স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডে রেজিস্ট্রেশন শুরু, দুমিনিটে বাড়ি বসেই করে ফেলুন রেজিস্ট্রেশন, রইল পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা জানি যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই রাজ্যের মেধাবী অথচ আর্থিক স-মস্যায় ভু-গতে থাকা পড়ুয়াদের জন্য নিয়ে এসেছে একটি নতুন প্রকল্প যার নাম স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড । স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে প্রতিটি ছাত্র ছাত্রীদেরকে অর্থাৎ এই পশ্চিমবঙ্গে স্থায়ী বাসিন্দা ছাত্র-ছাত্রীদেরকে ১০ লক্ষ টাকা করে শিক্ষাগত লোন দেওয়া হবে । যেটি ফলে ফলে সাধারণ ছাত্রছাত্রীরা টাকা পয়সার অভাবে আর কখনো পড়াশোনা থেকে বঞ্চিত থাকতে পারবেনা । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফ থেকে জানা গেছে যে এই রাজ্যের সমস্ত রাজ্যের গর্ব ।

তারা যাতে কোনো রকম কোনো সমস্যা না পরে অন্তত টাকা পয়সার দিক থেকে তার জন্য তাদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার । কি এই স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড এর মধ্যে প্রশ্ন রয়েছে । স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড হলো এক ধরনের কার্ড যেখানে আপনাকে ১০ লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য করা হবে সরকারের পক্ষ থেকে । আপনি এই ঢাকা ব্যাংক থেকেও নিতে পারেন । কিন্তু সেক্ষেত্রে আপনাকে গ্যারান্টার হিসেবে কিছু জমা রাখতে হবে ব্যাংকে । কিন্তু স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমে টাকা নিলে কোন রকম কোন গারেন্টার এর প্রয়োজন পড়বে না ।

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার নিজস্ব এর গরেন্টার । এর পাশাপাশি ব্যাংক থেকে লোন নইলে দুধ সমেত পরিশোধ করতে হতো । সেই পরিমাণ সুদ কিন্তু এখানে করতে হবে না ।খুব অল্প মাত্রায় সুদ প্রদান করতে হবে। এর পাশাপাশি কখনই আপনাকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের তরফ থেকে টাকা জমা দেওয়ার জন্য তাড়াহুড়ো বা চাপ দেওয়া হবে না ।১৫ বছরের মধ্যে স্বল্প করে আপনি টাকা প্রদান করে দিতে পারেন ।অবশ্যই এটি চাকরি পাওয়ার পর ।অনেকের মনে প্রশ্ন আসে এটা জন্য আবেদন করবে কিভাবে ।

তবে একথা বলে রাখা দরকার যে এই কার্ডের জন্য আবেদন করতে গেলেও তাকে অতি অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের অন্তত ১০ বছর স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে এবং বয়স ৪০ বছরের নিচে হতে হবে ।আসুন জেনে নেব কিভাবে আবেদন করা যাবে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের জন্য ।এই স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের আবেদন জানাতে প্রথমেই আপনাকে নির্দিষ্ট পোর্টালে লগ ইন করতে হবে। সেখানে ডব্লিউবি স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের Application অথবা Registration অথবা Apply Online অপশন দেখতে পাবেন। সেই লিঙ্কে ক্লিক করলে একটি নতুন ওয়েব পেজ ওপেন হবে।

যেখানে আপনাকে সব প্রয়োজনীয় তথ্য এক এক করে দিয়ে দিতে হবে। আপনার মোবাইল নম্বর সাবমিট করতে হবে।তারপর আপনার ঠিকানার তথ্যপ্রমাণ ,আধার কার্ডের বিবরণ, দ্বাদশ শ্রেণীর কার্ড শিটের বিবরণ।, আপনার মা ও বাবার সম্পর্কে তথ্য।, মা ও বাবার কাজের বিবরণ।দিতে হবে । তারপর একটি সাম্প্রতিক পাসপোর্ট সাইজ ছবি আপলোড করুন। শেষ হলে আপনার ফোনে একটি কনফার্মেশন মেসেজ আসবে তারপর উচ্চতর কর্তৃপক্ষ আপনার জমা দেওয়া তথ্য ও নথি যাচাই করবেন। এর পরে আপনি মেসেজের মাধ্যমে জানতে পারবেন আপনার স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের আবেদন গৃহীত হল না আবেদন প্রত্যাখ্যান করা হল।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button