ভালোবাসার মানুষকে সারাজীবনের কাছে পেয়ে অঝোরে কাঁদলেন নববধূ, প্রেমের এই সুন্দর পরিণয়ের ভিডিও দেখে আবেগে ভাসলেন সকলে!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ভালোবাসা এখনকার যুগে খুব সস্তা হয়ে গেছে । যে কেউ যে কাউকে ভালবাসতে পারে । কিন্তু সেই ভালোবাসাকে পূর্ণতা দিতে পারে ক’জন ? অর্থাৎ বিয়ে করতে পারে কয়জন ,? ভালোবাসা মানে এমন তো নয় যে কয়েক বছর একসাথে ঘনিষ্ঠভাবে থাকলাম তারপর মা-বাবার দেখা কোন একটি পাত্রকে বিয়ে করে নিলাম বা পাত্রীকে বিয়ে করলাম । যদি এমনটা হয় তাহলে ভালোবাসা থেকে দূরে থাকা দরকার সেই সমস্ত মানসিকতাসম্পন্ন মানুষদেরকে । ভবিষ্যতে কি হবে তা ভেবে লাভ নেই ।

কিন্তু দুজনের পক্ষে চেষ্টা করা উচিত যে সেই ভালোবাসা যেন পূর্ণতা পায় । আর যখন সত্যি সত্যি সে ভালোবাসা পূর্ণতা পায় তখন বোধহয় এই রকম ঘটনা ঘটে খুব স্বাভাবিক। বিয়ে মানে নিজের সাথে সাথে আরও একটা মানুষের দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নেওয়া । একটা পরিবার থেকে বেড়ে দুটো পরিবার হয়ে যায় । তার পাশাপাশি বিয়ে মানে সারা জীবন এমন একজনকে সাথে নিয়ে চলা যাকে আপনি এতদিন ধরে যাকে ভালোবেসে এসেছেন তাকে কাছে পাবার গল্প । কাজেই সেই মুহূর্ত আনন্দের হবে সে কথা নতুন করে বলার অপেক্ষা রাখে না । কিন্তু ধরুন যদি দীর্ঘদিনের সম্পর্ক পরিনতিতে বিয়েতে তাহলে মুহূর্ত টা কেমন হবে।

বিয়ে বাড়ি মানে হাসি মজা রা-গ-অ-ভিমান আড্ডা হই হ’ল্লা সবকিছু । বছরের বাকি সমস্ত দিনগুলো ভুলে আনন্দে মেতে ওঠে প্রত্যেকে । তার পাশাপাশি কিছুটা হলেও আ-বেগপ্র-বণ হয়ে পড়ে আমরা । কারণ যে বাড়িতে এতদিন ধরে মেয়েরা থেকেছে বিয়ের পর সেই বাড়ি ছেড়ে যাদেরকে চলে যেতে হয় অন্য একটি বাড়িতে । কাজেই দুঃ-খ এবং অ-ভিমান হবেন এমন টা খুব স্বাভাবিক । কিন্তু যদি পছন্দের মানুষের সাথে বিয়ে হয় অর্থাৎ যার সাথে এতদিন ভালোবেসেছে তাকে যদি বিয়ে করে তাহলে বলে কিছুটা হলেও শান্তি পাবে মনের মধ্যে । যেমনটা দেখা গেল এই ভিডিওতে।

এই ভিডিওটা বাকি সকল ভিডিওতে কিছুটা হলেও আলাদা। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে পরিবারের আরো বাকি সবাই উপস্থিত রয়েছে যেমনটা থাকে প্রতিটা বিয়েবাড়িতে । মালাবদলের সময় কিন্তু দীর্ঘদিনের ভালোবাসার পরিণতি পাবার জন্য নিজের চোখের জলকে ধরে রাখতে পারেনি নতুন বউ । কেঁ-দে ফে-লেছে সে । তাকে সামাল দিতে আসে তার স্বামী । যার ফলে সেও আ-বেগপ্র-বণ হয়ে পড়ে এবং চোখ ভিজে যায় তার । শুধুমাত্র তারা নয় এই ভিডিওটি দেখে নেটিজেনরা আ-বেগ ধরে রাখতে পারেনি । সত্যিইতো এমনটা হওয়া খুবই স্বাভাবিক । ইতিমধ্যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে নেট মাধ্যমে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button