিন্তু তার এক ছেলে যখন বলিউডে পা রাখতে চলেছে তখন কিন্তু অন্য ছেলে বলিউডে পা রেখে ও জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারেনি বরং জড়িয়ে পড়েছে ধর্ষণকাণ্ডে । । তাই তার জীবন নিয়ে রয়েছে অর্থাৎ জীবনের ক্যারিয়ার নিয়ে রয়েছে অনেকখানি সংশয় ।কিন্তু তাঁর স্ত্রী মদালসা শর্মা ‘অনুপমা’ সিরিয়ালে অভিনয় করছেন। সুতরাং নমশির উপর যথেষ্ট চাপ রয়েছে মিঠুনের যোগ্য উত্তরাধিকারী হয়ে ওঠার।যদিও এ ব্যাপারে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন যে টার্কির হওয়ার সুবাদে কি এই ধরনের সুযোগ পাচ্ছে তারা নাকি নিজের প্রতিবাদে অর্জন করছে সেই জায়গা?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button