গরম ভাতের সাথে আর কিছু লাগবে না যদি ডিমের এই পদটি থাকে, মুখে লেগে থাকবে এর স্বাদ, রইল পদ্ধতি!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- প্রতিদিন এ-কঘে-য়ামি খাবার খেতে আমাদের ভালো লাগে না । তাই আমরা মাঝেমধ্যে চেষ্টা করে থাকি যাতে খাবারের পরিবর্তন আনা যায় । এবং সেই পরিবর্তন আনার তাগিদ এই বিভিন্ন ধরনের রান্না বান্না করার চেষ্টা করে থাকি আমরা । কখনও কখনও বিফলতা মিললেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সফলতা । এবং এই সফলতা থেকেই আমরা এগিয়ে যেতে পারি সামনের দিকে তাই আজকের এই প্রতিবেদন আপনাদেরকে বলবো যে কিভাবে ডিম ভাপা তৈরি করবেন খুব কম সময়ে এতে পরিশ্রমের কোন কাজ নেই ।

বাড়িতে লোক চলে এসেছে হঠাৎ করে? কি খাবার দেবেন বুঝতে পারছেন না দুপুরে ? তাহলে করে ফেলুন এই রান্নাটি । খুব তাড়াতাড়ি মধ্যে সহজ একটি রান্না । এই রান্না করার জন্য আপনাকে নিতে হবে বেশ কয়েকটি ডিম এবং এবার সেই দিন গু-লিকে সেদ্ধ করে নিতে হবে আপনাকে । তারপর প্রতিটা ডিম কে দুই ভাগে ভাগ করে নিতে হবে।কড়াই এর মধ্যে কিছুটা পরিমাণ তেল দিয়ে সামান্য পরিমাণ নুন এবং হলুদের সহযোগে আপনাকে সে সেদ্ধ করে রাখার ডিমগুলি করা করে ভেজে নিতে হবে।

এরপর একটি বাটির মধ্যে ৩ থেকে ৪ টেবিল চামচ পোস্ত নেবেন এবং তার মধ্যে যোগ করে দেবেন আপনার পরিমাণমতো কাঁচালঙ্কা । এমতাবস্থায় পোস্ত এবং কাঁচালঙ্কা গু-লিকে ব্লে-ন্ডারে ভালো রকম করে ব্লে-ন্ড করে নেবেন । ব্লে-ন্ড করা হয়ে গেলে সেটি তুলে রাখবেন অন্য একটি পাত্রে । এরপর একটি টিফিনবক্স এর মধ্যে নিয়ে নেবেন কিছুটা পরিমাণ পেঁয়াজ এবং তার মধ্যে দিয়ে দেবেন আগে থেকে বে-টে রাখা পোস্ত । তার মধ্যে যোগ করে দেবেন এক চামচ হলুদ একসঙ্গে শুনুন এবং এক চামচ লঙ্কাগুঁড়ো এবং সবশেষে যোগ করে দেবেন ৩ থেকে ৪ টেবিল-চামচ সরষের তেল।

এমতাবস্থায় সমস্ত উপকরণ গু-লি ভালো মতন ভাবে নেড়ে নেবেন এবং তার মধ্যে দিয়ে দেবেন আগে থেকে ভেজে রাখা ডিম গু-লিকে । একটি কড়াইয়ে মধ্যে কিছুটা পরিমান জল নেবেন এবং সেই জলের মধ্যে দিয়ে দেবেন সেই টিফিন বক্স টি যেখানে আপনি সমস্ত উপকরণ গু-লি রেখেছেন । এবং প্রায় ৫ থেকে ৬ মিনিট ভালোভাবে সেদ্ধ করার পর সেটি সাবধানতার সাথে নামাবেন এবং ঠান্ডা হওয়ার পর সেটি যখন খুলবেন তখন দেখবেন তৈরি হয়ে গেছে ডিম ভাপা । যার স্বাদ অন্যান্য রান্না থেকে অনেকখানি আলাদা।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button