এবার বাড়িতেই ঢ্যাঁড়শ থাকবে দীর্ঘদিন ধরে টাটকা ও সবুজ, শুধুমাত্র জেনে নিন এই দুর্দান্ত ঘরোয়া টিপস

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমাদের দৈনন্দিন বিভিন্ন খাবারে কিন্তু নানান ধরনের সবজি রান্না করা হয়ে থাকে। তবে কর্মব্যস্ত জীবনে কিন্তু সকল মানুষের পক্ষে প্রতিদিন বাজার করা সম্ভব হয় না। তাই এমন বহু মানুষ রয়েছেন যারা একবারে বাজার করে তা বাড়িতে সংরক্ষণ করে রাখেন এবং পরবর্তীতে তা প্রয়োজন অনুযায়ী রান্না করে নেন। বিশেষ করে আধুনিক যুগে এই কাজে আমাদেরকে কিন্তু সহায়তা করে থাকে রেফ্রিজারেটর ওরফে ফ্রিজ। তবে এমন কিছু সবজি রয়েছে যা ফ্রিজে রাখলেও কিন্তু খুব বেশিদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায় না।

এই প্রসঙ্গে আমরা ঢ্যাড়সের কথা বলতে পারি। ঢেঁড়শ দুই দিন ফ্রিজে বা বাইরে রাখলে, তারপর শুকিয়ে যায় বা ঢেঁড়শ আঠালো হয়ে যায়। এই ধরনের ঢেঁড়শ রান্নার উপযোগী নয়। তাই অবশ্যই কিন্তু যদি আপনারা এই সবজিটি খেতে ভালোবাসেন তাহলে এর সঠিক সংরক্ষণ পদ্ধতি আপনাদেরকে বিস্তারিত জেনে নিতে হবে। আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আমরা তা নিয়েই আলোচনা করতে চলেছি।

১) ঢেঁড়শ কেনার সময় কিছু লক্ষণীয় বিষয়:

যদি আপনারাও এই সবজিটি দীর্ঘদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করে রাখতে চান তাহলে আপনাদের কয়েকটি বিষয় কিন্তু কেনার সময় মাথায় রাখতে হবে। এবার থেকে যখন আপনারা বাজারে ঢেঁড়শ কিনবেন তখন দেখবেন যে, এতে খুব বেশি বীজ না থাকে। অনেক ক্ষেত্রেই কিন্তু আগে থেকে সবজি নরম হয়ে যায়। তাই হাত দিয়ে টিপেও আপনাদের দেখে নিতে হবে যে ঢেঁড়শ নরম রয়েছে কিনা! এছাড়াও আপনাদের আকার আর রংয়ের প্রতি বিশেষ ভাবে নজর দিতে হবে। কারণ বাজারে কিন্তু দেশি এবং কৃত্রিম দুই ধরনের ঢেঁড়শ চিনতে পাওয়া যায়। সাধারণত দেশি ঢেঁড়শ ছোট আকৃতির হয়ে থাকে। সবচেয়ে ভালো ঢেঁড়শ হল Pusa A-4, যা আকারে মাঝারি এবং গাঢ় সবুজ রঙের। এই ধরনের ঢেঁড়শে কম গ্লুটেন থাকে, যার ফলস্বরূপ এটা সুস্বাদু বেশি।

২)ঢেঁড়শ সংরক্ষণের উপায়:

যদি আপনারা দীর্ঘ সময়ে এটাকে ভালো অবস্থায় রাখতে চান তাহলে কিন্তু আপনাদের অবশ্যই ঢেঁডশকে আদ্রতা থেকে যতটা সম্ভব দূরে রাখার ব্যবস্থা করতে হবে। এটাকে বাজার থেকে কেনার পরে কাগজে বিছিয়ে শুকিয়ে নিন যাতে এর উপর থাকা জল শুকিয়ে যায়। সবজিতে যেন কোন রকমের জল না থাকে তাহলে কিন্তু এটা দ্রুত পচে যাবে। এবার শুকনো একটি কাপড়ে মোড়ে যে কোন এয়ার টাইট পাত্রে আপনারা সবজিটি রেখে দিতে পারেন তাহলে কিন্তু বেশ কয়েকদিন পর্যন্ত ঢেঁড়স ভালো অবস্থায় থাকবে। অর্থাৎ কোনোভাবেই এর মধ্যে আদ্রতার প্রবেশ ঘটানো যাবে না।

৩)ঢেঁড়শ ফ্রিজে রাখার টিপসঃ

ঢেঁড়শ ফ্রিজে সংরক্ষণ করারও কিন্তু কিছু নির্দিষ্ট উপায় রয়েছে।। ফ্রিজে রাখতে হলে আপনাদের অবশ্যই সবজির ব্যাগে বা ভালো কোন পলিথিন ব্যাগে এটাকে মুড়ে রাখতে হবে। যদি আপনারা মুড়ে রাখার কাজে পলিথিন ব্যাগ ব্যবহার করে থাকেন তাহলে অবশ্যই সেটাতে কয়েকটি ছিদ্র করে নেবেন। ফ্রিজের ভেজ ঝুড়িতে ঢেঁড়শ রাখতে চাইলে প্রথমে ভেজ ঝুড়িতে খবরের কাগজ বা কাগজ ছড়িয়ে দিন। তারপর একে একে ঢেঁড়শ সাজিয়ে নিন। খবরের কাগজ কিন্তু সবজির মধ্যে থাকা সমস্ত জল টেনে নেব এবং এটাকে দীর্ঘদিন পর্যন্ত সতেজ অবস্থায় রাখতে সাহায্য করবে।

৪) ঢেঁড়শ পচে যাওয়া থেকে রক্ষা করার উপায়:

যদি আপনারা ঢেঁড়স বেশ কয়েকদিন সংরক্ষণ করতে চান তাহলে কিন্তু কখনই ভেজা কোন সবজি বা ফলের সঙ্গে এটাকে সংরক্ষণ করবেন না বা রাখবেন না। কারণ ওই সমস্ত ভেজা জিনিসের যে জল থাকবে সেটা সবজির আদ্রতা বাড়িয়ে তুলবে এবং সেটাকে দ্রুত নষ্ট করে ফেলবে। আর হ্যাঁ আরো একটি ব্যাপার আপনাদের মাথায় রাখতে হবে যে শাকসবজি তথা ঢেড়স খুব বেশি দিন (১ সপ্তাহের বেশি) আপনারা কিন্তু সংরক্ষণ করবেন না। তার কারণ এই সমস্ত শাকসবজিকে যদি বেশিদিন সংরক্ষণ করা হয় সেক্ষেত্রে এগুলির পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায়।

Back to top button