সবচেয়ে বেশি বিদ্যুৎ খরচে, সবচেয়ে কম বিদ্যুৎ বিল, রইল গো’পন ব্যবহার পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা আমাদের এই উন্নত জীবন যাত্রা তে অনেক কিছু নিত্য নতুন জিনিস ব্যবহার করে থাকি । এই যেমন ধরুন যানবাহনে ক্ষেত্রে বাস-ট্রেন ট্রাম্প বা বিমান ব্যবহার করে থাকি । তার পাশাপাশি ঘরের আসবাবপত্র ক্ষেত্রে অনেক ধরনের নিত্য নতুন জিনিসপত্র ব্যবহার করে থাকি । যেমন কাপড় কাচার জন্য ওয়াশিং মেশিন বা আলো জ্বালানোর জন্য অত্যাধুনিক লাইট গরম থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য এয়ারকন্ডিশনের বা ফ্যান এর ব্যবহার করে থাকি আমরা ।

ঠিক তেমনই গ্রীষ্মকালে ঠান্ডা জল পাওয়ার জন্য বা খাবারকে দীর্ঘদিন ধরে সংরক্ষণ করে রাখার জন্য আমরা ব্যবহার করে থাকি ফ্রিজের। ফ্রিজ ব্যবহার করার ফলে অতিরিক্ত বিদ্যুতের বিল খরচ হয় । কিন্তু যদি আপনি সঠিক মাত্রার ফ্রিজকে ব্যবহার করতে পারেন তাহলে অনেকাংশে কমে আসবে মাসিক বিদ্যুতের বিল । কিভাবে ফ্রিজ ব্যবহার করা উচিত তার কয়েকটি উদাহরণ আপনাদের এই মুহূর্তে তুলে ধরতে চলেছি । ভালো করে উপলব্ধি করে নেওয়ার চেষ্টা করুন সেগু-লিকে।

ফ্রিজের মধ্যে যত ফাঁকা জায়গা থাকবে তত তাপমাত্রা কমে আসবে । আর তাপমাত্রা কমে এলে বিদ্যুতের বিল বেশি খরচ হবে ।তাই যতটা সম্ভব ভর্তি করে রাখুন । এতে তাপমাত্রা বাড়বে এবং বিদ্যুতের বিল অনেকটা কম আসবে । ফ্রিজের মধ্যে যে জলবা খাবার রাখেন তার মধ্যে সামান্য পরিমাণ নুন দিয়ে রাখুন এতে ফ্রিজের তাপমাত্রা সঠিক তাকে । তার পাশাপাশি যদি কোনো কারণে লোডশেডিং হয়ে যায় তাহলে কিন্তু খাবার ন-ষ্ট হয় না । ফ্রিজের মধ্যে অতিরিক্ত পরিমাণে জায়গা থাকে না কিন্তু যদি কোনো কারণে আপনি যদি অতিরিক্ত পরিমাণ জিনিসপত্র রাখতে চান তাহলে সেক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন কোন ধাতব পদার্থের ।

অর্থাৎ তমার কোন পাত্রে বা লোহার কোন টিফিন বক্সের মধ্যে খাবার ভরে রেখে দিতে পারেন ফ্রিজের মধ্যে । এতে তাপমাত্রা অক্ষুন্ন থাকে যার ফলে ইলেকট্রিক বিল অনেক অংশে কম খরচ হয় । ফ্রিজের খাবার কম থাকলে সেই খাবারটি গ্যাসে ফুটিয়ে রাখুন ফ্রিজ মাঝে মাঝে বন্ধ করুন। প্রতিদিনের খাবার প্রতিদিন ব্যবহার করলে, অল্প খাবার ঘরে ফুঁটিয়ে নিলে সারা রাত ফ্রিজ বন্ধ করে রাখলে মাসের শেষে ইলেকট্রিক বিল অনেকটা কম আসে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button