যেভাবে হাজার হাজার মুরগির বাচ্চাকে একদিনে দু কেজি-তিন কেজি করে, বিক্রি করে দেওয়া হচ্ছে বাজারে, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- দেশের যা অবস্থা এই মুহূর্তে তাতে প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম । বাজারে গেলে আপনি সেই পরিস্থিতি ভালো মতন অনুভব করতে পারবেন । যাবতীয় যে সমস্ত জিনিসপত্র গু-লি আমাদের জীবনের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত আছে সেগুলোর দাম আকাশ ছোয়া পাশাপাশি পেট্রোল-ডিজেলের দাম আকাশছোঁয়া । এমতাবস্থায় অনেকে চাকরি চলে গেছে। সে ক্ষেত্রে ব্যবসায় মনোনিবেশ করছেন অনেকে। কিন্তু অনেকেই ভাবেন ব্যবসা মানে বড় পুঁজির প্রয়োজন হবে ।

কিন্তু এমনটা নাও হতে পারে। কারণ ছোটখাটো পুঁজি নিয়ে ব্যবসা শুরু করা যেতে পারে । তার প্রমাণ আমরা এর আগে বহুবার দেখেছি । ইলেকট্রনিক্স থেকে শুরু করে হার্ডওয়ারের দোকান যেকোনো কিছুতেই ব্যবসা কিন্তু এখন মাথা চাড়া দিয়ে উঠছে । বড় বড় কোম্পানিগুলো ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে জিনিসপত্র কিনে তাদের কাজ সম্পন্ন করছে ।তাই ব্যবসা বর্তমান বাজারে এক অন্যতম দাবী রাখতে পারে বলে মনে করছেন অনেকে । এর পাশাপাশি অনেকে আবার মুরগি বা পোল্টি ফার্ম খোলার কথা চিন্তা করেছেন এবং ইতিমধ্যে অনেকে সেই ব্যবসায় যুক্ত হয়ে গেছেন ।

আপনি হয়তো ভাবছেন যে মুরগির ব্যবসা করতে গেলে প্রচুর পরিমাণে পরিশ্রম করতে হয় । কারণ মুরগী থেকে ডিম হলে সেদিনকে যত্নে রাখা সেখান থেকে বাচ্চা উৎপন্ন করার বিভিন্ন পদ্ধতি বা কাজ থেকে তাকে যা অনেক পরিশ্রমের । কিন্তু আমি বলব আপনি সম্পূর্ণ ভুল ভাবছেন ।কারণ বর্তমানে উন্নত প্রযুক্তি ধারায় এমন বেশ কিছু যন্ত্রপাতি আবিষ্কৃত হয়েছে যা খুব সহজেই আপনার কাজকে একেবারে সহজ করে তুলবে। সম্প্রতি সেরকম একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে যেখানে বিস্তারিত ভাবে দেখানো হয়েছে যে মুরগি যারা চাষ করে বা মুরগি নিয়ে যারা ব্যবসা করে তারা ঠিকই কি উপায়ে সমস্ত কাজগু-লি কম সময়ে সেরে ফেলে ।

সেখানে দেখানো হয়েছে যে বিভিন্ন ধরনের যন্ত্রপাতি থেকে থাকে । সে য-ন্ত্রপাতির মাধ্যমে মুরগির ডিমে তা দেওয়া থেকে শুরু করে সেখান থেকে কম সময়ে মুরগির বাচ্চা উৎপন্ন করা এবং আরো অন্যান্য সমস্ত কিছু পদ্ধতি রয়েছে সবকিছু সম্ভব হচ্ছে মেশিনের দ্বারা ।তার পাশাপাশি আপনি যে ভিডিও দেখলে বুঝতে পারবেন যে কোন ডিম খারাপ এবং ভালো সেটিও বোঝা যাচ্ছে য-ন্ত্রপাতির মাধ্যমে ।কাজেই এখানে ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা প্রায় শূন্যের কাছাকাছি । ইতিমধ্যে সেই পদ্ধতি গ্রহণ করেছেন অনেকে । চাইলে আপনিও করতে পারেন । এবং বর্তমানে প্রযুক্তিতে আপনি হতে পারেন কম সময়ের লাভবান ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button