“পাঁচ টাকার ম্যাগী খেয়ে আমি আর মা থাকতাম”,- নিজের ক’ষ্টের কথা বলতে বলতে চোখে জল চলে এলো শুভশ্রীর, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- পরান জায় জুলিয়া রে , চ্যালেঞ্জ ইত্যাদি সিনেমার মাধ্যমে অভিনয় জগতে পদার্পণ ঘটে এবং এই বাংলার মানুষদের কে দিতে থাকে একের পর এক জনপ্রিয় দু-র্ধর্ষ হিট কিছু ছবি । এই ছবিতে অভিনয় করার সাথে সাথে নিজের জনপ্রিয়তা লাভ করতে শুরু করেন তিনি । ইতিমধ্যে আপনারা প্রত্যেকে আন্দাজ করতে পেরেছেন কার কথা বলতে চলেছি । ঠিকই ধরেছেন আমি এই মুহূর্তে শুভশ্রী গাঙ্গুলী কথা বলতে চলেছি । বর্তমান সময়ে এই বাংলার অভিনয় জগতে একজন সুপারস্টার।

শুভশ্রীর পরিবার ছিল বনেদি পরিবারের । তাই একাধিক নিয়ম জারি করা থাকত বাড়ির মেয়েদের প্রতি । ক-ড়া শা-সন এবং নজরদারিতে রাখা হতো তার বাড়ির মানুষজনদের কে । কিন্তু সেই নিয়মের বে-ড়াজা-ল ট-পকে শুভশ্রী গাঙ্গুলী পাড়ি দিয়েছিল কলকাতায় নিজের স্বপ্ন পূরণের জন্য । তার সাথে তাকে সাহায্য করেছিল তার মা শুভশ্রী । ছোটবেলা থেকেই ইচ্ছে ছিল একজন অভিনেত্রী হবে এবং ধীরে ধীরে তার সেই স্বপ্নকে পূরণ করার জন্য যা যা করণীয় প্রত্যেক কিছু করত অভিনেত্রী । শুধুমাত্র তার মা তাকে সমর্থন করে গেছেন আজীবন ।এবার সেই কথা বলতে গিয়ে আ-বেগে ভে-সে গে-লেন অভিনেত্রী।

সম্প্রতি অভিনয় জগতের পাশাপাশি ডান্স বাংলা ডান্স নামক রিয়েলিটি শোয়ের বিচারকের আসনে দেখা যাচ্ছে শুভশ্রী গাঙ্গুলী কে । রয়েছে অভিনেতা জিৎ এবং বলিউড অভিনেতা গোবিন্দ । প্রতিযোগির নাচ দেখে ম-ন্ত্রমুগ্ধ তিনি । কারণ একসময় তিনি নাচতে অত্যন্ত পছন্দ করতেন । কিন্তু অভিনয় জগতে চা-প এবং সংসারের চাপে এখন তেমন ভাবে নাচ করা হয় না । তাই তাদের নাচ দেখে রীতিমতো নিজের পুরনো দিনের কথা মনে পড়ে গেল অভিনেত্রীর । এবং সেই কথা তুলতে গিয়ে আ-বেগপ্র-বণ হয়ে পড়লেন তিনি।

নিজের মনের ক-ষ্টকে লু-কিয়ে রেখে হাসিখুশি থাকতে পছন্দ করেন বাংলার এই অভিনেত্রী । কিন্তু সেদিন আর তারা হলো না । সবার সামনে তুলে ধরলেন জীবনের চরম পর্যায়ের এক মুহূর্তের কথা । তিনি বললেন যে অভিনয় জগতে আসার জন্য তাকে যথেষ্ট প-রিশ্রম করতে হয়েছে । কখনও কখনও এমনও দিন গেছে যে ৫ টাকার একটি ম্যাগীর প্যাকেট খেয়ে দি-ন কা-টিয়েছেন তিনি ও তার মা । এতটাই কঠিন অবস্থার মধ্যে দিয়ে তাকে বেরোতে হয়েছে । সেই ঘটনা হয়তো অনেকের অজানা । ইতিমধ্যে তার সেই ঘটনা রীতিমতো আ-বেগপ্র-বণ হয়ে পড়েছে তার অনুরাগীরা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button