‘ল্যাম্পপোস্টে বেঁ-ধে পে-টাবো তোমাদের’, প্রা’ণের ভ’য়ে লালবাজারে ছুটলেন বৈশাখী!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- রাজনৈতিক তরজা মাঝেই খবরের শিরোনাম দ-খল করেছে শোভন-বৈশাখী রত্নার ত্রিকোণ প্রেমের গল্প । এবং এই ঘটনা নতুন কোন ঘটনা নয় । ভোটের আগে থেকেই এই ঘটনার সূত্রপাত ঘটে । মাঝেমধ্যেই খবরের শিরোনাম দখল করতে দেখা যায় এই ত্রিকোণ প্রেমিকদের। কিন্তু এবার অন্য রূপ ধারণ করেছে এই ত্রিকোণ প্রেমের গল্প । বৈশাখী চট্টোপাধ্যায় নিজেকে পরিচয় দিতে চান শোন ব্যানার্জীর স্ত্রী হিসেবেব। তাই তার ফেসবুক ওয়ালে দেখা গেছে বড় পরিবর্তন ।

সেখানে বৈশাখী চট্টোপাধ্যায় জায়গায় লেখা রয়েছে শোভন বৈশাখী চট্টোপাধ্যায়। সম্প্রতি শোভন দেব চট্টোপাধ্যায় এমনটা জানিয়েছেন যে তার স্থাবর-অস্থাবর সমস্ত সম্প্রতি তিনি বৈশাখীকে লিখে দিতে চলেছেন । আর তারপরেই রীতিমতো খ-ন্ড যু-দ্ধ শুরু হয়ে গেছে তিনজনের মধ্যে । এবং সেই যু-দ্ধ দ-খল ক-রেছে খবরের শিরোনাম সোশ্যাল মিডিয়াতে মাঝে মধ্যেই দেখা যাচ্ছে তাদের সেই যু-দ্ধের ছিটেফোঁটা চিত্র । কিন্তু এবার প্রকাশ্যে গাছে ল্যাম্পপোস্ট বেঁ-ধে পে-টানো হু-মকি দিলেন রত্না চট্টোপাধ্যায় ।

সংবাদ মাধ্যমের সামনে একটি সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে রত্না বলেছেন, তাদের “গাছে বেঁধে পেটানো হবে”! এর পরেই লালবাজার থা-নায় গি-য়ে পু-লিশ কমিশনারের কাছে একটি চিঠিতে রত্না চট্টোপাধ্যায় বি-রুদ্ধে হু-মকি দেওয়ার অ-ভিযোগ জমা করে এসেছেন বৈশাখী। লালবাজারের একটি লিখিত অ-ভিযোগ জমা করেন বৈশাখী চট্টোপাধ্যায় এবং সেখানে তিনি রচনা চট্টোপাধ্যায় কে প্রভাবশালী বিধায়ক হিসেবে উল্লেখ করেন অর্থাৎ প্রত্যক্ষভাবে তার নাম উল্লেখ করেননি তিনি ।

এবং তিনি জানিয়েছেন যে আমাদের নানাভাবে হু-মকি দে-ওয়া হ-চ্ছে। আমি এই ঘটনায় রীতিমতো আ-তঙ্কি-ত। উনি এখন একজন শা-সক দলের নেত্রী শুধু নন, বর্তমানে বিধায়ক। প্র-ভাবশা-লী। তাই আমি একাধিক অ-ভিযো-গের বিস্তারিত এই চিঠির মারফত আপনাকে জানালাম। আশাকরি আপনি আমার এই চিঠিটি গুরুত্ব দিয়ে বিবেচনা করবেন”। এর পাশাপাশি তিনি এটাও বলেছেন যে এর আগেও রত্না নামে অনেক অভিযোগ তিনি করেছেন । কিন্তু কোন রকম ভাবে কোনো ফল হয়নি ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button