“আম্ফান” এর চেয়েও বেশি ভ-য়’ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’, যে তারিখে আ-ছ’ড়ে পড়বে বাংলায়, রইলো ভিডিও সহ!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- গতবছর লকডাউন এর মাঝামাঝি সময়ে করে পশ্চিমবঙ্গের বু-কে আ-ছড়ে প-ড়েছিল ভ-য়-ঙ্কর ঘূ-র্ণিঝড় আমফান । চিত্রটা এখনো মানুষ সঠিকভাবে ভুলে উঠতে পারেনি । বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন দুঃ-সং-বাদ ভেসে আসছে খবরের শিরোনামে । তার পাশাপাশি এই আ-ম্ফান ব্যাপক ক্ষ-য়ক্ষ-তি করেছিল গোটা রাজ্যে । সব থেকে বেশি ক্ষ-তি হয়েছিল সমুদ্র উপকূলবর্তী অঞ্চলে গু-লিতে অর্থাৎ সুন্দরবন দীঘা এই সমস্ত জায়গাগু-লিতে ।

আমরা দেখেছি সেই সময় রাজ্য সরকার এবং কেন্দ্রীয় সরকার তৎপরতা তে সাহায্য করা হয়েছে যতটা সম্ভব । কিন্তু তবুও অনেক মানুষ প-রিজন হা-রা হয়েছেন । কেউ কেউ আবার ঘরছাড়া হয়েছেন । কারণ জ-লের ত-লে ত-লিয়ে গি-য়েছিল বড় বড় ঘর । উপরে পড়েছিল রাস্তার ধারে প্রাচীন গাছগু-লি । তার রে-শ এখনো সঠিকভাবে কে-টে ওঠেনি ।। মাঝে মধ্যেই তার চিত্র ধরা পড়ে আমাদের আশেপাশে অঞ্চলে । কিন্তু ফের আরও একবার পশ্চিমবঙ্গের বু-কে আ-ছড়ে প-ড়তে চ-লেছে আ-ম্ফান এর থেকেও শ-ক্তিশালী ঘূ-র্ণিঝ-ড় ‘যশ’ ।

বঙ্গোপসাগরের ক্রমশ শ-ক্তি সঞ্চয় করে পূর্ণ আকার ধারণ করতে চলেছে এই ঘূ-র্ণিঝ-ড় । আবহাওয়া দপ্তর খবর অনুসারে আগামী ২৪-২৫ মে এর মধ্যে আছে পড়তে পারে সুন্দরবন উপকূলবর্তী অঞ্চলে । তার পাশাপাশি সেই ঘূর্ণিঝড় বাংলাদেশ দিকে যেতে পারে । তবে ৪৮ ঘন্টা না যাওয়া পর্যন্ত কি ঘটতে চলেছে তা স্পষ্টভাবে বলা সম্ভব নয় । তবুও সমস্ত দিক থেকে প্রস্তুত থাকে ছে রাজ্য সরকার । যেকোনো ধরনের পরিস্থিতিতে মোকাবিলা করতে তৎপর হয়ে উঠেছে রাজ্য সরকার ।

উপকূলবর্তী অঞ্চলে থেকে মানুষদেরকে সচেতন করা হচ্ছে । সমুদ্রের কাছাকাছি যারা থাকে তাদেরকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে । শুকনো খাবার মজুদ করা হচ্ছে ব্যা-পক পরিমাণে । প্রকৃতির উপর আমরা যে সমস্ত অ-ত্যাচার গু-লি করে থাকি তার ফলস্বরূপ মাঝেমধ্যে এগু-লি ঘুরেফিরে আসে আমাদের জীবনে । যা আমাদের ব্যস্ততম জনজীবনকে ছা-রখা-র করে দেয় । এখন ক্রমশ চি-ন্তার ভাঁ-জ বেড়ে চলেছে রাজ্যবাসীর কপালে । কারণ একদিকে হু হু করে বাড়ছে করোনা সং-ক্র-মণ ও মৃ-ত্যু অপরদিকে ঘূ-র্ণিঝ-ড় ঠিক কতটা ক্ষতি করবে রাজ্যের মানুষের তা বোঝা সম্ভব হচ্ছে না।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button