গ্রামে দেখা মিলল বিরল প্রজাতির সাদা কো-ব’রা, ফ-ণা তুলে ফোঁ-স করতেই দেখতে লাগলো দারুণ, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ভারতে সাপের বিভিন্ন রকমের প্রকারভেদ লক্ষ্য করা যায় । কখনো বিষহীন কখনো আবার বি-ষযুক্ত । সাধারণত যে সমস্ত সাপের বি-ষ থাকে না তারা পো-কামা-কড় খা-ওয়ার জন্য বা নিজের জীবনের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার জন্য এই ধরনের কাজকর্ম করে থাকে । কিন্তু যাদের বি-ষ থাকে তারা কিন্তু মানুষের পক্ষে যথেষ্ট ক্ষ-তিকর হয়ে উঠতে পারে । তাই সা-পের নাম শুনলে বর্তমান প্রজন্ম মানুষ আ-ত-ঙ্কিত হয়ে ওঠে । সাধারণত দিনে-দুপুরে সা-পের কথা শুনলে আমরা আ-তঙ্কিত হ-য়ে প-ড়ি ।

কারণ সা-পের বি-ষ যদি কোনো কারণে শ-রীরের মধ্যে প্র-বেশ ক-রে তাহলে হয়তো আর মানুষকে ফিরিয়ে আনা যায় না । কখনো কখনো এমন ঘটনা দেখা গেছে এ সা-পের এক ছো-বলে মুহূর্তের মধ্যে প্রা-ণ হা-রিয়েছে অনেক ব্যক্তি । আগেকার যুগে এই ধরনের ঘটনা বেশি ঘটছে । কারণ তখন ছিল না কোনো হা-সপা-তাল বা উন্নত চি-কিৎ-সা ব্যবস্থা বর্তমানে তা অনেকাংশে কমে এসেছে । এই সা-পের কথা বলতে গেলে যে কথাটি না বললেই নয় যে সা-পের বি-ষ যদি শরীরে কোনো কারণে প্রবেশ করে ।

যদি আমরা সঠিক উপায়ে কম সময়ের মধ্যে হা-সপা-তালে সেই ব্যক্তিকে নিয়ে যেতে পারি তাহলে কিন্তু বেঁচে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে বেশি পরিমাণে অর্থাৎ অধিক পরিমাণে । কিন্তু যেহেতু আমরা অনেকেই কু-সং-স্কারের দ্বারস্থ এখনো অব্দি তাই সা-পে কা-ম-ড়ালে এখনো অনেক গ্রামেগঞ্জে ও-ঝা দিয়ে ঝা-ড়ফুঁ-ক করা হয় । যার ফলে অনেক দেরি হয়ে যায় এবং সেই ব্যক্তি বা মহিলাকে বা যাকে সা-পে কা-ম-ড়েছে তার মৃ-ত্যু ঘ-টে সেখানেই । কাজে এই ধরনের কাজ থেকে আমাদের বিরত থাকতে হবে ।

বর্তমান যুগে ইন্টারনেটের মাধ্যমে আমরা গ-ভীর জ-ঙ্গলে কথা মুহূর্তের মধ্যে জানতে পারি । এ কথা আমরা প্রত্যেকেই জানি । ঠিক তেমনি সম্প্রতি ইন্টারনেটে অর্থাৎ ইউটিউব একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে এবং যথেষ্ট পরিমাণে ভাইরাল হয়েছে । সেখানে একটি সাদা দুধের মত সা-পকে লক্ষ্য করা গেছে । সেই সা-প কোথায় পাওয়া যায় তা এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি ।তবে সেই সা-পের বি-ষ নেই এমন টা বললেই চলে ।অর্থাৎ এই সব মানুষের পক্ষে ক্ষ-তিকর নয় । ইতিমধ্যে সেই ভিডিওটি দেখতে ভিড় করেছে নেট পাড়াতে প্রচুর মানুষেরা ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button