আমেরিকায় কাঁচা তরকারির বাজার কেমন? আমেরিকায় কিভাবে সবাই কাঁচা তরকারির বাজার করে? ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- কখনো ইচ্ছে করে বাইরের দেশের চিত্র জানতে? কেমন ভাবে সেখানকার মানুষের জীবন যাপন করে বা কেমন ভাবে তাদের বাজার হাট কেনাকাটা হয় এসব কিছু ? যদি জানতে ইচ্ছে করে তাহলে আজকের এই প্রতিবেদন শুধুমাত্র আপনার জন্য ।ভারতীয় বাজারের সাথে বাইরের দেশের বাজারে এক বিস্তর পার্থক্য রয়েছে । সেখানে সমস্ত কিছু শৃঙ্খলাবদ্ধভাবে হয় । কিন্তু অধিক জনসংখ্যা বিশিষ্ট এই ভারতবর্ষে শৃংখল এর কোন নাম গন্ধ নেই । বেশ কয়েকটি জায়গায় শৃংখল দেখা গেলেও অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তার ব্যাঘাত ঘটে । যেমন ধরুন সবজির বাজার । আমাদের ভারতবর্ষে রাস্তাঘাটে ফুটপাতে যেখানে ইচ্ছে সবজি বাজার দেখতে পাওয়া যায় ।

এবং খোলা আকাশের নিচে সবজি বিক্রি হয় । কিন্তু বাইরের দেশে এমন কোনো নিয়ম নেই । নির্দিষ্ট জায়গায় নির্দিষ্ট তাদেরকে সবজি বিক্রি করতে হয় এবং মানুষ সেই সমস্ত জায়গায় গিয়ে সবজি কেনে । কিন্তু প্রশ্ন আসছে যে কি ধরনের সবজি পাওয়া যায় বাইরের দেশে ? তাই আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে তুলে ধরব আমেরিকার সবজি বাজারে চিত্রটা। আপনারা একটা জিনিস ভালো করে লক্ষ্য করে দেখতে পাবেন যে শপিংমলে কিন্তু দামের কোন ঠিক থাকে না । অর্থাৎ জিনিসপত্রগুলি কম দামে বাজারে পাওয়া যেতে পারে ,

পাইকারি বাজারে সেগুলো কিন্তু শপিংমলে একটু বেশি দামে বিক্রি হয় । কিন্তু তবুও মানুষ শুধুমাত্র অভ্যাসের জন্য সেই সমস্ত জায়গাতেই ক্রয় করে থাকেন ।এবং তাদের একটা ভুল ধারণা যে শপিংমলে জিনিস মানে বিশুদ্ধ এবং সতেজ । কিন্তু তেমনটা সবসময় নাও হতে পারে। এটা হলো আমাদের সমগ্র ভারতবর্ষে চিত্র । কিন্তু বাইরের দেশে কি আমাদের ভারতবর্ষের মতনই রাস্তার ধারে সবজির দোকান বসে? একদমই না । কারণ সম্প্রতি ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে সেখানে এক প্রবাসী বাঙালি আমেরিকায় থাকেন । তিনি তুলে ধরেছেন আমেরিকা শপিংমলে একটি চিত্র ।

এবং তার সাথে সাথে তিনি ওই ভিডিওতে জানিয়েছেন যে সেই দেশে শপিংমলে ভারতীয় বাজারের মতনই আলু বা অন্যান্য শাকসবজি দেদার বিক্রি হয় । মানুষ এখানে ভিড় করে সবজি কিনতে । কিন্তু সেখানে রাস্তার ধারে ফুটপাতে কোন সবজির দোকান দেখা যায় না ।এটি তাদের দেশের নিয়ম । আমাদের ভারতবর্ষে বাজারে যেখানে অ-সাধু ব্য-বসায়ীরা ব্যবসা করে নিজের রোজগার করে সেখানে কিন্তু আমেরিকার বাজারদরের চিত্রটা একটু আলাদা সেখানে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করা থাকে

যে কোন শাকসবজি গু-লি রা-সা-য়নিক প-দার্থ যু-ক্ত এবং কোনগু-লি সম্পূর্ণ জৈবিক পদ্ধতিতে উৎপন্ন হয়েছে । যে সমস্ত সবজিগুলো জৈবিক পদ্ধতিতে উৎপন্ন হয়েছে তার দাম অত্যন্ত বেশি এবং রাসায়নিক ভাবে যে সমস্ত সবজিগুলো উৎপন্ন হয়েছে তার দাম কিছুটা হলেও কম । প্রতিটি সবজি বিভাগের সামনে নির্দিষ্ট পলিথিন এর কাউন্টার থেকে থাকে । যেখান থেকে মানুষরা ক্যারি ব্যাগ নিয়ে বাজার করতে পারবেন । এবং প্রতিটি বিভাগে একটি করে ওজন দাড়ি রাখা থাকে যার মাধ্যমে আপনি নিজে ওজন করে নিতে পারবেন আপনার কেনা সবজি গু-লিকে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button