“মা মা-রা গেছে তাই টাকা তুলছি”,- রাস্তায় ঘু-ষ নিতে গিয়ে ধ-রা প-ড়ে সা-ফাই পু’লিশের, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের দেশে তথা রাজ্য সুরক্ষার দায়িত্ব যাদের হাতে থাকে তাদেরকে আমরা খুব সাধারণ ভাষায় পু-লিশ বলে থাকি । সমাজের সমস্ত অসামাজিক কাজকর্ম সবকিছুকে দ-মন করার জন্য রাজ্য তথা দেশ জুড়ে রয়েছে বিশাল সংখ্যক পু-লিশ বা-হিনী । শুধুমাত্র আমাদের দেশ নয় ভারতবর্ষের বাইরে এই বা-হিনী । কিন্তু যাদের হাতে আইন রক্ষার দায়িত্ব থাকে কখনো কখনো তারাই আ-ইন অ-মান্য করে অর্থাৎ কথাতে আছে রক্ষক যখন ভ-ক্ষক হয়ে ওঠে তার একটি স্পষ্ট চিত্র দেখা গেল এই ভিডিওতে।

এর আগে পু-লিশকে নিয়ে যাবতীয় অনেক ধরনের ভিডিও প্রকাশ সে উঠে এসেছে । কখনো সেগু-লি জনপ্রিয়তা পেয়েছে মানুষের মধ্যে । কারণ পু-লিশ মানেই যে খা-রাপ একটা মানসিকতা যেমন কিন্তু নয় । আমরা এর আগে অনেক সময় দেখেছি বিভিন্ন পু-লিশকর্মী বিভিন্ন মানুষকে সাহায্যের জন্য এগিয়ে এসেছে । কিন্তু কখনো কখনো আবার এমনও ঘটনা দেখা যায় যা সমগ্র পু-লিশ জাতিকে বদনাম করতে যথেষ্ট এই ঘটনা তার প্রমাণ দিচ্ছে বারবার ।

ঘটনাটি ঘটেছে কাঁকুড়গাছি এলাকাতে । সেখানে কলকাতা পু-লিশের কর্মরত এক পু-লিশ অ-ফিসার অর্থাৎ এ-সিস্ট্যান্ট সাব-ই-ন্সপেক্টর চলন্ত একটি লরি কে দাঁড় করিয়ে তার কাছ থেকে টা-কা নি-চ্ছিল । আমরা জানি যে এই ধরনের চিত্র আমাদের আশেপাশে এলাকাতে হামেশাই দেখা যায় । বে-আ-ইনিভাবে টাকা নেই আ-ইন র-ক্ষকরা । যদিও এই ঘটনা এর আগে অনেকবার প্র-তিবাদ হ-য়েছে ।কিন্তু কোন কোন রকম ভাবে সমাপ্তি টানা যায়নি । বোধহয় এবার টানা যেতে পারে ।

কারণ সম্প্রতি যে ভিডিওটি প্রকাশিত হয়েছে এবং বলাবাহুল্য ভাইরাল হয়েছে সেটি সবার সামনে তুলে ধরেছে কিছু কিছু পু-লিশ অ-ফিসারের ঘৃ-ণ্য মা-নসিকতা কে । যখন এই ঘটনাটি সেই এলাকাতে ঘটে তখন তারই পাশে থাকা এক ব্যক্তি ঘটনাটি সম্পূর্ণ লক্ষ্য করে এবং তিনি তার মোবাইলের মাধ্যমে একটি লাইভ ভিডিও করেন যে ভিডিওতে সবার সামনে বু-ক চিতি-য়ে পু-লিশ অ-ফিসার এর কাছে জবাব চাই । যখন পরিস্থিতি উ-ত্তপ্ত হয়ে উঠছে তখন সে পু-লিশকর্মী হা-তজো-ড় ক-রে ক্যামেরার সামনে ক্ষ-মা চা-ই ঠিকই । কিন্তু তার পাশাপাশি তিনি যে কথাটি বললেন তা আরো বা-ড়িয়ে তু-লল উ-ত্তে-জনাকে ।

তিনি বললেন যে আমার মা মা-রা গে-ছে তাই টাকা তুলছি । একজন কর্মরত পু-লিশ অ-ফিসারের বে-তন আমাদের মোটামুটি প্রত্যেকের আন্দাজ আছে । তারপরও যারা দিন আনে দিন খায় তাদের পকেট থেকে ১০০,২০০ টাকা নেওয়ার জন্য এই ধরনের কাজকর্ম কেন করেন তারা সেই জবাব চেয়েছেন ওই ব্যক্তি সেই লাইভের এর মধ্যে । যদিও পু-লিশ অ-ফিসারটি কোনো রকম কোনো উত্তর দিতে রাজি নয় । ইতিমধ্যে ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসার পর ঝ-ড়ের গ-তিতে ভাইরাল হয়েছে । নি-ন্দার ঝ-ড় ব-য়ে গে-ছে পু-লিশের উপর।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button