তবে কি সত্যিই বাতিল হতে চলেছে ১০০ টাকার পুরনো নোট? জেনে নিন ভাইরাল খবরের আসল সত্যতা!

নিজস্ব প্রতিবেদন:করোনা পরিস্থিতিতে বিভিন্ন নিয়ম নীতির পরিবর্তন ঘটেছে। সম্প্রতি বেশ কিছুদিন ধরেই দেশের বিভিন্ন অংশে একটি জ-ল্প-না শুরু হয়েছে ১০০ টাকার নোটকে নিয়ে। বলা হচ্ছে হয়তো খুব শীঘ্রই এই নোট বন্ধ হয়ে যেতে পারে। যার ফলস্বরূপ এখন থেকেই অনেক ব্যবসায়ীদের কপালে চিন্তার ছাপ পড়েছে। যদিও এই ধরনের ঘটনা কোন নতুন বিষয় নয়।

এর আগেও ২০১৬ সালে আচমকাই গোটা দেশে নোট ব-ন্দি শুরু হয়ে গিয়েছিল।হঠাৎ করেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী একটি ঘোষণা জারি করার মাধ্যমে ৫০০ ও ১০০০ টাকার সমস্ত নোট বা-তি-ল করে দিয়েছিলেন। প্রধানত কালোটাকা থেকে মুক্তি পাওয়ার উদ্দেশ্যেই এই নোট ব-ন্দি করা হয়েছিল।যদিও অনেকের মতে এই নোট বন্দির ফলে বিশেষ কোনো ফলাফল দেখা যায়নি।

এই নোট দুটি বাতিল করে দেওয়ার পরে দেশের বাজারে ৫০০ ও ২০০০ টাকার নতুন নোট নিয়ে আসা হয়েছিল। নোট বন্দির ফলে সাধারণ মানুষের জীবনযাপন প্রায় ব্যাহত হয়ে গিয়েছিল। দেশের প্রতিটি ব্যাংক এবং এটিএম গু-লি-তে প্রায় দীর্ঘ সময় ধরে লাইন দিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন মানুষ। এরই মধ্যে আবারও ১০০ টাকার নোট বন্ধ হওয়ার জ-ল্প-না শুরু হওয়ায় ভোগান্তির আশঙ্কায় তাই চিন্তায় পড়ে গিয়েছেন সাধারন মানুষ।

কিন্তু একটি খবর স্বস্তি প্রকাশ করেছে জনগণের জন্য।সম্প্রতি দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্ক অর্থাৎ রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া টুইট করে জানায়, বাতিল হচ্ছে না পুরনো ৫, ১০ ও ১০০ টাকার নোট। এবং পুরনো নোটগুলি বাতিল করার কোনও পরিকল্পনাও এই মুহূর্তে নেই।

এর আগে ২০১৮ সালে নতুন ১০, ৫০ ও ২০০ টাকার নোটের পর, ২০১৯ সালে নতুন ১০০ টাকার নোটও বাজারে আসে। সে কারণেই পুরনো ১০০-র নোটগুলি বাতিলের প্রসঙ্গটি আরও জোরালো হয়ে উঠছিল।কিন্তু রিজার্ভ ব্যাংকের জারি করা এই নতুন তথ্যের ফলে অনেকটাই আশঙ্কা কেটে গিয়েছে মানুষের। মাঝে মাঝে নেট মাধ্যমে বিভিন্ন ভুয়ো খবর ভাইরাল হতে থাকে। মনে করা হচ্ছে, এই খবরটিও সেগুলির মধ্যে একটি। যাই হোক আরো বিস্তারিত জানতে আমাদের প্রতিবেদনগুলোর প্রতি নজর রাখতে থাকুন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button