যেকোনো চারা গাছে এই পদ্ধতিতে কলম দিলে ১ বছরের মধ্যেই ফল আসবে, হবে দারুণ ফলন, রইল ভিডিও সহ পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমাদের এই ভারতবর্ষে আম খুব জনপ্রিয় একটি ফল । বছরের সমস্ত ঋতুতে আমের দেখা মেলে না বলেই যখন আমের সময় আসে তখন কিন্তু বাজারে ভিড় লক্ষ্য করার মতো হয় । পৃথিবীতে মোটামুটি সব উদ্ভিদের বংশবিস্তার বীজ থেকে হয়ে থাকে । বেশ কয়েকটি উদ্ভিদ ব্যতিক্রম অবশ্যই রয়েছে । তবে সে জাতির মধ্যে পড়ছে আম । অর্থাৎ আমার বংশ বিস্তারের মাধ্যমে হয়ে থাকে এই বীজের মাধ্যমে । বংশবিস্তার করতে গিয়ে লেগে যেত প্রায় ১০-১৩ বছর অর্থাৎ ১০-১২ বছর পর সে গাছ থেকে ফলন পাওয়া যেত।

কিন্তু বিজ্ঞানের চেষ্টা এবং মানুষের প্রচেষ্টাতে সেই সময় কমিয়ে আনা হয়েছে এবং করা হয়েছে এক থেকে দেড় বছর। এখন বিজ্ঞান উন্নত হয়েছে সেই অর্থে প্রতিনিয়ত নতুন কিছু ধরনের আবিষ্কার করে চলছে এবং বীজ ছাড়া বংশবিস্তার পদ্ধতি ইতিমধ্যে আবিষ্কার করে ফেলেছে উদ্ভিদ বিজ্ঞানীরা । যার ফলে খুব অল্প সময়ের মধ্যে অধিক পরিমাণে ফল পাওয়া সম্ভব হচ্ছে । ঠিক তেমনই হচ্ছে এই আম গাছে । আম গাছের ক্ষেত্রে দুটি টি পদ্ধতি বেশ জনপ্রিয় । যার মাধ্যমে খুব অল্প সময়ে ব্যাপক ফলন ফলায় যেতে পারে । একটি আম গাছ কিভাবে তৈরি করা যাবে বা কেমন ভাবে পদ্ধতি অবলম্বন করা হয় তা নিম্নরূপ ।

ভিনিয়ার গ্রাফটিং করার জন্য প্রথমে ১ বছর বয়সী একটি চারা গাছকে মাতৃগাছ হিসেবে নির্বাচন করতে হবে। ২ বছর বয়সী পরিপক্ক একটি আমগাছ হতে সায়ন ( উদ্ভিদের যে অংশ কলমের জন্য ব্যবহার করা হয়) সংগ্রহ করতে হবে। সায়ন সব সময় উন্নত জাতের নির্বাচন করা হয়। সায়ন সংগ্রহের সময় খেয়াল রাখতে হবে সায়ন যেনো সুস্থ ও উদ্ভিদের বর্ধনশীল অংশ হতে গ্রহন করা হয়। সায়ন সংগ্রহের পর সায়নের পাতা কে-টে ফেলতে হবে এবং নিচের দিকে ১ ইঞ্চি উপর থেকে উভয় পাশে তেড়চা করে কাটিং করতে হবে।

এরপর মাতৃ গাছ এর মাঝখানে ছু-রি দিয়ে এক ইঞ্চি মতন কা-টতে হবে এবং সে কাটা অংশে লাগিয়ে দিতে হবে সায়ানের অংশটি । তারপর একটি পলিথিন দিয়ে সেটি ভাল করে মুরে রেখে দিতে হবে এবং লক্ষ্য রাখতে হবে যাতে পরিবেশে জী-বাণু সেখানে আ-ক্রমন করতে পারে । এক সপ্তাহ পর সেখান থেকে চারা গাছ উৎপন্ন হবে এবং সেই চারা গাছ থেকে যে গাছ হবে তার ফল মাত্র এক থেকে দেড় বছরে দেবে ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button