বিয়ে করতে চলেছেন ‘মিঠাই’ ধারাবাহিকের নায়ক সিদ্ধার্থ! কিন্তু পাত্রী কে? জানুন বিস্তারিত!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- জীবনের সব বন্ধনে থেকে শক্ত একটি বন্ধন হলো বিয়ের বন্ধন । যে বন্ধন কে এই পৃথিবীর কোন মানুষ অস্বীকার করতে পারে না । হয়তো তার থেকে বিরত থাকতে পারে কিন্তু অস্বীকার করার কোন জায়গা নেই । এবং আমাদের আশেপাশে হয়তো এমন অনেক মানুষ রয়েছে যাদের কে সরাসরিভাবে বলতে দেখবেন যে তারা বিয়েতে বিশ্বাস করে না । কিন্তু পরবর্তী ক্ষেত্রে তারাই হবে জাঁকজমকপূর্ণ হবে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন । ঠিক তেমনই কিছু একটা ঘটনা ঘটতে চলেছে মিঠাই ধারাবাহিকের উচ্ছে বাবুর সাথে অর্থাৎ আদৃত রায়ের সাথে ।

মিঠাই ধারাবাহিকটি যেদিন থেকে শুরু হয়েছিল সেদিন থেকেই টিআরপির নিরিখে একদম শীর্ষে অবস্থান করছিল । তার পাশাপাশি খুব অল্প সময় জানিয়েছিলেন দর্শকদের মন । এমনকি বহু পুরনো জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলি কে পিছনে ফেলে জনপ্রিয়তার নিরিখে ক্রমশ এগিয়ে চলেছে এই ধারাবাহিকটি । তবে এই মুহূর্তে ধারাবাহিকে নতুন গল্পের এসেছে সে কথা দর্শকরা জানেন । অর্থাৎ সিদ্ধার্থ সাথে ডিভোর্স হয়ে যাওয়ার পর ফুলশয্যার ঘটনাটি নতুনভাবে গল্পের নিয়ে এসেছে মোর । তাই পুনরায় বেড়েই চলেছে তার দর্শক সংখ্যা ।

কিন্তু টলি পাড়াতে বেশ কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল যে উচ্ছে বাবু অর্থাৎ সিদ্ধার্ত বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হতে চলেছেন । যদিও এ বিষয়ে তিনি সরাসরি জানিয়েছিলেন যে এই বন্ধন তিনি বিশ্বাস করেন না । বোকা বানানোর রীতি ছাড়া কিছুই নয় এটা কিন্তু এবার সেই মানুষ আগামী নভেম্বর মাসে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছে এমনই জানা যাচ্ছে সূত্র মারফত। । তিনি জোর গলায় বলতে পারেন, “আমি একসাথে অনেক বছর থেকেও কোন বন্ধনে আবদ্ধ হব না আমি জানি। এই সমস্ত বিয়ের বন্ধন বলে কিছুই হয়না। এটা শুধুমাত্র বানানো একটা রীতি মাত্র।”

সূত্র অনুসারে জানা যাচ্ছে যে এই আদৃত অর্থাৎ মিঠাইয়ের সিদ্ধার্ত গত এক বছর ধরে সুপ্রিয় সাথে প্রেমে লিপ্ত রয়েছে এবং আগামী নভেম্বর মাসে তারা বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছে । তার শশুর মশাই মুম্বাই এর একজন খ্যাতনামা পরিচালক । আপাতত এই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে গোটা সাইবার দুনিয়াতে ।তবে তাদের এই বিবাহের কথা প্রকাশ্যে উঠে আসার পর অনেক মেয়ের মন ভেঙেছে একথা নিঃসন্দেহে বলা যেতেই পারে । কারণ চুপিচুপি সিদ্ধার্থকে ভালোবেসে ফেলেছে ছিলেন এই ধারাবাহিকের অনেক তরুণ যুবতী দর্শকরা ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button