আর যেতেই হবে না কোথাও! আসলো নতুন নিয়ম, এবার বাড়ি বসেই সহজেই পেয়ে যাবেন ড্রাইভিং লাইসেন্স!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- শুধুমাত্র গাড়ি নিয়ে কোথাও বেমালুম হারিয়ে গেলাম এমনটা হলে কিন্তু চলবে না ।তার পাশাপাশি আপনাকে গাড়ি সমস্ত কাগজপত্র রাখা দরকার। নইলে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকে থাকতে পারেন। এর পাশাপাশি গাড়ি চেকিং এর সময় পুলিশের সাথে অবাঞ্চিত ঝামেলা বা তর্কের মধ্যে জড়িয়ে যায় বহু গাড়িচালক। অতএবএমনটা আপনি বুঝতে পারছেন ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকা অত্যন্ত জরুরী কিন্তু দেশের এই অবস্থার কথা মাথায় রেখে এবারে সশরীরে গিয়ে ড্রাইভিং লাইসেন্সের পরীক্ষা দিতে হবে না অনলাইনে মাধ্যমে হবে সমস্ত ব্যবস্থা এমনটাই জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সড়ক মন্ত্রী ।

এখনকার যুগে আমরা প্রত্যেকে উন্নত এবং উন্নত এই ধারাকে অব্যাহত রাখতে প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে আমাদের আশেপাশে বিভিন্ন আধুনিক যানবাহনের সংখ্যা । সেইমতো বলাবাহুল্য প্রতিটি বাড়িতে এখন রয়েছে বাইক কিন্তু বাইক বা গাড়ি থাকলেই শুধুমাত্র হবে তেমনটা কিন্তু নয় । তার পাশাপাশি অবশ্যই তার সম্পর্কিত যাবতীয় নথিপত্র থাকা অত্যন্ত জরুরী এবং সেই সমস্ত নথিপত্র মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ নথি পত্র হলো ড্রাইভিং লাইসেন্স ।

এত দিন পর্যন্ত ড্রাইভিং লাইসেন্স করার জন্য চালককে আরটিও অফিসে গিয়ে লম্বা লাইন দিতে হতো । কিন্তু এবার সেই দিনের অপেক্ষা শেষ ।। বাড়িতে বসেই আপনি পেয়ে যাবেন ড্রাইভিং লাইসেন্স । সড়ক পরিবহণ মন্ত্রক একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে ড্রাইভিং লাইসেন্সের ক্ষেত্রে নতুন একটি নিয়মের কথা জানিয়েছে। যেখানে ড্রাইভিং লাইসেন্স হাতে পাওয়া আরও সহজ হয়ে যাবে। ওই নিয়মে কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণ মন্ত্রক জানিয়েছে, আর ড্রাইভিং লাইসেন্স আবেদনকারীকে আঞ্চলিক পরিবহণ অফিস অর্থাৎ আরটিওয় গিয়ে পরীক্ষা দিতে হবে না।

কোনও বৈধ ড্রাইভিং সেন্টার থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে সেখানে পরীক্ষায় পাশ করলেই হাতে চলে আসবে ড্রাইভিং লাইসেন্স।ড্রাইভিং সেন্টার বৈধতা পাওয়ার পর সেখানে আইটি ও বায়োমেট্রিক পদ্ধতি থাকতে হবে এবং একটি নির্দিষ্ট সিলেবাস মেনে প্রশিক্ষণ দিতে হবে। কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণের এই নিয়মে যাঁরা ড্রাইভিং লাইসেন্স পাবেন, তাঁদের সরকারি পরীক্ষায় বসতে কোনও অসুবিধা হবে না। রাজ্য সরকার এই লাইসেন্সকে মান্যতা দেবে বলেই জানিয়েছেন আধিকারিক। আগামী জুলাই মাস থেকে এই প্রক্রিয়া শুরু হবে বলে জানা গিয়েছে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button