ফেলে দেওয়া চা পাতার এই ৮ টি দুর্দান্ত গুণের কথা জানলে অবাক হবেন আপনিও! রইল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- সারাদিনের ক্লান্তি এবং অবসাদ দূর করার জন্য আমরা দিনে একাধিকবার চা কিংবা কফি গ্রহণ করে থাকি। তবে কফির তুলনায় মানসিক অবসাদ কাটিয়ে তোলার ক্ষেত্রে চায়ের জনপ্রিয়তা অনেক বেশি। রাস্তাঘাটে বাসে ট্রামে এমনকি বিমানের ব্যবস্থা রয়েছে বর্তমান সময়। চা এর মধ্যে বিশেষ এক ধরনের পদার্থ থাকে যেটা মানসিক অবসাদ কে দূর করে দেয় কিন্তু আমরা অনেক সময় চা হয়ে গেলে চায়ের পাতা বাইরে ফেলে দি ।আজকের প্রতিবেদন পড়ার পর কখনো আপনি চার পাতা বাইরে ফেলে দেবেন না।

চা তৈরি হয়ে যাওয়ার পর অবশিষ্ট চায়ের পাতা বিভিন্ন কাজে আসতে পারে আজকের প্রতিবেদন আপনাদেরকে জানাবো এমন কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ যেগুলিতে ব্যবহৃত হয় চায়ের পাতা। প্রথমে আপনাদেরকে বলে রাখি যদি আপনি দুধ চা করে থাকেন তাহলে প্রথমে চায়ের পাতা কে ভালো পরিষ্কার জল দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে এবং যদি আপনি লিকার চা করে থাকেন তাহলে কিন্তু জল দিয়ে দেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই ।এরপর আসি সেই কাজ গুলিতে।

1) প্রথমত চায়ের পাতা কে কিছুটা পরিমান জল দিয়ে পুনরায় ভালো করে বেশ কিছুক্ষণ ধরে ফুটিয়ে নিতে হবে ।এর ফলেযে লিকার তৈরি হবে সেই লিকার দিয়ে আপনি চুলের যত্ন নিতে পারেন ।অর্থাৎ আমরা শ্যাম্পু করার পর অনেক সময় কন্ডিশনার ব্যবহার করি। কিন্তু ঘরোয়া পদ্ধতিতে যদি কোন কন্ডিশনার হয়ে থাকে তাহলে হচ্ছে এই লিকার টি । চুলে শ্যাম্পু করার পর লাগিয়ে রাখতে পারেন 10 থেকে 15 মিনিট তারপর পুনরায় জল দিয়ে ধুয়ে দিতে পারেন ।এতে চুল ঝলমলে শক্ত এবং ঘন হয় অনেকখানি।

2) চায়ের পাতা থেকে তৈরি লিকার দিয়ে আপনি বাড়ি পুরনো আসবাবপত্র পরিষ্কার করতে পারেন।

3) অনেক সময় জুতো কিংবা চটি পড়ার পর প্রচুর পরিমাণে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয় এই দুর্গন্ধ দূর করার জন্য কিছুটা জলে অর্থাৎ উষ্ণ কুসুম জলের মধ্যে চায়ের লিকার যোগ করে দেওয়ার পর যদি পা পরিষ্কার করেন তাহলে কিন্তু দুর্গন্ধ অনায়াসে চলে যাবে।

4) পেঁয়াজ বা অন্য কোনো কিছু ফল বা সবজি কাটার পর হাতের মধ্যে অনেক সময় আঁশটে গন্ধ ওঠে। এই গন্ধ অত্যন্ত তীব্র। এই গন্ধ দূর করতে শুকনো চায়ের পাতা হাতের মধ্যে ভালো করে ঘষে নিতে পারেন ।তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিতে পারেন।

5) চায়ের পাতা কে দুই থেকে তিন দিন রাতে ভালো করে শুকিয়ে সেটি গাছের গোড়ায় দিতে পারেন। এটি একটি ভালো সার হতে পারে।

6) এর পাশাপাশি মেহেদি পাতার সাথে যদি আপনি দুই থেকে তিন চামচ চায়ের লিকার মিশিয়ে নেন তাহলে কিন্তু সেটি হাত এবং পা এর ত্বককে পরিষ্কার করতে সাহায্য করে।

7) পাশাপাশি চুলের যত্ন নেওয়ার ক্ষেত্রে আমরা অনেকেই মেহেদি পাতার ব্যবহার করে থাকি ।এই মেহেদি পাতা মধ্যে যদি চায়ের লিকার মিশিয়ে মিশ্রণটি চুলের মধ্যে প্রয়োগ করেন তাহলে কিন্তু চুল আরও মজবুত এবং ঘন হবে।

8) অবশেষে এমনটা বলতেই হয় যে ফেলে দেওয়া চা এর পাতাকে কিছুক্ষণ ফ্রিজে রেখে দেয়ার পর একটি ন্যাপকিন এর মধ্যে মুড়িয়ে ছোট্ট পুঁটুলি তৈরি করে নিতে পারেন। তারপর সেটি চোখের ওপর রেখে দিতে পারেন। বেশ কিছুক্ষণ ধরে এতে চোখের ফোলা ভাব কমে যায় ।তার পাশাপাশি যাদের চোখের নিচে কালো দাগ থাকে তাদের কালো দাগ দূর হয়ে যায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button