প্রত্যেক বাবা-মার উচিত সন্তানকে প্রতিদিন অন্তত একবার করে এই 7 টি কথা বলা!

নিজস্ব প্রতিবেদন :-সন্তানকে ছোটবেলা থেকেই আমরা শিক্ষা প্রদান করে থাকি । যাতে তারা ভবিষ্যতে মানুষের মতো মানুষ হয় । কিন্তু তবুও কোনও কোনও ক্ষেত্রে খামতি থেকে যায় । যার ফলে বড় হয়ে সমস্ত সন্তানেরা অবাধ্য বা ভালো মানুষ হতে পারে না । বিভিন্ন ধরনের অসামাজিক কাজকর্ম সাথে যুক্ত হয়ে পড়ে বড় হওয়ার সাথে সাথে ।

তাই আপনি যদি চান যে যাতে আপনার সন্তানের সাথে এমনটা না ঘটতে তাহলে অতি অবশ্যই ছোটবেলা থেকেই কয়েকটি শিক্ষা প্রতিনিয়ত তাকে দিতে থাকুন । এতে তার মানসিক বিকাশ বৃদ্ধি করবে তার পাশাপাশি ভাবনা-চিন্তার পরিবর্তন ঘটবে খুব অল্প সময়ের মধ্যে আসুন দেখে নিই বিষয় গু-লি কি কি ।

১) পরিবার হলো সবচাইতে নি’রাপদ যায়গা এবং পরিবার আপনার সন্তানকে কতটা ভালোবাসে সেকথা তাকে জা’নিয়ে দিন। এতে সে নিজেকে নি’রাপদ ভাববে এবং পরিবারের প্রতিও সে ভালোবাসা দেখাবে।

২)অনেক সময় আপনার সন্তান কোন কিছু পারবেনা । তার পরিবর্তে তোকে বকাঝকা না করে সে বিষয়ে অবগত করুন । অনুশীলনের মাধ্যমে কিন্তু মানুষ পারফেক্ট হতে পারে । তাই রাগারাগি বা বকাঝকা না করে শান্ত শিষ্ট ভাবে ভালোবেসে তাকে বোঝান ।

৩) সন্তানকে প্রতিদিন একবার করে হলেও বলুন সে যেন হাল ছে’ড়ে না দেয়। প্রতিটি কাজেই তাকে উৎসাহ দিন এবং হ’তাশ হয়ে হাল ছে’ড়ে দিতে মানা করুন। তাকে বলুন ধৈর্য ধ’রে এগিয়ে গেলেই সাফল্যের দেখা পাবে সে।

৪)প্রতিনিয়ত আপনি আপনার সন্তানকে বলুন যে আপনি তার উপর ভরসা রাখেন বিশ্বাস করেন এবং ছোটখাটো কিছু দায়িত্ব পালন করতেন যেগুলি বিশ্বাসের উপর নির্ভরশীল । এতে তার বিশ্বাস বাড়বে এবং পরিবারের প্রতি ভালোবাসা বাড়বে।

৫) মাঝে মাঝে খা’রাপ সময় আসে জীবনের । খা’রাপ সময় থেকে শিক্ষা নিয়ে ভালো সময়ে সেটাকে কাজে লা’গানোর জন্য সন্তানকে উৎসাহিত করুন নিয়মিত আপনার সন্তানকে প্রতিদিনই জা’নিয়ে দিন তাকে আপনি কত ভালোবাসেন।

৬) প্রতিটি ‘এক্সপার্ট’ মানুষই একসময়ে আনাড়ি ছিলো। এই কথাটি আপনার সন্তানকে প্রতিদিনই বুঝিয়ে বলুন। এতে সে যে কোনো কাজে সাহস পাবে।

৭)ব্য’র্থতা কোনো অ’পরাধ নয় এটা আপনার সন্তানকে বুঝিয়ে বলুন। আপনার সন্তান কখনো ব্য’র্থ হলে তাকে বকাঝকা না করে ব্য’র্থতা কে ভুলে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে বলুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button