একদম হালকা ওজনের মধ্যে আধুনিক ডিজাইনের শাঁখা বাঁধানোর ১২টি দুর্দান্ত কালেকশন দেখে নিন

নিজস্ব প্রতিবেদন: পুজোর মরসুম শেষ হয়ে গেলেও মানুষের মধ্যে কিন্তু উৎসবের আমেজ শেষ হয়ে যায়নি। সামনেই রয়েছে দীপাবলি এবং কালীপুজোর মতন উৎসব। তারপরেই ধীরে ধীরে শুরু হয়ে যাবে বিয়ের সিজন। বিয়ের সিজনে শাখা পলা থেকে শুরু করে অন্যান্য অনেক জিনিস কিন্তু খরিদ করার চিন্তাভাবনা করে থাকেন মানুষ। এবার যেহেতু সোনার দাম বিভিন্ন সময়ে উত্থান পতন হয়ে থাকে তাই সময় মতন প্রয়োজনীয় গয়না বা জিনিস তৈরি করে নেওয়াটাই কিন্তু ভালো।

আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সঙ্গে বেশ কিছু শাঁখা- পলা বাধানোর ডিজাইন শেয়ার করে নিতে চলেছি। আপনারা যারা এই সিজানে শাখা অথবা পলা খরিদ করতে চান তারা কিন্তু অবশ্যই আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন টি মিস করবেন না।। চলুন আর দেরি না করে দেখে নেওয়া যাক আজকের বিশেষ কিছু কালেকশন। শুধুমাত্র শাঁখা -পলা বাঁধানো নয় এছাড়াও আরো কিছু ডিজাইন আমরা দেখাবো।

দীপাবলি স্পেশাল লেটেস্ট কিছু ডিজাইন:

১) আজকের এই প্রতিবেদনের শুরুতেই আমরা আপনাদেরকে যে পলার কালেকশন টি দেখাতে চলেছি সেটা কিন্তু একটি দারুণ ফ্যান্সি পলা। এটার উপরে কিছুটা গোল আর কিছুটা ব্যকানো নকশার মতন ডিজাইন করা রয়েছে। এই পলা জোড়া আপনারা ৩৬ হাজার টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন।

২) দ্বিতীয় স্থানে আমরা আপনাদেরকে দেখাতে চলেছি একটি দারুণ শাখা বাধানোর কলেকশন। এই শাখাটির মধ্যে খুব সুন্দর চওড়া পাতের মতন কাজ করা রয়েছে এবং মুখের কাছেও রয়েছে দারুন একটা ডিজাইন। মুখ শাঁখার এরকম অসাধারণ কম্বিনেশন কিন্তু চট করে দেখা যায় না। এই কালেকশনটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের মোটামুটি খরচ করতে হবে ১ লক্ষ ৪২ হাজার টাকা।

৩) এবার যে মুখ শাখার কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটাও কিন্তু দারুণ একটা নকশার মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে। শাখার উপরের চৌকো সেপে একটা বার বসানো রয়েছে। এই শাঁখা জোড়ার দাম পড়বে ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা।

৪) এবার যে কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটা কিন্তু একটি ময়ুর মুখ শাখা। এটার মধ্যে কোন রকমের মিনাকারি কাজ করা নেই। এই শাঁখা জোড়া কিনতে গেলে আপনাদেরকে খরচ করতে হবে, মোটামুটি ৯৭ হাজার টাকা।

৫) এবার যে মুখ শাখাটি আপনারা দেখছেন সেটার গায়ে খুব সুন্দর ফুলের ডিজাইন এবং মুখের কাছেও দারুন দুটি বড় ফুলের ডিজাইন করা রয়েছে। ব্রাইডাল কালেকশন হিসেবেও আপনারা এটাকে ব্যবহার করতে পারেন খুব সহজেই। শাঁখা জোড়ার দাম পড়বে ১ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা।

৬) এবার যে কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটা হল ময়ূর প্রজাপতি শাখা। অত্যন্ত চওড়া শাখাটির মধ্যে খুব সুন্দর ভাবে ময়ূর আর প্রজাপতি দিয়ে ডিজাইন করা রয়েছে। এই ডিজাইন গুলির উপরে রয়েছে অসম্ভব সুন্দর মিনাকারি কাজ। ১ লক্ষ ৫৭ হাজার টাকার মধ্যে এই কালেকশনটা আপনারা পেয়ে যাবেন।

৭) যারা একটু ভারী ডিজাইনের মধ্যে মাছ শাখা খুঁজছেন তারা অবশ্যই এই কালেকশনটা ট্রাই করে দেখতে পারেন। শাখার সম্পূর্ণ গায়ে সরু পাতের মতন কাজ এবং মুখের কাছে একটা সুন্দর মাছের ডিজাইন করা রয়েছে।। ১ লক্ষ ০২ হাজার টাকার মধ্যে আপনারা এটা তৈরি করে নিতে পারবেন।

৮) এবার যে শাঁখা বাধানোর কালেকশনটা আপনারা দেখছেন সেটাকে সাধারণত মাছ ময়ূর শাখা বলা হয়ে থাকে। চওড়া ডিজাইনের এই শাখাটি কিন্তু পুজোপার্বণ থেকে শুরু করে ব্রাইডাল কালেকশন হিসেবেও আপনারা কিনে নিতে পারেন। দাম পড়বে মোটামুটি ৯৭ হাজার টাকা।

৯) এবার যে চওড়া শাখার কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটার উপরে বিভিন্ন ধরনের ডিজাইনের পুরোটাই পাত বসানো রয়েছে। মোটামুটি এটা তৈরি করতে গেলে আপনাদের খরচ করতে হবে ৯০ হাজার টাকা।

১০) এবার যে শাখার কালেকশনটি আপনারা দেখছেন সেটার উপর একেবারে সম্পূর্ণ পাত বসানো রয়েছে। অর্থাৎ শাখাটি সম্পূর্ণরূপে কভার করা। ১ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা এই কালেকশন টার দাম পড়বে।

১১) এবার যে কালেকশনটি আপনারা দেখতে পাচ্ছেন সেই শাখাটির উপরে সম্পূর্ণ মিনাকারি মাছের ডিজাইন। মোটামুটি এটা তৈরি করতে গেলে আপনাদের খরচ করতে হবে ৭৩ হাজার টাকা।

১২) আজকের এই প্রতিবেদনের সবশেষে আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করে নিতে চলেছে একটি প্রজাপতি শাখার কালেকশন। এই শাখাটিতে প্রজাপতি ডিজাইনের পাশাপাশি পাতের কাজও করা রয়েছে। এই শাঁখা জোড়ার দাম পড়বে ৯৩ হাজার টাকা।

আজকে আমরা যে সমস্ত ডিজাইন শেয়ার করে নিলাম আপনাদের সাথে তার মধ্যে কোনটা সবথেকে বেশি ভালো লাগলো তা প্রতিবেদনের কমেন্ট বক্সের মাধ্যমে আমাদের স্ক্রীনশট করে জানাতে পারেন। নিকটবর্তী যে কোন গহনার দোকানে আপনারা এই কালেকশনগুলি তৈরি করে নিতে পারেন অথবা চলে যেতে পারেন পি সি চন্দ্র জুয়েলার্সে। নিচে দোকানের ঠিকানা উল্লেখ করে দেওয়া হল।

P C CHANDRA JEWELLERS(HABRA BRANCH)
158/4/1,jessore road, Habra.
North 24 parganas,W.B
Pin : 743263
Contact : 9732166776.

Back to top button