শাড়ি পরেই ৬২ বছর বয়সে কেরালার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয় বৃদ্ধার! অবাক সকলেই!

নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়া বর্তমান সময়ে আমাদের জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে গিয়েছে। এই নেট মাধ্যমের সাহায্যে আমরা অবসর মুহূর্তগুলি খুব সুন্দর ভাবে কাটাতে পারি। নাচ গান থেকে শুরু করে আবৃত্তি প্রায় সবকিছুই এই সোশ্যাল মিডিয়াতে আমরা দেখতে পাই। আট থেকে আশি বর্তমানে সকলেই নেট মাধ্যমের বাসিন্দা হয়ে গিয়েছেন। সারাদিনের কাজের ব্যস্ততার মাঝে হোক কিংবা অবসরে সব সময়েই সোশ্যাল মিডিয়া
মানুষের জীবনের একটি অঙ্গ।

অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় আর্থিক দুর্বলতা এবং অন্যান্য সমস্যা থাকার কারণে নিজের প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে পারেন না মানুষ।তবে এই নেট মাধ্যম সেইসব মানুষদের কে সুযোগ এনে দিয়েছে। খুব সহজেই এই নেট মাধ্যমের সাহায্যে নিজেদেরকে তুলে ধরতে পারছেন অনেক মানুষ।সাধারণত একটি ভিডিও বা ফটো কতটা ভাইরাল হয়েছে তা নির্ভর করা হয় লাইক এবং কমেন্ট সংখ্যার উপর ভিত্তি করে।

সম্প্রতি এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা এক বৃদ্ধার কথা জানতে পারছি যিনি 62 বছর বয়সে শৃঙ্গ জয় করে সবাইকে অবাক করে দিয়েছেন।গত 16 ই ফেব্রুয়ারি কেরালার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয় করে সকলের নজর কেড়ে নিয়েছেন এই বৃদ্ধা।কোনও স্যুট,প্যান্ট বা সালোয়ার নয় বরং ঐতিহ্যবাহী শাড়ি পরেই তা জয় করেন তিনি। আর এই ব্যাপারটিই নেটিজেনদের বিশেষভাবে নজর কেড়েছে। সম্প্রতি দিন কয়েক আগে @hiking_._ নামের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল থেকে ভাইরাল ভিডিওর মাধ্যমে আমরা এই বৃদ্ধার কথা জানতে পারছি।

কেরালার তিরুবনন্তপুরমের Agastya koodam হল Sahyadri mountain range এর সর্বোচ্চ এবং সবচেয়ে কঠিন শৃঙ্গগুলির মধ্যে অন্যতম একটি। কিন্তু সমস্ত রকমের বাধা অতিক্রম করে 62 বছর বয়সে এই শৃঙ্গ জয় করে নজির সৃষ্টি করেছেন Nagaratnamma নামের সেই বৃদ্ধা।তাঁর সঙ্গে ছিল ছেলে এবং ছেলের বন্ধুরা।

এটিই ছিল Nagaratnamma এর প্রথম ট্রেকিং। এই বয়সে তাঁর সাহস ও মনের জোর দেখে সকলেই হতবাক। ভাইরাল ভিডিও তে আমরা তাকে সাহসের সঙ্গে শাড়ি পড়েই পাহাড়ে উঠতে দেখতে পারছি।সমস্ত প্রতিবন্ধকতাকে দূর করে সফলভাবে কেরালার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয় করেন তিনি। মহিলারা চাইলেই যে অসাধ্য সাধন করতে পারেন সেটাই চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন সেই বৃদ্ধা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিওটি ভাইরাল হতে না হতেই সকলেই ঐ বৃদ্ধার ইচ্ছাশক্তিকে কুর্নিশ জানিয়েছেন। কারণ এই বয়সে যেখানে অনেক মানুষ ঠিকমতো হাঁটাচলা করতে পারেন না সেখানে এইভাবে পাহাড়ে উঠে শৃঙ্গ জয় করা তো রীতিমতো অসাধ্য ব্যাপার।

ইনস্টাগ্রামে ভাইরাল ভিডিওটি আপলোড হওয়ার পরেই ঝড়ের গতিতে তা বহু মানুষ শেয়ার করেছেন এবং উপভোগ করেছেন। যদি আপনাদের এই প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকে সেক্ষেত্রে অবশ্যই হাতে কিছুটা সময় নিয়ে বৃদ্ধার এই ভাইরাল ভিডিওটি দেখে নিতে ভুলবেন না। নিঃসন্দেহে এই ভিডিওটি আপনাদের ভালো লাগবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button