একসাথে ৫০ টা ফুচকা খেতে খেতে হঠাৎ লাইভে আসলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- মাঝেমধ্যেই এখন অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিককে দেখা যায় স্মৃতি রোমন্থন করতে । তার পাশাপাশি তার অনুরাগীদের সাথে সময় কাটাতে । কারণ এর আগে এমন বেশ কয়েকটি ভিডিও তিনি প্রকাশ করেছেন যেখানে তিনি তার অনুরাগীদের প্রশ্নের উত্তর দিয়েছিলেন বিস্তারিতভাবে । যাবতীয় যা যা প্রশ্ন থাকে অনুরাগীদের মনে সব প্রশ্নের উত্তর দিয়েছিলেন তিনি সেই ভিডিও গু-লি মাধ্যমে । তবে সম্প্রতি তিনি একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী তবে এর ভিডিও বেশিরভাগ জুড়ে তাকে দেখা গেছে পুরনো দিনের রঙিন দিনগুলো কে মনে করতে এ ।কদমই ঠিক শুনেছেন । কিন্তু কি এমন ঘটেছিল সেদিন যার জন্য পুনরায় মনে করতে হলো।

তার বাবা রঞ্জিত মল্লিক বহুদিন ধরে অভিনয় জগতের সাথে যুক্ত রয়েছে । তাই ছোটবেলা থেকে অভিনয় জগতে আসা খুব একটা অসুবিধা হয়নি তার পক্ষে । কিন্তু এমনটা ভাবলে খুব ভুল হবে যে তিনি বাবার মান বা খ্যাতির জন্য নিজের জনপ্রিয়তা লাভ করতে পেরেছেন । একদমই তাই নয় তিনি নিজের অভিনয় দক্ষতা দিয়ে জয় করেছে দর্শকদের মন । মূলত নাটের গুরু সিনেমার মাধ্যমে তার অভিনয় জগতে পদার্পণ ঘটে । যার বিপরীতে অভিনয় করেছিল অভিনেতা জিত ।তার পাশাপাশি সাত পাকে বাঁধা, বন্ধন, মন মানে না, প্রেমের কাহিনী সহ একাধিক ছবিতে অভিনয় করেন অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক।

২১০৩ সালের জীবনসঙ্গী হিসেবে তিনি বেছে নেন পরিচালক নিসপাল সিং কে । তারপ্র চুটিয়ে সংসার করা এবং অভিনয় জগৎ থেকে বিদায় নেন । গত বছর জন্ম দিয়েছিলেন ছোট্ট একটি পুত্র সন্তানের । এখন তাকে নিয়ে ব্যস্ত থাকেন । তবে অনুরাগীদের প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে স্মৃতি রোমন্থন করে ফেললেন অভিনেত্রী । কোনো এক অনুরাগী তাকে প্রশ্ন করেছিলেন যে আপনি ফুচকা খেতে ভালোবাসেন । তার উত্তর দিতে গিয়ে অভিনেত্রী বলেন যে আমি ফুচকা খেতে বরাবরই ভালোবাসি ।তবে একবার কাদতে কাদতে আমি পঞ্চাশটা ফুচকা খেয়ে নিয়েছিলাম ।

ছোটবেলা থেকে অভিনেত্রীতে দাদা দিদি ভাই বোনের সাথে ঠাকুর দেখতে যেত । কারণ তার বাড়ির সামনে ছিল নিদান পার্ক । কিন্তু একবার তিনি দেখেন যে তার দাদা-দিদিরা তাকে ছেড়ে ঠাকুর দেখতে বেরিয়ে গেছে । যার ফলে তু-মুল কা-ন্না জু-ড়েছে গোটা বাড়ি জুড়ে । সেই কান্না থামানোর জন্য তার মেজ জেঠু তাকে কোলে করে নিয়ে যায় নিদান পার্কে । এবং সেখানে গিয়ে তাকে ফুচকা খাওয়ার জন্য বলে । সেই সূত্রে রে-গে রেগে তিনি পঞ্চাশটার মত ফুচকা খেয়ে নিয়েছিলেন ।২৫ টা ফুচকা খাওয়ার পর তাকে জিজ্ঞেস করেছিলেন যে আর খাবে কিনা । তখন তিনি বলেছিলেন তিনি আরো খাবে ।ন যদিও পরে বিষয়টি বুঝতে পেরে লজ্জিত ছিলেন তিনি ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button