পদ্মার জলে জাল ফেলতেই ঝাকে ঝাকে উঠলো বড় তাজা ইলিশ, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- মাছ ধরার প্রবণতা দেশের প্রতিটি আনাচে-কানাচে দেখা যায় । কারণ যদি মাছ না ধরা হয় তাহলে মাছের রপ্তানি হবে না এবং দেশের মধ্যে থাকা মানুষজন মাছের স্বাদ অনুভব করতে পারবে না । যদিও ভারত বর্ষ এবং বাংলাদেশ অধিক পরিমাণে মাছ ধরার প্রবণতা দেখা যায় । কারণ ভারত বর্ষ এবং বাংলাদেশ হলো নদীমাতৃক দেশ ।আমাদের ভারতবর্ষে যেমন গঙ্গার হয়েছে ঠিক তেমনি বাংলাদেশের রয়েছে পদ্মা । যেখানে ইলিশ মাছ জনপ্রিয় এবং পদ্মা নদীতে ইলিশ মাছ ভারতে রপ্তানি হয় বলে ভারতীয়রা ইলিশ মাছের স্বাদ অনুভব করতে পারে ।

সাধারণভাবে যারা মাছের উপর নির্ভর করে জীবিকা নির্বাহ করে, তারা জেলে হিসেবে স্বীকৃত। আবার নদীর উপর বা পানির উপর নির্ভরশীলদেরকেও জেলে বলা হয়। মাছ ধরাই জেলেদের প্রধান কাজ হিসেবে বিবেচিত হত একসময়। কারণ অতীতে উৎপাদিত মাছের বেশিরভাগই প্রাকৃতিকভাবে খাল-বিল, নদী-নালায় বিপুল পরিমাণে পাওয়া যেত। মাছের চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে জেলেদের কাজের পরিধিও বেড়ে গেছে কয়েক গুণ। মাছের প্রজননকাল থেকে শুরু করে মাছ চাষের প্রতিটি ধাপ এরাই পরিচালিত করে থাকে।

আর তাই এখন জেলে শব্দের ব্যবহার কমে গিয়ে ‘মাছ চাষী’ বা ‘মৎস্য চাষী’র ব্যবহারই বেশি হচ্ছে। সম্প্রতি একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে সেখানে দেখানো হয়েছে যে কিভাবে পদ্মা নদীতে জ্যান্ত ইলিশ ধরা যায় । যেহেতু ইলিশ বাংলাদেশের জাতীয় মাছ ইলিশ খাওয়ার প্রবণতা এবং ইচ্ছে প্রায় প্রতিটি বাংলাদেশের মানুষের মধ্যেই দেখা যায় । তার সাথে সাথে এই ভারতীয়দের মধ্যে দেখা যায় । সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে একটি ছোট্ট নৌকা তে করে নদীতে পাড়ি দিয়েছে দুই জেলে । এবং তাদের কাছে রয়েছে একটি জাল ।

যে জাল এর মাধ্যমে তারা মাছ ধরতে পারবে ।ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে নৌকোতে বসে থাকা অবস্থায় ওই দুই জেলে অসম্ভব সুন্দর ভাবে খুব সহজেই নদী থেকে ধরে নিচ্ছে জ্যান্ত ইলিশ । জ্যান্ত ইলিশ দেখার সৌভাগ্য খুব কম মানুষের হয় । কিন্তু যেহেতু এই ভিডিওর মাধ্যমে সে ঘটনাকে তুলে ধরা হয়েছে তাই বাড়িতে বসেই জ্যান্ত ইলিশ দেখার সৌভাগ্য হচ্ছে অনেকের ।ইতিমধ্যে সে ভিডিওটি জনপ্রিয়তা পেয়েছে ব্যা-পক পরিমাণে ।তার পাশাপাশি নিজেকে এবং অন্যদেরকে দেখানোর জন্য অনেকে ভিডিওটি শেয়ার করেছেন ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button