বড় চার চাকা গাড়ির চাকার নিচে রাখা হলো কল সহ তরমুজ, ও-পর দিয়ে চ’লে গে-লো গাড়ি, তু-মু-ল ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন:সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা প্রায়শই অদ্ভুতুড়ে কিছু ভিডিও ভাইরাল হতে দেখি। এই সব ভিডিওগুলি আমাদেরকে আশ্চর্য করে দেয়। কারণ কখনোই খালি চোখে আমরা এই ভিডিওগুলি দেখতে পারতাম না।সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা খুব সহজেই এই ভিডিও গুলোর সম্মুখীন হতে পারছি তাই আমাদের উচিত সোশ্যাল মিডিয়াকে কুর্নিশ জানানো।যাই হোক আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা এমন একটি ভাইরাল ভিডিও নিয়ে আলোচনা করবো যা দেখলে হয়তো আপনি অবাক হওয়ার পাশাপাশি অনেকটাই হতবাক হবেন।

আমরা বিভিন্ন বস্তু নিয়ে মাঝেসাজেই পরীক্ষা করে থাকি। কারণ দেখা যায় এইসব ছোটখাটো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে গিয়েই মানুষ অনেক বড় জিনিস আবিষ্কার করে ফেলে। তাছাড়া অজানাকে জানার ইচ্ছে মানুষের মধ্যে বহুদিন ধরেই রয়েছে। তাই অনেকেই নিত্য নতুন পদ্ধতির মাধ্যমে পরীক্ষার দ্বারা অনেক জিনিস আবিষ্কার করা এবং বোঝার চেষ্টা করেন।

যেমন নেট দুনিয়ায় সম্প্রতি একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একগাদা চকলেট এবং কোল্ড ড্রিঙ্কসের উপর হঠাৎ করেই চারচাকা গাড়ি পাড় করে দেওয়ার পর দেখা হচ্ছে কতটা ক্ষতিগ্রস্ত হলো সেগুলি! আবার অপর একটি ভিডিওতে ঠিক একইভাবে কলসহ তরমুজের উপর চারচাকা গাড়ির চাকা পেরিয়ে যাবার পর দেখা যাচ্ছে সেগুলো কি অবস্থায় রয়েছে! শুধুমাত্র তরমুজ বা চকলেট নয় ঠিক একই রকমভাবে; টুথপেস্ট, বেলুন, নানান ধরনের খেলনা প্রভৃতির ওপর এই পরীক্ষাটি করা হয়েছে।

নেটদুনিয়ায় ইতিমধ্যেই এই ভিডিওটি বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। বর্তমানে ভিডিওটির লাইক সংখ্যা প্রায় ৪২ হাজার। চাইলে আপনিও এই ভিডিওটি দেখে আসতে পারেন।তবে সোশ্যাল মিডিয়া শুধু এই ধরনের ভাইরাল ভিডিওর জন্য নয় অনেক মানুষের প্রতিভার বিকাশ ঘটানোর জন্যও সাহায্য করে থাকে।যেমন— কিছুদিন আগেই রানাঘাট স্টেশনের গায়িকা রানু মন্ডল এর গানের প্রতিভা বিকাশ করার জন্য অনবদ্য ভূমিকা পালন করেছিল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।

স্টেশনে গান গাইতেন এই রানুদি। অসাধারণ গানের গলা ছিল তার। কিন্তু অর্থের অভাবে কখনোই তিনি নিজের প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে পারেননি। কিন্তু পরবর্তী সময়ে স্টেশনে বসবাস করাকালীন অতীন্দ্র চক্রবর্তী নামে এক ইঞ্জিনিয়ার যুবক রানু মন্ডল এর গানের ভিডিও করে নেট মাধ্যমে ছেড়ে দেন। খুব অল্প সময়ের মধ্যেই তাঁর গানের সেই ভিডিওটি জনপ্রিয়তা অর্জন করে নেট নাগরিকদের মধ্যে।

যার ফলস্বরুপ বলিউডের গান গাওয়ার সুযোগ পান রানুদি।সংগীত পরিচালক হিমেশ রেশমিয়ার সাথে একাধিক গান গেয়েছেন তিনি। যদিও বর্তমানে নিজের অহংকারের কারণেই পতন ঘটে গিয়েছে তার।তবে আজও রানু মন্ডল সম্বন্ধে কোন ভিডিও নেট দুনিয়ায় আসলে তা আগ্রহ ভরে দেখেন মানুষ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button