নতুন ব্যবসার সুযোগ! 4 লক্ষ টাকার এই মেশিন থেকে প্রতি মাসে আয় করুন মিনিমাম 1 লক্ষ টাকা করে! রইলো বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বর্তমানে এই সভ্যতাকে আমরা প্রতিনিয়ত চাকরির সন্ধানে থাকি । কিন্তু ব্যবসা-বাণিজ্য করার মনোনিবেশ আমরা ভুলেও ভাবে না । কারণ ব্যবসা মানে বুঝি এবং অল্প একটু ভুল হয়ে গেলে ক্ষ-য়ক্ষ-তি সম্ভব না কিন্তু এমন কিছু ধরনের ব্যবসা রয়েছে যেগুলি ক্ষ-তির পরিমাণ কম বরং লাভের পরিমাণ বেশি । তার পাশাপাশি মোটা অংকের পুঁজি ইনভেস্ট করতে হবে না আপনাকে এ রকমই এক ধরনের ব্যবসা হচ্ছে গ্লাস প্রটেক্টর তৈরির ব্যবসা । একদমই ঠিক শুনেছেন এই ব্যবসা সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানাবো এই প্রতিবেদনে ।

এই গ্লাস প্রটেক্টর সাধারণত মোবাইলের স্ক্রিনে লাগানো হয়ে থাকে এবং যেহেতু বর্তমান যুগে আমরা সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে বসবাস করছি তাই প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে প্রবণতা স্মার্টফোনের চাহিদা । ভারত তথা গোটা পৃথিবীর বাজারের তুঙ্গে আর যত স্মার্টফোনের চাহিদা বাড়বে যত বাড়বে গ্লাস প্রটেক্টর এর চাহিদা । গ্লাস প্রটেক্টর আগে চীন দেশ থেকে সরবরাহ করা হতো । কিন্তু এখন এটি আপনার নিজের বাড়িতে তৈরি করতে পারবেন । তার জন্য আপনাকে ইনভেস্ট করতে হবে মাত্র চার লক্ষ টাকা । একজন কর্মচারী এবং সমস্ত কাগজপত্র নিয়ে আরো এক লক্ষ টাকা অর্থাৎ সম্পূর্ণ ৫ লক্ষ টাকা ইনভেস্ট করতে হবে আপনাকে।

একটি শুরু করতে গেলে প্রথমে আপনাকে Laser Engraving Machine মেশিন ক্রয় করতে হবে । এরকম একটা Laser Engraving Machine মেশিন আপনি ৪ লাখ টাকার মধ্যেই পাবেন। প্রথমে Laser Engraving Machine মেশিন কিনে আপনার বাসায় স্থাপন করে নিতে পারেন। মেশিন কেনা শেষ হলেই আপনার কাজ হল স্ক্রিন প্রটেক্টর গু-লি বিক্রির জন্য মার্কেট খুজে বের করা। আপনি চাইলে দুই ভাবে এসব গ্লাস বিক্রি করতে পারেন। পাইকারি এবং খুচরা দোকানে সরবরাহ করে।

এবার প্রশ্ন আসচে যে কত টাকা লাভ থাকতে পারে । সমীক্ষা বলছে যে প্রতি মাসে আপনার কমপক্ষে এক লক্ষ টাকা লাভ ধরতে পারেন । কিভাবে? প্রথমে আপনি ১০০ টি দোকানকে নির্বাচন করলেন সে ১০০ টি দোকানে প্রতিমাসে যদি ২০০ করে গ্লাস প্রটেক্টর আপনি বিক্রি করতে পারেন তারা প্রতিমাসে আপনার কাছ থেকে মোট কুড়ি হাজার গ্লাস প্রটেক্টর বিক্রি হবে । এবং প্রতিটি গ্লাস প্রটেক্টর যদি আপনি ৫ টাকা করে রাখতে পারেন তাহলে মাসে আপনি এক লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন ।এই ধরনের ব্যবসায় নেমে পড়েছেন অনেক বেকার যুবক যুবতীরা চাইলে আপনিও শুরু করতে পারেন ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button