বড়োসড়ো বদল ট্রেনের টিকিট কাটার এই নিয়মে! জারি হল নিয়মও! নতুন ঘোষণা ভারতীয় রেলের।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- একসময় প্লাটফর্মে বাইরে টিকিট কাউন্টারে লাইন দিয়ে টিকিট কাটতে হতো। কিন্তু প্রতিনিয়ত আমরা আধুনিক হচ্ছি। তাই আধুনিকতার ছোঁয়া লেগেছে এই সমস্ত জায়গা তেও। এখন বাড়িতে বসে অনলাইনে টিকিট কাটা সম্ভব। আমরা প্রত্যেকেই ট্রেনে যাতায়াত করি দূরে কোথাও যাতায়াত করতে গেলে আগে থেকে টিকিট বুকিং করে রাখতে হয় ।নইলে টিকিট পাওয়া যায় না।

কিন্তু দিনক্ষণ পরিবর্তনের জন্য বা অন্য কোনো কারণে মাঝেমধ্যে আমাদেরকে টিকিট ক্যানসেল করতে হয় ।আগে ক্যানসেল করতে গেলে অতি অবশ্যই টিকিট কাউন্টারে উপস্থিত থাকা বাধ্যতামূলক ছিল ।কিন্তু এখন আপনি অনলাইনে মাধ্যমে বাড়িতে বসেই টিকিট ক্যানসেল করতে পারেন। এ ব্যাপারে ভারতীয় রেল একটি নতুন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। ভারতীয় রেলের তরফে টিকিট কাটার টিকিট ক্যান্সেল চার্জ ভিন্ন হয়।

অর্থাৎ আপনি কোন সময় টিকিট ক্যান্সেল করেছেন এবং কোন বিভাগের টিকিট ক্যান্সেল করেছেন তার ওপর নির্ভর করছে কত টাকা কাটা হবে।এসি টু বা থ্রি অথবা স্লিপার কোচ এর সম্পূর্ণ আলাদা। IRCTC E-Ticketing Service-এ ইউজার নেম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করে, My Transactions-এ Booked Ticket History-তে ক্লিক করতে পারেন। সেখানে ক্যানসেলেশন অপশন পাবেন। কিন্তু কত টাকা করে কাটা হয়েছে সেটি জেনে নেব আজকের প্রতিবেদন এ।

এমনটা জানা যাচ্ছে যে ট্রেনের নির্ধারিত সময়ের ৪৮ ঘণ্টা আগে টিকিট ক্যানসেল করলে ফার্স্ট ক্লাস-এর জন্য চার্জ ২৪০ টাকা, এসি টু টায়ার-এর জন্য ২০০ টাকা, এসি থ্রি টায়ারের জন্য ১৮০ টাকা, স্লিপার ক্লাস-এর ক্ষেত্রে ১২০ টাকা ও সেকেন্ড ক্লাস-এর ক্ষেত্রে ৬০ টাকা চার্জ কাটা হবে।

ট্রেনের নির্ধারিত সময়ের ৪৮ থেকে ১২ ঘণ্টা আগে টিকিট ক্যানসেল করলে টিকিটের ২৫ শতাংশ টাকা কাটা যাবে। তার উপর জিএসটি থাকবে। ট্রেন ছাড়ার ১২ থেকে ৪ ঘণ্तोটা আগে টিকিট ক্যানসেল হলে টিকিটের অর্ধেক টাকা প্লাস জিএসটি। অনলাইন টিডিআর না দেওয়া থাকলে ট্রেন ছাড়ার ৪ ঘণ্টা আগে টিকিট ক্যানসেল করলে কোনও টাকা ফেরত পাবেন না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button