রান্নাঘরের কষ্ট কমাতে ও কাজ সহজে করতে রইলো ৬ টি অসাধারণ কিচেন টিপস

নিজস্ব প্রতিবেদন : সংসারের বিভিন্ন কাজ নিয়েই কিন্তু গৃহিণীরা চিন্তায় ভুগে থাকেন। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় দিনের শেষে কাজ সেরে ওঠার পরে নিজেদের জন্য কিন্তু তাদের কাছে আর সময় থাকে না। সারাদিনের এত কাজ এবং অন্যান্য বিষয় নিয়েই তাদের সময় কেটে যায়। যদি আপনিও একজন গৃহিণী হয়ে থাকেন এবং এই সমস্যার ভুক্তভোগী হয়ে থাকেন তাহলে আমাদের আজকের এই প্রতিবেদনটি আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে।

আজকে এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা নিয়ে এসেছি আপনাদের টেনশন কমানোর জন্য ছয়টি বিশেষ কিচেন টিপস। যদি আপনারা এই ছয়টি টিপস ফলো করে চলতে পারেন তাহলে কিন্তু খুব সহজেই কাজগুলি হয়ে যাবে এবং আপনাদেরকে আর নিজেদের জন্য সময় বের করার ব্যাপারে চিন্তা করতে হবে না।। তাহলে আসুন আর দেরি না করে আমাদের এই প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক। প্রথমেই জানিয়ে রাখি এই সমস্ত টিপসগুলি কিন্তু আপনারা অবশ্যই ভালোভাবে বাড়িতে ট্রাই করে দেখবেন এবং আমাদেরকে নিজেদের প্রতিক্রিয়া জানাতে ভুলবেন না।

  • গৃহিণীদের জন্য বিশেষ ছয়টি কিচেন টিপস—

১) এলাচের দানা কিন্তু খুব সহজেই গুড়ো করা যায় না। তাই আপনারা যখন এই দানা মিক্সারে গুঁড়ো করবেন তখন সামান্য পরিমাণে চিনি ব্যবহার করতে পারেন। অর্থাৎ এলাচের দানা গুড়ো করার সময় আপনারা এতে সামান্য পরিমাণ চিনি মিশিয়ে তারপর মিক্সারে গ্রাইন্ড করে নিতে পারেন। দেখবেন খুব সহজেই গুড়ো হয়ে গিয়েছে।

২) যদি কারণে আপনার বাড়িতে বয়াম বা কৌটো না থাকে সুজি বা ময়দা ভরে রাখার জন্য সেক্ষেত্রে আপনারা কিন্তু একটি বিকল্প ব্যবস্থা করতে পারেন। সুজির প্যাকেট থেকে সুজি কেটে প্রয়োজন অনুযায়ী ঢেলে নেওয়ার পর খুব সহজেই একটি চাকু গরম করে তা দিয়ে সুজির প্যাকেট আবার সিল করে নিতে পারেন।। একটি চাকু গ্যাসে গরম করে নিয়ে সুজির প্যাকেটের যে জায়গায় সিলটি কেটে নিয়েছেন সেখানে কিছুক্ষণ চেপে ধরলেই কিন্তু জায়গাটি জোড়া লেগে যাবে। এভাবে যদি আপনারা প্যাকেট সিল করে রাখেন তাহলে পোকা লাগার মতন সমস্যা থাকবে না।

৩) বর্ষাকালের সময় আমাদের অসুবিধা অত্যধিক দেখা যায় কোন কারণে বৃষ্টিতে কিন্তু ভিজে গিয়ে টাকা নষ্ট হয়ে যায়। যেহেতু এই সময় খুব একটা রোদ থাকে না তাই টাকা তাড়াতাড়ি শুকাতে চায় না। এই টাকা তাড়াতাড়ি শুকানোর জন্য আপনারা গ্যাসে একটি ননস্টিক প্যান বসিয়ে নিন। এই প্যানের মধ্যে কিছুটা পরিমাণ চাল দিয়ে ভালো করে গরম করতে থাকুন। তবে মিনিট খানেকের বেশি সময় গরম করার দরকার নেই। এরপর ভিজে টাকাগুলো এই চালের উপর রেখে দিলে কিছুক্ষণের মধ্যেই সমস্ত জল কিন্তু শুকিয়ে যাবে।

