রাতে ভাত না খেয়ে যদি রুটি খান তাহলে, আপনার জন্য এটি, পড়ুন, ভুলেও এড়িয়ে যাবেন না!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা ভাতের থেকে রুটি কে বেশি পছন্দ করেন । রাত্রে বেলায় অনেকেই ভাত পছন্দ করেন ঠিক কথাই কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রে অর্থাৎ উত্তর প্রদেশ পাঞ্জাব হরিয়ানা দিল্লি ইত্যাদি জায়গার মানুষেরা রাত্রে রুটি খেতে বেশি পছন্দ করেন । শুধুমাত্র রাতে নয় পাশাপাশি রুটিকে তারা বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকেন এবং খাদ্যতালিকায় ভাতের পর জনপ্রিয় খাবার হচ্ছে রুটি । রুটির মধ্যে থাকে প্রচুর পরিমাণে উপাদান যা শরীরে যাবতীয় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে এবং অন্যান্য অঙ্গ প্রত্যঙ্গ সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে ।

এমনকি হার্ট সুস্থ রাখতে রুটির অবদান অনেক খানি। রাতে মাংস কষা রুটি বা তরকা রুটি হয়ে গেলে জমে যাবে পুরো । এই জন্যই হয়তো অনেকে খেতে পছন্দ করেন । কিন্তু রুটি খাবার আগে অবশ্যই আপনাদেরকে এই তথ্যগুলো জেনে রাখা দরকার ।রুটির উপকারিতা এবং অপকারিতা দুটোই রয়েছে ।তবে সেই সমস্ত তথ্য গুলি না জানলে হয়তো পরবর্তী ক্ষেত্রে আপনি বিপাকে পড়তে পারেন ।

কারন আপনার শরীর অনুযায়ী রাতের বেলায় কি খাওয়া উচিত তা জানা যাবে আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে । রাত্রে কেন রুটি খাবেন তার বিশেষ কয়েকটি কারণ রয়েছে। যেমন এইতে অর্থাৎ রুটিতে ক্যালরি পরিমাণ খুব কম থাকে । যার ফলে ওজন বৃদ্ধি হয় না । যারা নিজের ওজন বৃদ্ধি করতে চায় না তারা অবশ্যই রাত্রে বেলায় রুটি খেতে পারেন।

সুগারের মাত্রা :-রুটিতে গ্লাইসেমিক ইন্ডেক্স নামক উপাদান কম থাকায় র-ক্তে সুগারের মাত্রা ঠিক থাকে যা ডা-ইবে-টিস রুগিদের ক্ষেত্রে ভীষন উপকারের। তাই ডা-য়বেটিস রু-গি-দের ক্ষেত্রে রাতের মেনুতে রুটি অবশ্যই খাওয়া উচিৎ। ভিটামিন ও খনিজ শরীর গঠনে যে সকল ভিটামিন ও খনিজের দরকার হয় তা সবই থাকে রুটিতে, তাই রুটি খেলে সেগুলো আমাদের শরীরে খুব সহজেই প্রবেশ করতে পারে।

এর পাশাপাশি রুটির মধ্যে ফ্যাটের পরিমাণ খুব কম থাকে । যার ফলে শরীরের মধ্যে চর্বি জমে না । কিন্তু অন্য দিকে দেখতে গেলে ভাতে কিন্তু প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট থাকে । যারা মোটা হতে চায় তারা ভাত খেতে পারেন । কিন্তু যারা মোটা না হতে চান বা শরীরকে একমাত্রই রাখতে চান তাহলে অবশ্যই তারা রাত্রে রুটি খেতে পারেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button