অবশেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস! সস্তা হলো রান্নার তেল! কোন তেলে কত টাকা কমানোর সিদ্ধান্ত নিল সরকার? জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- যেখানে প্রতিদিনই বেড়ে চলেছে পেট্রোল ডিজেল এবং রান্নার গ্যাসের দাম সেখানে সাধারণ মানুষদেরকে স্বস্তি দিতে নতুন পদক্ষেপ নিল কেন্দ্রীয় সরকার। এবার থেকে সরষের তেলের বা রান্নার তেলের দাম নিয়ন্ত্রণের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে কেন্দ্রীয় সরকার। যার ফলে এক ধাক্কাতে কমতে চলেছে আগামী দিনে সরষের তেল বা বিভিন্ন ভোজ্যতেলের দাম ।কিভাবে কমছে এই দাম? কোন জায়গাতে কাটছাঁট করা হলো ?আসুন জেনেনি আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে।

প্রতিনিয়ত ঊর্ধ্বমুখী জিনিসপত্রের যাঁতাকলে পড়ে সাধারণ মানুষ রীতিমতো নাজেহাল। এমতাবস্তায় দাঁড়িয়ে সাধারন মানুষকে স্বস্তিতে কড়া পদক্ষেপ নিল কেন্দ্রীয় সরকার। সরষের তেল বা ভোজ্য তেলের ওপর আমদানি শুল্ক কমিয়ে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কোন কোন ক্ষেত্রে এই আমদানি শুল্ক একেবারে শূন্য করে দেওয়া হয়েছে ।কখনও কখনও পূর্বের তুলনায় কমানো হয়েছে অনেকটা বেশি পরিমাণে। যার ফলে এমনটা মনে করা হচ্ছে যে ধাক্কাতেই ভোজ্য তেল ও সরষের তেলের দাম কমে যাবে অনেকটা।

চিন্তা মুক্ত হয়ে যাবে সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারে মানুষেরা।মূলত অপরিশোধিত পাম, সূর্যমুখী তেল এবং সোয়াবিন তেলের থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে আমদানী শুল্ক। পূর্বের থেকে যা কমিয়ে দেওয়া হয়েছে আড়াই শতাংশ। এছাড়াও কৃষি সেস কার্যত অনেকটাই কমিয়ে দেওয়া হয়েছে অপরিশোধিত পামের ক্ষেত্রে। পূর্বের থেকে এই সেস কমানো হয়েছে ২০ শতাংশ। সেস কমানো হয়েছে সূর্যমুখী ও সোয়াবিন তেলের ক্ষেত্রেও। বর্তমানে এদের ওপর কৃষি সেস রাখা হয়েছে পাঁচ শতাংশ।

মূল শুল্কের ক্ষেত্রেও পাম,সোয়াবিন ও সূর্যমুখী তেলে কমানো হয়েছে অনেকটাই। এতদিন যাবৎ এই তেলগুলির ক্ষেত্রে মূল শুল্ক ছিল ৩২.৫ শতাংশ। বর্তমানে যা করা হয়েছে ১৭.৫ শতাংশ। অর্থাৎ পূর্বের থেকে এই তেল গুলিতে মূল শুল্ক কমানো হয়েছে ১৫ শতাংশ। এবং এই মত অবস্থায় দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যগুলিকে অর্থাৎ যে সমস্ত রাজ্যে বেশি মাত্রায় তেল উৎপাদিত হয় সে সমস্ত রাজ্যগুলিকে চিঠি দিয়েছে চিঠির মূল বিষয়বস্তু হচ্ছে রান্নার তেলের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখা। মূলত পশ্চিমবঙ্গ,রাজস্থান,মধ্যপ্রদেশ,মহারাষ্ট্র,গুজরাত, উত্তরপ্রদেশ,তামিলনাড়ু ও অন্ধ্রপ্রদেশের মতো রাজ্য গুলি। রয়েছে সেই তালিকায়।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button