আপনার কাছে ১০ টাকার এমন পুরোনো নোট আছে? তাহলে আপনার জন্য বিরাট সুখবর! যেখানে এই নোট জমা করলে হতে পারেন লাখপতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- কথায় আছে ‘ওল্ড ইজ গোল্ড’ । তার পাশাপাশি যদি বাংলাতে বলা যায় তাহলে মনটা বলা যেতেই পারে যে ‘পুরনো চাল ভাতে বাড়ে’ ।ঠিকই ধরেছেন আমি আজকে এমন এক ধরনের কথা বা ঘটনা আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চলেছি শুনলে আপনি রীতিমত অ-বাক হবেন এবং বাড়িতে শুরু করবেন চিরুনি তল্লাশি । এখন থেকে জানতে ইচ্ছে করছে নিশ্চয়ই ঘটনা টি কি। তার পাশাপাশি এই ঘটনা শেষে আপনি কয়েক হাজার টাকার মালিক হতে পারে না কোন পরিশ্রম ছাড়াই আসুন দেখে নেব কি সেই ঘটনা।

পুরনো জামা কাপড় খেলা বা অন্যান্য কিছু জিনিসের প্রতি আমাদের একটা আলাদা মায়া থাকে। তাই অনেকে সে মায়া কাটিয়ে উঠতে পারে না বলে সেগুলিকে সংরক্ষন করে রেখে দেয় । ঠিক তেমনি আমাদের আশেপাশে এরকম অনেক মানুষ রয়েছে যারা পুরনো দিনের কয়েন বা টাকা জমাতে অত্যধিক পছন্দ করে এবার তাদের জন্য এসেছে বিশাল বড় সুখবর কারণ আপনি হয়তো জানলে অবাক হবেন এই পুরনো কয়েন বিক্রি করে আপনি রাতারাতি কয়েক হাজার টাকার মালিক হতে পারেন শুধুমাত্র একটি নোটের উপর ভিত্তি করে।

উপরিক্ত কথাগু-লি অবাস্তব মনে হল এমনটা কিন্তু জানাচ্ছে কয়েন বাজার । বর্তমানে বিভিন্ন ই-কমার্স সাইট থেকে যে সমস্ত বিজ্ঞপ্তিগু-লি জা-রি করা হচ্ছে । সেই সমস্ত বিজ্ঞপ্তির মধ্যে অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ বিজ্ঞপ্তি হলো পুরনো কয়েন । যেখানে স্পষ্ট ভাবে জানানো হয় যে যদি আপনার কাছে পুরনো কয়েন বা নোট থেকে থাকে তাহলে সেটি নিলামে তুলে আপনি পেতে পারেন লক্ষাধিক টাকা বা কয়েক হাজার টাকা ।

সম্প্রতি, এরকমই একটি বিশেষ নোটের দাম কয়েক হাজার টাকা পর্যন্ত উঠেছে। ভারতীয় পুরানো একটি ১০ টাকা। এই বিশেষ ১০ টাকার নোটটি আপনার কাছে থাকলে আপনি ২৫,০০০ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন।তবে এই বিশেষ নোটটি বিক্রি করে ২৫,০০০ টাকা পেতে একটি শর্ত পূরণ করতে হবে। কি সেই শর্ত? ১০ টাকার এই নোটটির একপিঠে অবশ্যই থাকতে হবে অশোকস্তম্ভ এর ছবি এবং অন্যপিঠে নৌকার ছবি। আর এই নোটে রিজার্ভ ব্যাংকের প্রথম ভারতীয় গভর্নর সিডি দেশমুখের স্বাক্ষর থাকতে হবে। ‘১০ রুপিজ’ এই কথাটা ইংরেজিতে নোটের পিছনের পিঠের দুই প্রান্তে লেখা থাকতে হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button