“এবারে খেলা হবে গোটা দেশ জুড়ে! 350 থেকে 400 আসন পাব!” – ভবিষ্যৎবাণী করলো অনুব্রত!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- এবারে বিধানসভাতে এই বাংলায় তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল কংগ্রেস । তবে লক্ষ্য আরো বড় । এবারের লক্ষ্য দিল্লি তাই চব্বিশে দিল্লিতে নিজের আসন পাকাপোক্ত করতে মরিয়া তৃণমূল কংগ্রেস । ২১ শে জুলাই শহীদ দিবসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর পরিকল্পনা মাফিক প্ল্যান সবার সামনে তুলে ধরেছেন । তিনি বলেছেন এই বাংলায় খেলা হয়েছে এবং আগামী দিনে যতক্ষণ না বিজেপিকে দেশ থেকে বিতাড়িত করা হবে ততক্ষণ পর্যন্ত এই খেলা চলবে । প্রত্যেকে নিজেদের নেতাদের কে বোঝান ।

আমি দিল্লি যাচ্ছি ২৬,২৭,২৮ এর মধ্যে কোন মিটিং রাখতে পারলে ডাকুন । যেমন ভাবে হোক বিজেপিকে এই দেশ থেকে বিতাড়িত করতে হবে । কারণ রো-গীর মৃ-ত্যুর পর ডা-ক্তারেরা এলে করণীয় কিছু থাকে না । তাই এখন থেকে যা করার করতে হবে। হাতে আর সময় নেই । তবে এর পাশাপাশি তিনি এটাও বলেছেন ১৬ ই আগস্ট খেলা দিবস পালিত হবে গোটা রাজ্য জুড়ে । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাষণ শুধুমাত্র বাংলা নয় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সম্প্রচার করা হয়েছিল এবং আগামী দিনে লক্ষ্য স্থির রেখে এগিয়ে যেতে চলেছে এমনটা বলার আর নতুন করে দরকার পড়বেনা ।

তবে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয় তৃণমূল নেতা তথা বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল । কি জানালেন তিনি সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরে প্রতিবেদনে । সেই অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পরেই বীরভূমে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অনুব্রত বলেন, “আমরা বাংলাতে জিতে গিয়েছি। এবার সারা দেশে খেলতে হবে। এতে বিশেষ কিছু বলাবলির কিছু নেই। বাংলায় আমরা ফার্স্ট হয়েছি। এবার ইন্ডিয়াতেও খেলতে যাবো। ওখানেও ৩৫০ থেকে ৪০০ কাপ নিয়ে আসবো।” এই সাড়ে তিনশো চারশো যে কার্যত আসন সংখ্যার ইঙ্গিত তা বুঝে নিতে অসুবিধা হয়না। যদিও দিল্লি এখনও অনেকটাই দূর, তবে চব্বিশের কথা মাথায় রেখে এখন থেকেই ছক সাজাতে যে তৎপর তৃণমূল, ঐদিন তা আরেকবার বুঝিয়ে দেন এই বর্ষীয়ান নেতা।

শুধুমাত্র এখানে থেমে থেমে থাকেনি তার পাশাপাশি পেট্রোল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির সে ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা করেছে সাংবাদিকদের সামনে ।। তিনি এও জানান, পেট্রোল-ডিজেল এবং গ্যাসের দামের ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রী যা বলেছেন তা একদম সঠিক। এগুলো মানুষের নিত্য প্রয়োজন। আগামী দিনে এর জন্য রেগুলার মিটিং মিছিল হবে। সাথে সাথে পেগাসাস কান্ড নিয়েও কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়ান অনুব্রত। তার দাবি যারা রাজনীতি করতে জানে না তারাই ফোন ট্যাপ করবে।এবং এর থেকে স্পষ্ট অনুমান করা যাচ্ছে যে আগামী দিনে তৃণমূল কংগ্রেস রাজ্য নয় বরং গোটা দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়তে চলেছে তীব্রভাবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button