বাড়িতেই দারুন কায়দায় এককাপ গুঁড়ো দুধ দিয়ে বানিয়ে ফেলুন ১২ কাপ মিষ্টি দই, দেখে নিন দারুন পদ্ধতি

নিজস্ব প্রতিবেদন:গরমকালে শেষ পাতে দই না হলে বেশিরভাগ মানুষেরই মন ভরেনা। এককথায় স্বাদে অনন্য মিষ্টি দই। মুশকিল হচ্ছে, পাশে মিষ্টির দোকান থাকলেও সেখানে জুতের মিষ্টি দই মেলা দুষ্কর। কিন্তু খুব সহজেই আপনারা এই সমস্যার সমাধান করে নিতে পারেন বাড়িতে বসেই।

অত্যন্ত অল্প সময়ের মধ্যে সহজ পদ্ধতিতে আপনারা বাড়িতে এবার মিষ্টি দই তৈরি করে নিতে পারেন। তাহলে আসুন আর দেরি না করে আমাদের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক। প্রথমেই একটি বিষয় আপনাদের জানিয়ে রাখি দই সবচেয়ে ভালো বসবে মাটি বা পাথরের বাসনে। কারণ তা সচ্ছিদ্র, বাড়তি জলীয় অংশ টেনে নেবে। তা না থাকলে স্টিল বা কাচের বাসনেও বসাতে পারেন, কোনও অসুবিধে নেই, তবে টেক্সচারের অনেকটা পার্থক্য থাকবে।

মিষ্টি দই তৈরি করার জন্য আপনাদের বেশ কিছুটা পরিমাণ গুঁড়ো দুধের প্রয়োজন হবে। এছাড়াও লাগবে সামান্য পরিমাণ টক দই, পরিমান মত চিনি। প্রথমেই গুড়োদুধ গুলিকে জল দিয়ে মোটামুটি ঘন করে ভালোভাবে ফুটিয়ে নিতে হবে। এরপর একটি পাত্রের মধ্যে চিনির ক্যারামেল তৈরি করে নিতে হবে।

ক্যারামেল তৈরি করার সময় খেয়াল রাখবেন চিনি যাতে একেবারেই পুড়ে না যায়। এবারে ভালো করে চিনির ক্যারামেল টি দুধের মিশ্রণের মধ্যে মিশিয়ে নিতে হবে। দই খুব মিষ্টি করবেন না। তাই অবশ্যই চিনি পরিমাণমতো ব্যবহার করার চেষ্টা করবেন।

মিষ্টি দই তৈরির সর্বশেষ ধাপে মাটির পাত্রের গায়ে ১ চামচ দই ভালো করে মাখিয়ে রাখুন। দুধ ঠান্ডা হয়ে গেলে বাকি দই দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে দিন। মাটির পাত্রে দুধ ঢেলে দিয়ে মুখ ভালো করে আটকে দিন।মাটির পাত্রটি মোটা কাপড়ে জড়িয়ে ৭-৮ ঘন্টা রেখে দিন। এই সময়ে একেবারেই নড়াচড়া করবেন না। ৭-৮ ঘন্টা পর তৈরি হয়ে যাবে আপনার বানানো মিষ্টি দই। মিষ্টি দই তৈরির প্রথম প্রক্রিয়াটি একেবারেই অত্যন্ত সহজ।

একটু যত্নসহকারে অত্যন্ত অল্প সময়ের মধ্যে আপনারা বাড়িতে এই দই তৈরি করতে পারেন। দই তৈরির এই বিশেষ রেসিপিটি আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই আমাদের প্রতিবেদনের কমেন্ট বক্সে জানানোর অনুরোধ রইলো। এই ধরনের আরও রেসিপি সম্পর্কে জানতে আমাদের অন্যান্য প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে পারেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button