স্পি’ডে আসছে ট্রেন, গেট পড়লেও রেললাইনে চেয়ার নিয়ে বসে ট্রেন থামাতে গিয়ে ঘটলো বি-প’ত্তি, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা বর্তমান যুগে এতোখানি উন্নত করতে পেরেছি যে অসম্ভবকে সম্ভব এর পথে নিয়ে যেতে পারছি । এর প্রমাণ আমরা বহুবার পেয়েছি সোশ্যাল মিডিয়ার পর্দাতে । তার পাশাপাশি এই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা এমন কিছু ধরনের জিনিসপত্র সম্পর্কে অবগত থাকতে পারি যা হয়তো সত্যিই জানা বা সাক্ষী থাকা রীতিমত ভাগ্যের ব্যাপার হয়ে ওঠে । প্রযুক্তি কে আমরা প্রতিনিয়ত নানান কাজে ব্যবহার করে থাকি । কখনো ভাল কাজ কখনো আবার খারাপ কাজ এ । কিন্তু শিক্ষিত মানুষের কাছে প্রযুক্তিকে ভালো কাজের জন্য ব্যবহার করবে এমনটা করা যেতে পারে।

বেশ কিছুদিন আগে আমরা দেখেছিলাম ট্রে-ন লা-ইনের উ-পর একটি সা-প শু-য়ে র-য়েছে । সে সা-পের আকৃতি নেহাতই ছোট নয় । যার ফলে ট্রেনলাইন টি বারবার তাকে সরানোর জন্য হর্ন দিচ্ছিল । কিন্তু কোন রকম ভাবে সেই সা-পটি রেল লাইন থেকে সরে যাচ্ছিল না । যার ফলে বাধ্য হয়ে সেই ট্রেনকে দাঁড়িয়ে যেতে হয়েছিল । এ রকম একটি ঘটনা দেখা গেছে । কিন্তু পরবর্তী ক্ষেত্রে জানা যায় সেটি সম্পূর্ণ গ্রাফিক্স এর মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছিল । তবে এর থেকে আরও ভ-য়ঙ্কর একটি ভিডিও সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে।

আমরা এর আগে দেখেছি যে রেললাইনের উপর বিভিন্ন ধরনের কারুকার্য বা কায়দা দেখাতে গিয়ে অনেকের প্রাণ চলে গেছে । কেউ চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছে কেউ আবার চলন্ত ট্রেনের সামনে সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছে ।তবে এই ব্যক্তি রীতিমতো ট্রেন থামিয়ে দিয়েছে শুধুমাত্র হাতের ইশারায় । বিশ্বাস না হলে ঘটনাটা বাস্তবতা রয়েছে । ভিডিও দেখা যায় এবং অপর দিক থেকে দুরন্ত এক্সপ্রেস ট্রেন কিন্তু তাতে তার কোনো তোয়াক্কা নেই।

ভিডিও দেখা যাচ্ছে যে লাল চেয়ারে বসে থাকা ঐ ব্যক্তি হাতের ইশারা তে ট্রেনের গতিবেগ কমিয়ে দিতে পারছে । এবং ট্রেন তার নিজস্ব গতি অনেকখানি কমিয়ে দেয় । পরবর্তী ক্ষেত্রে ওই ব্যক্তি চেয়ার থেকে উঠে যায় এবং চেয়ারটিতে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যায় । তারপর আবার সে ট্রেনটিকে হাতের সাহায্যে চলে যাওয়ার জন্য ইশারা করে দেয় । যার ফলে ট্রেনটি আবার চলে যেতে শুরু করে ।এই ঘটনা দেখে রীতিমত অ-বাক সকলে । কিন্তু পরবর্তী ক্ষেত্রে জানা যায় যে এটি সম্পূর্ণ অ্যানিমেশন এবং গ্রাফিক্স এর খেলা । প্রযুক্তিকে এমন ভাবে ব্যবহার করা যায় তা এর প্রথম উদাহরণ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button