বাড়িতে বাসন মাজছেন শুভশ্রী, রাজ চক্রবর্তী ঘুরিয়ে দেখালেন তার নিজের বাড়ি, তু-মু’ল ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- সদ্য বিধায়ক পদ হিসেবে নির্বাচিত হওয়া রাজ চক্রবর্তী ঘুরিয়ে দেখালেন তার বাড়ির ভিতরের অন্দরমহল ।এবং তাঁরা নিজেদের মধ্যে বাড়ির সমস্ত কাজকে ভাগাভাগি করে নিয়েছে । কারণ যে মুহূর্তে ল-কডা-উন চলছে সেই সময় বাইরে কাউকে বাড়ির ভিতর প্রবেশ না করানোই ভালো ।তাই বাড়ির সমস্ত কাজের মানুষদেরকে আপাতত ছুটি দিয়েছেন তারা ।কিন্তু বাড়ির সমস্ত যে সমস্ত যাবতীয় কাজ গুলো থেকে থাকে সেগু-লির সবাই নিজেদের মধ্যে ভাগাভাগি করে করে নিচ্ছেন ।শুভশ্রীর ভেজে কি পড়লো? জানেন কি ? না জানেন জানাবো আজকের এই প্রতিবেদনে,

বর্ধমানের প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে নিয়ে স্বপ্ন পূরণের জন্য পাড়ি দেয় কলকাতাতে শুভশ্রী । চলে ল-ড়াই-সং-গ্রাম । অবশেষে ‘পরান যায় জলিয়া রে’ ছবির মাধ্যমে তিনি নিজেকে আ-ত্মপ্রকাশ করেন । এবং তারপর একের পর এক দুর্দান্ত হি-ট ছবিতে অভিনয় করে রীতিমতো জনপ্রিয়তার তুঙ্গে পৌঁছে যায় অভিনেত্রী । মাঝেমধ্যে বর্ধমানের বাড়িতে দেখা যায় তাকে । কিন্তু বেশিরভাগ সময় তিনি কলকাতায় থাকেন।

সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে যে বাড়ির সমস্ত কাজের লোকদের ছুটি দিয়ে দিয়েছে রাজ চক্রবর্তী । এবং বাড়ির সকলের মধ্যে কাজ ভাগ করে দিয়েছেন তিনি অর্থাৎ প্রত্যেকেই নির্দিষ্ট কাজ রয়েছে এবং তারা প্রত্যেকে তাদের কাজের প্রতি দায়িত্বশীল রয়েছে । তেমনি চিত্র ফুটে উঠেছে সেই ভিডিওতে। কিন্তু হঠাৎ কেন এরকম ধরনের সিদ্ধান্ত নিলেন জানাবো আপনাদের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে। আসলে ব্যাপারটা একটু অন্যরকম এই ভিডিওটি সেই সময়কার ভিডিও যখন দেশে ম-হামা-রী প্র-কোপ ব্যা-পক পরিমাণে চলছে ।

দেশজুড়ে চলছে লকডাউন । প্রত্যেককে অনুরোধ করা হচ্ছিল তারা যেন বাড়ির মধ্যে হোম আ-ইসো-লেশন এর থেকে থাকেন । তাই রাজ চক্রবর্তী এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে তিনি তার কাজের লোকদেরকে এই মুহূর্তে ছুটি দেবেন । যাতে তারাও হোম আ-ইসো-লেশন এ থাকতে পারে । তাই সবাই মিলে একসাথে ঘরের কাজ ভাগ করে নিয়েছিলেন । ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে শুভশ্রী রান্না করছিলেন তার মা অর্থাৎ রাজ চক্রবর্তীর মা ঘরে গোচাচ্ছিলেন ছিলেন এবং অন্য একজন বাসন মাজছিলেন । অভিনেত্রী হলেও কাজে দিক থেকে কোনরকম খামতি রাখেননি তিনি । যদিও ভিডিওটি আগের বছরের পুরনো।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button