বড়পর্দায় এবার আসতে চলেছে কিংবদন্তি অভিনেত্রী সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের বায়োপিক, উচ্ছ্বসিত ভক্তরা

নিজস্ব প্রতিবেদন: স্বর্ণযুগের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী বলতে আমরা যার কথা বলতে পারি তিনিই হলেন সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়। একটা সময় দাপটের সঙ্গে বাংলা চলচ্চিত্র জগতে অভিনয় করেছেন তিনি। তার অভিনয় কিন্তু দর্শকদের মনে আজও তার জন্য একটা পাকাপোক্ত জায়গা তৈরি করে রেখেছে। অত্যন্ত ছোট বয়সে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেছিলেন সাবিত্রী। কিছুটা সাংসারিক অভাব অনটনের জন্যই তাকে অভিনয় জগতে আসতে হয়েছিল। তবে পরবর্তীতে অভিনয়টাই কিন্তু তার ধ্যান জ্ঞান হয়ে যায়।

বহু সুপারহিট সিনেমায় অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে তাকে। বড়পর্দায় অভিনয় শুরু করার আগে মঞ্চে অভিনয় করতেন সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়। ইন্ডাস্ট্রিতে শুধুমাত্র অভিনয়ের কারণে নয় আরো একটি কারণে চর্চিত ছিলেন তিনি। অনেকেই মনে করতেন মহানায়ক উত্তম কুমারের সঙ্গে তার সম্পর্ক রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে এই গুঞ্জন মানুষের কানে এসেছিল।

সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায় অভিনীত সিনেমাগুলির মধ্যে অন্যতম ‘মাল্যদান’, ‘শেষ অঙ্ক’, ‘উত্তরায়ণ’, ‘উপহার’, ‘গলি থেকে রাজপথ’, ‘ভ্রান্তিবিলাস’, ‘ধন্যিমেয়ে’, ‘নিশিপদ্ম’। শুধমাত্র যে বড় পর্দায় অভিনয় করেছেন তাই নয়, ছোট পর্দায় ও তার ভূমিকা অনস্বীকার্য। এহেন জনপ্রিয় অভিনেত্রীর জীবন যে অনেকটাই আলাদা হবে সেকথা হয়তো আর আপনাদের বলে দেওয়ার প্রয়োজন নেই। তাই এবারের সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের বায়োপিক তৈরি করার কথা ভাবছেন লীনা গঙ্গোপাধ্যায় ও শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায়।

সাবিত্রীর জীবনের নানা অজানা কথা তাঁর আত্মজীবনী ‘সত্যি সাবিত্রী’তে রয়েছে। সেই বই অবলম্বনেই চিত্রনাট্য লেখা হচ্ছে বলে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন লীনা গঙ্গোপাধ্যায়।। তবে এখনো পর্যন্ত এই বায়োপিক নিয়ে কিছু ধোঁয়াশা কিন্তু পরিষ্কার হয়ে ওঠেনি। এই বায়োপিক সিনেমা না ওয়েব সিরিজ কি হিসেবে পর্দায় আসবে সেটাই দেখার বিষয়? পাশাপাশি যেটা সবথেকে বড় ব্যাপার হচ্ছে এই বায়োপিকে কোন চরিত্রে কাকে কাস্ট করা হবে।

নিঃসন্দেহে সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়ের মতন এত বড় ব্যক্তিত্বের বায়োপিকে অবশ্যই ভালো অভিনেতাদেরই কাজ করতে হবে তা হয়তো আলাদা করে বলে দেওয়ার প্রয়োজন নেই। বায়োপিক তৈরির খবর জেনে কিন্তু বেশ খুশি হয়েছেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। তবে শুধুমাত্র অভিনেত্রী নন তার অসংখ্য অনুরাগীরাও এখন এই বায়োপিক তৈরির অপেক্ষায় রয়েছেন। আশা করা যাচ্ছে খুব শীঘ্রই এই বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

Back to top button