1. admin@bartamannews.com : admin :
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৫:১৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
গোগনগর কয়লাঘাট হাট নয় যেনো মরন ফাঁদ গ্যাস বন্ধের প্রতিবাদে তিতাস গ্যাস অফিস সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করে জালকুড়ি এলাকাবাসী জেল-জরিমানা দিয়ে পরিবেশ রক্ষা করা যাবে না: না.গঞ্জ জেলা প্রশাসক উচ্চ আদালতে জামিন হওয়ায় গিয়াসউদ্দিনের রিমান্ড শুনানী স্থগিত ভাড়া হবে লিফলেট দেখলে উঠে যান বাসায়, সখ্যতা গড়ে হাতিয়ে নেন স্বর্ণালঙ্কার বেনজীর আহমেদ প্রসঙ্গে র‍্যাব মহাপরিচালক ব্যক্তির সঙ্গে র‍্যাবের ভাবমূর্তি নষ্টের সম্পর্ক নেই ফরিদপুর ডায়াবেটিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউ ওয়ার্ডের উদ্বো সংসদে প্রধানমন্ত্রী মালয়েশিয়ায় শ্রমিক জটিলতায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা ধর্মমন্ত্রীর বেহাত আইফোন মালয়েশিয়া থেকে উদ্ধার চোর চক্রের ৯ সদস্য গ্রেপ্তার তিনি আইনজীবী নন, টাউট

বক্তাবলীর বুড়িগঙ্গা নদী থেকে অবৈধ ভাবে মাটি কেটে ইটভাটায় বিক্রি করছে খবির, দীল মোহাম্মদ ও মেসি বাহিনী

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১৫ মে, ২০২৪
  • ৩৯ বার পঠিত

বর্তমান নিউজ ডটকমঃ

# বক্তাবলী ফাড়ি ও ফতুল্লা থানাকে মেনেজ করেই অবৈধ ভাবে নদীতে চালিয়ে আসছে গ্রাব।

# আমি নদীতে গ্রাব চালাতে না করেছি ওরা আমরা কথা সুনে না- এম শওকত আলী

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার্ধীন চর বক্তাবলীতে বুড়িগঙ্গা নদী থেকে ৩/৪টি গ্রাবের মাধ্যমে মাটি কেটে ইটভাটায় বিক্রি করে দিচ্ছে খবির হোসেন, দিল মোহাম্মদ ও মেসি বাহিনী। ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক ও বক্তাবলী ইউনয়িনের চেয়ারম্যান এম শওকত আলীর নাম ব্যবহার করে দীর্ঘদিন যাবত সরকারের অনুমতি না নিয়ে বুড়িগঙ্গা নদী হতে মাটি উঠিয়ে ইট ভাটায় বিক্রি করছে সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের খালু শশুর রাজা মিয়ার বিয়াই হাজ্বী সলিমের ছোট ভাই মাটি খেকো খবির হোসেন, একাধিক মামলার আসামী দেলোয়ার হোসেন মেসি, দীল মোহাম্মদ চেয়ারম্যানকে বৃদ্ধা গুলি দেখিয়ে দীর্গদিন যাবত চালিয়ে আসছে গ্রাব গুলোকে।

এলাকাবাসীর সূত্রে জানাযায়, বক্তাবলীতে নানা অপর্কমের মূলহোতা যাদের নামে রয়েছে একার্ধীক অভিযোগ। গত (৬ মার্চ) বুধবার দুপুরে ফতুল্লা মডেল থানার পুলিশ খবর পেয়ে বিআইডব্লিউটিএর অনুমতি না নিয়ে বুড়িগঙ্গা নদী হতে গ্রাবের মাধ্যমে নদী হতে মাটি কাটারত অবস্থায় কয়েকজনকে আটক করে এবং টাকার বিনিময় তাদের ছেড়ে দেওয়ার অভিয়োগ রয়েছে। নদীর পারের স্থাপনা গুলোর কথা চিন্তা না করেই দিন ও রাত মাটি কেটে বিক্রি করছে তারা তাতে অদুর ভবিষ্যতে নদীতে পারের স্থাপনা গুলু বিলীন হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন এলাকাবাসী।

এলাকাবাসীর সূত্রে আরো জানাযায়, বক্তাবলী নৌ পুলিশ ফাড়ি ও ফতুল্লা থানা পুলিশকে মেনেজ করেই তারা নদীতে গ্রাব চালিয়ে আসছে। যা সবটাই নিয়ন্ত্রন করেন দেলোয়ার হোসেন মেসি যিনি ফাড়ির ও থানা পুলিশের টাকা প্রতি মাসে ও সপ্তাহে গিয়ে তাদের কাছে দিয়ে আসেন। নদী থেকে মাটি তুলে প্রতি টলার মাটি সবনিম্ম ৫ হাজার থেকে ৮ হাজার টাকা প্রযন্টত বিক্রি করে থাকে। প্রতিদিন ৩/৪ টি গ্রাব দিয়ে ৪০/৫০টি টলার এর বেশি মাটি বিক্রি করে আসছে খবির ও মেসি বাহিনী যাদের থামানোর কেউ নেই।

ব্যবসায়ী সলিম হাজ্বীর ছোট ভাই আওয়ামী লীগ নামধারী নেতা খবির হোসেন, একাধিক মামলার আসামি দেলোয়ার হোসেন মেসি ও দীল মোহাম্মদ বুড়িগঙ্গা নদী হতে গ্রাব এর মাধ্যমে নদী হতে মাটি কাটা এলাকাবাসী অতি দ্রুত নদী হতে মাটিকাটা বন্ধ করতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

এ ব্যাপারে খবির হোসেন ও দেলোয়ার হোসেন মেসি বলেন, আপনারা চেয়ারম্যান সাহেবকে কেনো জানালেন। সে এটার বিষয়ে কিছু জানে না। আমরা এখানে গ্রাব চালাই সেটা আমাদের গ্রামের লোকরা মিলে করি। নদীতে গ্রাব চলে ও আমাদের খালে একটি চলে। এবং আমরাদের সাথে বেশ কয়েকজন বিশেষ পেসার লোকরা আছে যাদের আমরা সম্মানি করে থাকি।

এবিষয়ে ফতুল্লা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও বক্তাবলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম শওকত আলী বলেন, তারা যে গ্রাব গুলোকে চালাচ্ছে আমি তাদের না করেছি। তারা আমরা কথা সুনের না। আমি পুলিশ প্রশাসনকে বলবো যারা অপরাদের সাথে জরিত তাদের বিরুদ্ধে যাতে তারা ব্যবস্থা গ্রহন করেন।

Facebook Comments Box
এই জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৪ বর্তমান নিউজ
Theme Customized By Shakil IT Park