হাওড়া স্টেশন থেকেই চালু হচ্ছে ভারতের প্রথম বুলেট ট্রেন! কোন স্টেশন পর্যন্ত চলবে এই ট্রেন? জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বুলেট ট্রেনের স্বপ্ন দেখেছে এতদিন ভারতবাসী এবং সেই স্বপ্ন দেখিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু বাস্তবে কিছুই হয়নি। যদিও মুম্বাই থেকে আমেদাবাদ অব্দি এবং দিল্লি থেকে বারানসি অবধি ট্রেন চালু করা কাজকর্ম ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। সেখানে জানা যাচ্ছে যে ট্রেনটি 300 থেকে 350 কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা তে ছুটে যাবে রেললাইনের উপর। তার কাজ শুরু হয়ে গেলও পুনরায় আরেকটি নতুন চমক দিল কেন্দ্রীয় সরকার।

এবার থেকে হাওড়া থেকে বুলেট ট্রেন চালু করার পরিকল্পনা গ্রহণ করল কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রীয় সরকারের মন্তব্য অনুসারে এমনটা বলা যাচ্ছে যে এবার হাওড়া থেকে বারানসি পর্যন্ত চলবে বুলেট ট্রেন। বিরামহীন এই যাত্রা কে বাস্তবায়িত করতে ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে সার্ভে। একটি বেসরকারি সংস্থার হাতে সার্ভের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ।সেখান থেকে উঠে আসা তথ্য অনুসারে সরকার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে

এবং খুব দ্রুত সার্ভের কাজ শেষ করার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে জানা যাচ্ছে যে বিহারের কিছু স্টেশন যেমন ধানবাদ, গিরিডির মতো স্টেশন গুলিকেও সংযোগ করা হবে।বাগোদার ব্লক বিজেপি সহ সভাপতি রাজেশ পান্ডে এই প্রকল্প নিয়ে যথেষ্ট উৎসাহিত। কারণ তিনি মনে করছেন, এই প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে তার ব্লকের মানুষের অনেক উন্নতি হবে এবং সেই সাথে নতুন জীবিকার সুযোগ পাবে এলাকার সাধারণ মানুষ।

ফলে তাদের জীবনের মানোন্নয়ন ঘটবে বলেই মনে করছেন রাজেশ বাবু। সার্ভে দলের এক সদস্য লোকেশন ভরদ্বাজের জানান যে বর্তমানে আমরা গিরিডিতে সার্ভে করছি। এখানকার সার্ভে প্রায় শেষের পথে। এটা শেষ হলেই ধানবাদ এও সার্ভের কাজ শুরু করা হবে। আমাদের কাছে এই সমস্ত সার্ভে গুলি দ্রুততার সাথে শেষ করার নির্দেশ আছে। যেই সার্ভের রিপোর্টগুলি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব জমা দিতে বলা হয়েছে সরকারের কাছে।” এর পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন,

“এই সার্ভে গুলি হাওড়া থেকে বারাণসী গামী বুলেট ট্রেনের জন্যই করা হচ্ছে। এই রিপোর্টগুলো সরকারকে জমা দিলেই তা দেখে তারা পরবর্তী পদক্ষেপ কি নেবে তা ঠিক করবে।”তাহলে কি সত্যিই হাওড়া থেকে বারানসি পর্যন্ত চলবে বুলেট ট্রেন? এখনো পর্যন্ত বিশ্বাস করতে পারছে না সাধারণ মানুষ না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button