আপনিও কি তৈরি করতে চান নতুন ‘নীল আধার কার্ড’ ? কারা কারা পাবেন এই সুবিধা? জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- এই ভারতবর্ষে থাকা প্রতিটি নাগরিকের পরিচয় পত্র পাওয়ার জন্য আধার কার্ড কে একমাত্র গুরুত্বপূর্ণনথি হিসেবে বিবেচিত করা হয় । 12 সংখ্যার একটি ইউনিক আইডি নাম্বার থাকে যে ইউনিক আইডি নাম্বার মাধ্যমেই মিলে যায় সেই ব্যক্তির পরিচয় পত্র তার পাশাপাশি এখানে যুক্ত করা থাকে রেটিনা সহ ফিঙ্গারপ্রিন্ট। কিন্তু এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত রয়েছে দেশের যুবক-যুবতী এবং তরুণ ও প্রবীণ নাগরিকরা।

কিন্তু এতদিন পর্যন্ত বাচ্চা বা সদ্যজাত তোদের কোনরকম পরিচয় পত্র ছিল না অর্থাৎ আধার কার্ডে তাদের নাম নথিভুক্ত ছিল না ।এবার থেকে তাদের কেউ একই তালিকায় আনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার এবং তাদের জন্য যে নতুন আধার কার্ডের সূচনা করা হবে তার নাম দিয়েছে বাল আধার কার্ড কিংবা নীল আধার কার্ড। সরকারের তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে যে এই আধার কার্ডে শিশুর কোন আঙ্গুলের ছাপ বা চোখের প্রিন্ট অর্থাৎ আইরিস নেওয়া হবে না।

শুধুমাত্র ছবি তুলে আধার কার্ড প্রেরণ করা হবে এবং পাঁচ বছর ও ১৫ বছরে এই বায়োমেট্রিক আপডেট করতে হবে। কিন্তু তার আগে কোনো আপডেটের প্রয়োজন নেই।এই ধরনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ফলে আগামী দিনে গোটা দেশের মানুষ সেটা সদ্যজাত সন্তান হতে পারে বা ৮০ বছরের বৃদ্ধ হতে পারে সবাইকে এক তালিকায় আনা যেতে পারে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের।

বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্কুল বিমানবন্দর রেলওয়ে টিকিট হোটেল বুকিং ইত্যাদি ক্ষেত্রে যে পরিচয় পত্রের দরকার পড়ে সেই পরিচয় পত্র হিসেবে তারা এই আধার কার্ড দেখাতে পারে।পাশাপাশি স্কুলে যে সমস্ত মিড ডে মিলের প্রকল্প শুরু হয়েছে সেই সুবিধা পাওয়ার জন্য এই আধার কার্ড থাকা বাঞ্ছনীয়। তার পাশাপাশি বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পগুলি তে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য এই এই কার্ড থাকা অতি অবশ্যই দরকার । এবার প্রশ্ন হচ্ছে কিভাবে এই নীল আধার কার্ডের জন্য আবেদন করবেন তার উত্তর দেওয়া রইল এই প্রতিবেদনে।

সন্তানের জন্যে ব্লু আধার কার্ড তৈরি কিংবা রেজিস্ট্রেশন করাতে গেলে প্রথমেই ইউআইডিএআই-এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে। সেখানে থাকা Aadhaar Card Registration অপশনে ক্লিক করতে হবে। সেখানে সন্তানের নাম, বাবা-মায়ের নাম, ফোন নম্বর, ইমেল সহ আরও বেশ কয়েকটি তথ্য দেওয়াটা বাধ্যতামূলক করে দেওয়া হয়েছে। ফর্মে সমস্ত তথ্য দিতে হবে। বাড়ির ঠিকানাও দিতে হবে। এরপর যেমন ভাবে বলে দেওয়া হয়েছে সেইভাবে একের অর এক অপশনে ক্লিক করতে হবে। আর তাতেই গোটা প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হবে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button