বিনামূল্যে কোনোরকম খাটনি ছাড়াই কড়াই থেকে তুলে ফেলুন সমস্ত ময়লা! ব্যবহার করুন এই গাছের পাতা! রইল বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বর্তমান যুগে অনেক কিছু উন্নত যন্ত্রপাতি চলে এসেছে। যেমন জামাকাপড় কেউ নিমিষের মধ্যে পরিষ্কার করে ধুয়ে ফেলা যন্ত্র ওয়াশিং মেশিন । কিন্তু আমরা যত উন্নত হচ্ছি ততই যেন কাজ থেকে দূরে সরে যাচ্ছি । তাই বর্তমান প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা ঘষে-মেজে বাসন পরিষ্কার করার দিকে এগোতে চায় না। তারা সবসময়ই চাই অভিনব কিছু পদ্ধতি বা লিকুইড কিছু ব্যবহার করে তাতে খুব সহজে সে দাগ পরিষ্কার করা যেতে পারে।

কিন্তু তেমনটা হয়ে ওঠে না। বাড়িতে রান্না করার জন্য বিভিন্ন ধরনের আসবাবপত্র বা জিনিসপত্র ব্যবহার করা হয়ে থাকে । এবং কখনও কখনও দেখা যায় যে দীর্ঘদিন ধরে ব্যবহার করার ফলে সেই সমস্ত জিনিসপত্র কালো দাগ পড়ে যায়। যেমন ধরুন রান্না করার হাঁড়ি বা কড়াই। সেগুলো যদি অনেক বছরের পুরনো হয়ে যায় তাহলে কাল রঙের করা একটি দাগ পড়ে যায়। কিন্তু সেই দাগ কোনরকম অ্যাসিড বা ওষুধ মেডিসিন দিয়ে পরিষ্কার করা যায় না । যার ফলে সেটি বাধ্য হয়ে আপনাকে ফেলে দিতে হয় বা সরিয়ে ফেলতে হয়।

কিন্তু আপনি কি জানেন কোনরকম ওষুধ বা অ্যাসিড ব্যবহার না করে সেই কালো দাগকে আপনি অনায়াসে তুলে ফেলতে পারবেন ।তাই আবার একটা পাতার ব্যবহার করে । যদি না জানেন থাকেন জেনে নিন এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে। নিত্যদিনের এই বাসনপত্র গুলিতে যদি তেল চিটচিটে ভাব বা কালো দাগ পড়ে যায় তাহলে সেটি তোলার জন্য রয়েছে একটি অভিনব পদ্ধতি।

আপনি হয়তো ভাবছেন যেখানে নামিদামি ওষুধ অ্যাসিড হার মেনে যাই সেখানে আপনি কিভাবে এগুলো ছাড়া পরিষ্কার করা কথা বলছেন। তবে অবাক হলেও এই ঘটনা কিন্তু সত্যি ।এর জন্য আপনাকে নিতে হবে শুধুমাত্র কতগুলি আমপাতা। একদমই ঠিক শুনেছেন আম পাতা আমাদের বাড়ির আশেপাশে অনেক জায়গাতে পাওয়া যায়। সেটা নিয়ে আসার পর একটি পাত্রের মধ্যে অর্থাৎ একটি বড় পাত্রে মধ্যে কিছুটা পরিমান জল দিয়ে সেটিকে গ্যাসের ওভেন বসিয়ে দিতে হবে।

এরপর তার মধ্যে দিতে হবে সে আমপাতা গুলি 10 থেকে 12 মিনিট ফোটাতে হবে। সেগুলিকে যখন ফুটবে তখন তার মধ্যে ডুবিয়ে দিতে হবে দাগ ধরা পুড়ে যাওয়া কড়াই টি। 10 মিনিট পর সেটাকে ঠান্ডা করে নিচে নামিয়ে আনতে হবে। তবে একটা বিষয় মাথায় রাখতে হবে আম পাতার সাথে আপনাকে বেকিং সোডা এবং কিছুটা পরিমাণ লবণ অতি অবশ্যই যোগ করতে হবে। এরপর ঠাণ্ডা হয়ে গেলে ডিটারজেন্ট দিয়ে এবং স্ক্রাবার দিয়ে ভালো করে ঘষে নিলে দেখবেন খুব সহজেই কঠিন পোড়া দাগ উঠে যাচ্ছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button