৪) আমাদের প্রতিবেদনের চার নম্বর টিপসটি হচ্ছে লেবু সংক্রান্ত। লেবু একটু শুকিয়ে গেলে কিন্তু এর মধ্যে কার সতেজ ভাব চলে যায় এবং কেমন একটা হয়ে যায়। এর জন্য আপনারা লেবুর ধারের দিক থেকে একটুখানি কেটে গরম জলে ডুবিয়ে রাখতে পারেন।। এরকমভাবে লেবুকে কেটে যদি গরম জলের মধ্যে ঢুকিয়ে রাখা যায় তাহলে কিন্তু আবারো এর সতেজ ভাব অনেকটাই ফেরত চলে আসবে।

৫) মিক্সার গ্রাইন্ডার আর আজকালকার দিনে প্রায় সকল বাড়িতেই রয়েছে। দীর্ঘ সময় ধরে মিক্সার গ্রাইন্ডার ব্যবহার করলে কিন্তু এর ভেতরের দিকটি কেমন যেন অপরিচ্ছন্ন হয়ে ওঠে। তাই অবশ্যই মিক্সার গ্রাইন্ডার একটি নির্দিষ্ট সময় অন্তর পরিষ্কার করে নেওয়া দরকার। মিক্সার গ্রাইন্ডার পরিষ্কার করার জন্য আপনারা লেবুর খোসা ব্যবহার করতে পারেন সহজেই। লেবুর খোসা ফেলে না দিয়ে এর সাহায্যে ভালো করে মিক্সার এর গা ঘষে নিলেই দেখবেন সমস্ত ময়লা উঠে গিয়েছে। যত দাগ ছোপ থাক না কেন এই লেবুর খোসা ব্যবহার করে পরিষ্কার করলে কিন্তু সমস্ত চলে যাবে। খুব বেশি ময়লা থাকলে সেক্ষেত্রে আপনারা লেবুর খোসার সাথে কিছুটা পরিমাণ লবণ ব্যবহার করে নিতে পারেন।

৬) আজকের প্রতিবেদনের শেষ টিপসটি গ্যাস বার্নার সংক্রান্ত। দীর্ঘ সময় ব্যবহার করার পর কিন্তু দেখবেন গ্যাস বার্নার একেবারে কালচে প্রকৃতির হয়ে যায়। এই কালচে ভাববা ময়লা দূর করার জন্য আপনারা গ্যাস বার্নার টিকে লেবুর রসের মধ্যে কিছুক্ষণ ভিজিয়ে রেখে দিন। মোটামুটি আধ ঘন্টা সময় পর কিছুটা পরিমাণ হারপিক ব্যবহার করে ব্রাশ দিয়ে ভালো করে ঘষে সমস্ত ময়লা তুলে দেবেন।

দেখবেন এটি একেবারে নতুনের মতন চকচকে হয়ে গিয়েছে। অন্ততপক্ষে সপ্তাহে একবার যদি আপনারা এভাবে গ্যাস বার্নার পরিষ্কার করতে পারেন তাহলে কিন্তু কোন চিন্তা থাকবে না। তো বন্ধুরা আমাদের আজকের এই বিশেষ কয়েকটি কিচেন টিপস আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই আমাদের প্রতিবেদনের কমেন্ট বক্সে শেয়ার করে নিতে ভুলবেন না। এই ধরনের আরো কোন টিপস আপনাদের জানা থাকলে তা কিন্তু অবশ্যই আমাদের সাথে শেয়ার করে নিতে পারেন।

Back to top button